Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বুধবার   ২৭ অক্টোবর ২০২১ ||  কার্তিক ১১ ১৪২৮ ||  ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

Risingbd Online Bangla News Portal

যে কারণে নাগা-সামান্থার ডিভোর্স

বিনোদন ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৮:২৬, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১   আপডেট: ১১:২৩, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১
যে কারণে নাগা-সামান্থার ডিভোর্স

ভারতের দক্ষিণী সিনেমার জনপ্রিয় তারকা দম্পতি সামান্থা রুথ প্রভু ও নাগা চৈতন্য। গত জুলাই মাসের শেষের দিকে গুঞ্জন চাউর হয়, ভেঙে যাচ্ছে এ জুটির সংসার। কিছুদিন আগে এ বিষয়ে সামান্থা-নাগাকে প্রশ্ন করা হলে তা এড়িয়ে যান দুজনেই। এতে বিচ্ছেদের বিষয়ে নেটিজেনদের সন্দেহ আরো গাঢ় হয়।

বিয়েবিচ্ছেদের গুঞ্চন চাউর হওয়ার পর থেকে নাগা-সামান্থা যেমন মুখে কুলুপ এঁটেছেন, তেমনি সামান্থার শ্বশুর নাগার্জুনাও স্পেকটি নট। তবে এই জুটির বিয়েবিচ্ছেদ হয়ে যাচ্ছে এতে সন্দেহের কোনো অবকাশ নেই বলে জানিয়েছেন একটি সূত্র। শুধু তাই নয়, কী কারণে আলাদা হয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাও ব্যাখ্যা করেছেন।

সূত্রটি টাইমস অব ইন্ডিয়াকে বলেন—‘চেন্নাইয়ের একটি সাধারণ পরিবারে জন্ম নেওয়া সামন্থা চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে ব্যাপক পরিচিতি পেয়ছ্নে। এ অভিনেত্রী চলচ্চিত্রকে ভীষণরকম ভালোবাসেন। বিয়ের পরও এই অঙ্গন ছেড়ে দিতে চাননি তিনি। বারবার ফটোশুটে অংশ নিয়েছেন, গ্ল্যামারাস চরিত্রে অভিনয় করেছেন, নতুন নতুন কাজের জন্য স্কিন টেস্ট দিয়েছেন। কিন্তু খোলামেলাভাবে পর্দায় সামান্থার উপস্থিতি পছন্দ করছিলেন না নাগা চৈতন্য ও তার বাবা নাগার্জুনা আক্কিনেনি। আর এরই মধ্যে ‘ফ্যামেলিম্যান-টু’ ওয়েব সিরিজের কাজ শুরু করেন সামান্থা। এই সিরিজে খুবই সাহসী চরিত্রে অভিনয় করেন তিনি। এটি আক্কিনেনি পরিবারের সদস্যদের খুব বিরক্ত করেছে বলে মনে হচ্ছে। আর সামান্থা তার ক্যারিয়ার নিয়ে ভাবনার পরিবর্তন করেননি। ফলশ্রুতিতে এই দম্পতিকে নিয়ে গেছে বিবাহবিচ্ছেদের দিকে।’


 
বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করার জন্য পারিবারিক আদালতও এই তারকা দম্পতিকে সময় দিয়েছিলেন। তা উল্লেখ করে সূত্রটি বলেন—‘সামান্তা-নাগা চৈতন্য আলাদা হয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর পারিবারিক আদালত তাদেরকে কয়েকবার কাউন্সিলিং করিয়েছেন। কিন্তু এরপরও তারা সিদ্ধান্ত বদলায়নি। এটা নিশ্চিত যে তাদের বিয়েবিচ্ছেদ হবেই! বিচ্ছেদের পুরো প্রক্রিয়াটি আগামী দুই থেকে তিন মাসের মধ্যে শেষ হবে।’

জানা গেছে, আনুষ্ঠানিক বিচ্ছেদের সময়ে সামান্থা মোট ৫০ কোটি রুপি খোরপোশ বাবদ পাবেন। যদিও এ খবর নাগা চৈতন্য এবং সামান্থা ভক্তদের জন্য কষ্টকর।

২০১০ সালে তামিল ভাষার একটি সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রে পা রাখেন সামান্থা। একই বছর তেলেগু ভাষার ‘ইয়ে মায়া চেসাভ’ নামের সিনেমায় অভিনয় করেন তিনি। এতে নাগা চৈতন্য আক্কিনেনির সঙ্গে জুটি বেঁধে অভিনয় করেন এই অভিনেত্রী। এ সিনেমার মাধ্যমে প্রথম পরিচয় সামান্থা রুথ প্রভু-নাগা চৈতন্য আক্কিনেনির। তারপরই প্রেমের সম্পর্কে জড়ান তারা। এরপর লুকিয়ে দীর্ঘদিন প্রেম করেন এই জুটি। তাদের প্রেমের সম্পর্ক নিয়ে জল্পনা-কল্পনাও কম হয়নি। সব কিছুর অবসান ঘটিয়ে ২০১৭ সালের ৬ অক্টোবর ভারতের পর্যটন নগরী গোয়ার একটি রিসোর্টে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন।

বিয়ের পর সামান্থা তার নামের শেষাংশে স্বামীর পদবী ‘আক্কিনেনি’ যুক্ত করেন। তার ইনস্টাগ্রাম, টুইটার, ফেসবুক অ্যাকাউন্টে সামান্থা রুথ প্রভুর পরিবর্তে লিখেন সামান্থা আক্কিনেনি। কিন্তু হঠাৎ ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট থেকে নিজের নামের সঙ্গে যুক্ত করা ‘আক্কিনেনি’ অংশটুকু মুছে ফেলেন তিনি। আগের মতো সামান্থা রুথ প্রভু নামে দেখা যাচ্ছে তার প্রোফাইলের নাম। মূলত এরপরই শুরু হয় সামান্থা-নাগার সংসার ভাঙার গুঞ্জন।

বর্তমানে ‘কাতুবাকুলা রেন্ডু কাদাল’ সিনেমা নিয়ে ব্যস্ত সামান্থা। এছাড়া ‘শকুন্তলাম’ সিনেমায় দেখা যাবে তাকে। সংস্কৃত ভাষার ‘অভিযানা শকুন্তলাম’ নাটক অবলম্বনে সিনেমাটি তৈরি হচ্ছে। রাজা দুষ্মন্ত ও শকুন্তলার প্রেম কাহিনি এতে তুলে ধরা হবে। এ ছাড়াও অশ্বিন সারাবানাম পরিচালিত একটি ভৌতিক সিনেমায় অভিনয় করবেন সামান্থা।

ঢাকা/শান্ত

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়