ঢাকা     বুধবার   ২২ মে ২০২৪ ||  জ্যৈষ্ঠ ৮ ১৪৩১

বছরজুড়ে পুঁজিবাজার থেকে ১১০১ কোটি টাকা মূলধন সংগ্রহ

নুরুজ্জামান তানিম || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১০:১৬, ২১ ডিসেম্বর ২০২২   আপডেট: ১০:৪২, ২১ ডিসেম্বর ২০২২
বছরজুড়ে পুঁজিবাজার থেকে ১১০১ কোটি টাকা মূলধন সংগ্রহ

বিদায়ী বছরে পুঁজিবাজারে ছয়টি কোম্পানি প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে মূলধন সংগ্রহ করেছে। এছাড়া, একটি মিউচুয়াল ফান্ড ও দুটি ব্যাংক বন্ড ছেড়ে পুঁজিবাজার থেকে মূলধন সংগ্রহ করে। বিদায়ী বছরে পুঁজিবাজার থেকে মোট ১ হাজার ১০১ কোটি ২৬ লাখ ১০ হাজার ৬০ টাকা মূলধন সংগ্রহ করা হয়েছে। এর মধ্যে দুটি কোম্পানি প্রিমিয়াম বাবদ ৮৭ কোটি ৫১ লাখ ৯৮ হাজার ১৩০ টাকা মূলধন উত্তোলন করে৷

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (সিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এর আগে গত বছরে একটি সুকুক বন্ড ও ১৪টি কোম্পানিসহ মোট ১৫টি প্রতিষ্ঠান পুঁজিবাজার থেকে ১ হাজার ৬৫৮ কোটি ৪৪ লাখ টাকা মূলধন সংগ্রহ করে৷

চলতি বছরে মূলধন সংগ্রহ করা কোম্পানিগুলো হলো— জেএমআই হসপিটাল রিক্যুইজিট ম্যানুফ্যাকচারিং, মেঘনা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি, চার্টার্ড লাইফ ইন্স্যুরেন্স, গ্লোবাল ইসলামী ব্যাংক, ইসলামী কমার্সিয়াল ইন্স্যুরেন্স ও নাভানা ফার্মসিউটিক্যালস।

বন্ডগুলোর মধ্যে আছে—পূবালী ব্যাংক পারপেচুয়াল বন্ড ও সিটি ব্যাংক পারপেচুয়াল বন্ড।

মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে আছে আইসিবি এএমসিএল সিএমএসএফ গোল্ডেন জুবিলি মিউচুয়াল ফান্ড।

পুঁজিবাজার থেকে আইপিও’র মাধ্যমে জেএমআই হসপিটাল রিক্যুইজিট ম্যানুফ্যাকচারিং প্রিমিয়ামসহ ৭৪ কোটি ৯৯ লাখ ৯৯ হাজার টাকা, মেঘনা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি ১৬ কোটি টাকা, চার্টার্ড লাইফ ইন্স্যুরেন্স ১৫ কোটি টাকা, গ্লোবাল ইসলামী ব্যাংক ৪২৫ কোটি টাকা, ইসলামী কমার্সিয়াল ইন্স্যুরেন্স ২০ কোটি ২৬ লাখ ১১ হাজার ৬০ টাকা ও নাভানা ফার্মসিউটিক্যালস প্রিমিয়ামসহ ৭৫ কোটি টাকা সংগ্রহ করেছে।

বন্ডগুলোর মধ্যে পূবালী ব্যাংক পারপেচুয়াল বন্ড ৫০ কোটি টাকা ও সিটি ব্যাংক পারপেচুয়াল বন্ড ৪০০ কোটি টাকা পুঁজিবাজার থেকে সংগ্রহ করে। মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে আইসিবি এএমসিএল সিএমএসএফ গোল্ডেন জুবিলি মিউচুয়াল ফান্ড ২৫ কোটি টাকা সংগ্রহ করেছে।

এদিকে, পাইপলাইনে থাকা আরও ১৫টি কোম্পানি পুঁজিবাজার থেকে ৭২০ কোটি ৫০ লাখ টাকা সংগ্রহের অপেক্ষায় আছে। এ কোম্পানিগুলো চলতি বছরে পুঁজিবাজার থেকে অর্থ সংগ্রহ করতে পারেনি। সবকিছু ঠিক থাকলে কোম্পানিগুলো আগামী বছর অর্থ সংগ্রহ করতে পারবে। পাইপলাইনে থাকা কোম্পানিগুলোর মধ্যে বেস্ট হোল্ডিংস ৩৫০ কোটি টাকা, ইসলাম অক্সিজেন ৯৩ কোটি টাকা, পারটেক্স ক্যাবলস ৩০ কোটি টাকা, দুলাল ব্রাদার্স ৩০ কোটি টাকা, এমকে ফুটওয়্যার ১০ কোটি টাকা, গ্লোরিয়াস ক্রপ কেয়ার ১১.৫০ কোটি টাকা, সুব্রা সিস্টেমস ১০ কোটি টাকা, আল-মদীনা ফার্মাসিউটিক্যালস ৫ কোটি টাকা, অ্যাগ্রো অর্গানিকা ১০ কোটি টাকা, ক্লাসিক ফয়েল ৩০ কোটি টাকা, বি ব্রাদার্স গার্মেন্টস ৫০ কোটি, রাইমার কেমিক্যাল ৩০ কোটি, সিকদার ইস্যুরেন্স ১৬ কোটি, এশানা নন-ওভেন ফেব্রিক্স ৩০ কোটি এবং ট্রাস্ট ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড ১৬ কোটি টাকা সংগ্রহ করবে। 

এনটি/রফিক

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়