ঢাকা     শুক্রবার   ০১ মার্চ ২০২৪ ||  ফাল্গুন ১৮ ১৪৩০

স্ত্রী ও সন্তান হত্যা মামলায় স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

ঝিনাইদহ সংবাদদাতা || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:০০, ২৭ নভেম্বর ২০২৩  
স্ত্রী ও সন্তান হত্যা মামলায় স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

ঝিনাইদহে  স্ত্রী ও সন্তান হত্যা মামলায় স্বামী সুজন হোসেনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। সোমবার (২৭ নভেম্বর) দুপুরে অতিরিক্ত দায়রা জজ ২য় আদালতের বিচারক মো. আব্দুল মতিন রায় ঘোষণা করেন। 

সাজাপ্রাপ্ত সুজন শৈলকুপা উপজেলার দোহা নাগিরহাট গ্রামের বিশে হোসেনের ছেলে। 

মামলার বিবরণে জানা যায়, শৈলকুপা উপজেলার নোন্দীর গাতী গ্রামের মৃত আহম্মদ বিশ্বাসের মেয়ে ইয়াসমিন খাতুনের সঙ্গে একই উপজেলার সুজন হোসেনের  বিয়ে হয়। তাদের ৪ বছরের একটি ছেলে সন্তান ছিল। সুজন অন্য নারীর প্রতি আসক্ত হয়ে স্ত্রীকে নির্যাতন করতেন। ২০১৬ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি সুজন তার স্ত্রী সন্তান নিয়ে বেড়াতে যান বলে ইয়াসমিনের পরিবার জানতে পারেন। কয়েকদিন অতিবাহিত হলে ইয়াসমিন ও তার সন্তানের খোঁজ না পেয়ে খোঁজাখুঁজি শুরু করেন পরিবারের সদস্যরা।

ইয়াসমিনের মা সালেহা বেগম পরে বাদী হয়ে ৬ জনের নাম উল্লেখ ২০১৬ সালের ২২ মার্চ আদালতে অপহরণ ও হত্যা মামলা দায়ের করেন। আদালত মামলাটি এজাহার হিসেবে শৈলকুপা থানাকে গ্রহণ করার নির্দেশ দেন। পরে পুলিশ তদন্ত করে জানতে পারে সুজন ফরিদপুর উপজেলার সদরপুর থানায় পালিয়ে আছেন। সেখান থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। সুজন আদালতে স্ত্রী-সন্তানকে হত্যার কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দেন। সেসময় সুজন জানান, তিনি তার  স্ত্রী ও সন্তানকে ফরিদপুর জেলার পদ্মা নদীর চরে গলায় ফাঁস ও শ্বাসরোধে হত্যার পর বালু চাপা দিয়ে পালিয়ে ছিলেন।

ঘটনার তদন্ত শেষে ২০১৭ সালের ৩১ জানুয়ারি সুজনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে পুলিশ। দীর্ঘবিচারিক প্রক্রিয়া শেষে আদালত আজ রায় ঘোষণা করেন।

শাহরিয়ার/মাসুদ

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়