ঢাকা     বুধবার   ১৯ জুন ২০২৪ ||  আষাঢ় ৫ ১৪৩১

এশিয়ায় আরেক দফায় চরম হচ্ছে তাপমাত্রা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:৩৫, ১ জুন ২০২৩   আপডেট: ২২:৫৬, ১ জুন ২০২৩
এশিয়ায় আরেক দফায় চরম হচ্ছে তাপমাত্রা

এশিয়ার দেশগুলোতে আরেক দফা চরম তাপমাত্রা পরিস্থিতি বিরাজ করতে শুরু করেছে। পুরো অঞ্চলে মৌসুমী তাপমাত্রা রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে। এর ফলে এই অঞ্চলের বাসিন্দাদের দ্রুত পরিবর্তনশীল জলবায়ুর সাথে খাপ খাইয়ে নেওয়ার ক্ষমতা নিয়ে উদ্বেগ বেড়েছে।

এপ্রিলে এশিয়ার বড় অংশে তীব্র তাপপ্রবাহ ছিল। মে মাসের শেষের দিকে তাপমাত্রা আবার বেড়ে যায়। চীন, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া এবং অন্যান্য অঞ্চলে মৌসুমী তাপমাত্রা রেকর্ড ছাড়িয়ে গিয়েছিল। ওই সময় বিশেষজ্ঞরা সতর্ক করে দিয়ে বলেছিলেন, আগামী মাসে আরও তীব্র তাপপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে।

অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলস বিশ্ববিদ্যালয়ের জলবায়ু বিজ্ঞানী সারাহ পারকিন্স-কির্কপ্যাট্রিক বলেন, ‘আমরা বলতে পারি না যে, এগুলো এমন ঘটনা যার সঙ্গে আমাদের মানিয়ে নিতে হবে এবং পরিস্থিতি প্রশমিত হবে। কারণ জলবায়ু পরিবর্তনের অগ্রগতির সাথে সাথে এগুলো আরও খারাপ হতে হচ্ছে।’

ভিয়েতনামের তাপপ্রবাহ জুন পর্যন্ত স্থায়ী হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। দীর্ঘ সময় এয়ার কন্ডিশনার চালানোর কারণে বিদ্যুতের চাহিদা বেড়েছে এবং এর ফলে কর্তৃপক্ষ রাস্তার আলো বন্ধ এবং লোডশেডিংয়ে বাধ্য হয়েছে। রাজধানী হ্যানয় থেকে প্রায় ১৫০ কিলোমিটার দক্ষিণে থান হোয়া প্রদেশে ৬ মে দেশটির সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৪৪ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আরেকটি প্রদেশ বুধবার রেকর্ড করা হয়েছে ৪৩ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

ভিয়েতনামের আবহাওয়া বিভাগ বৃহস্পতিবার উচ্চ বিদ্যুতের ব্যবহারের কারণে আবাসিক অগ্নিকাণ্ডের ঝুঁকি সম্পর্কে সতর্ক করেছে। আগামী দুই দিনের মধ্যে তাপমাত্রা ৩৫ থেকে ৩৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে থাকতে পারে। এই সময় পানিশূন্যতা, অবসাদ এবং হিটস্ট্রেকের ঝুঁকি থাকবে বলেও সতর্ক করা হয়েছে।

চীনের সাংহাইয়ে সোমবার ছিল এক শতাব্দিরও বেশি সময়ের মধ্যে সবচেয়ে উষ্ণতম মে মাসের দিন । একদিন পরে সেনজেনের দক্ষিণ-পূর্ব প্রযুক্তি উৎপাদন কেন্দ্রের একটি আবহাওয়া কেন্দ্রও মে মাসে ৪০ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করেছে। দক্ষিণাঞ্চলে তাপপ্রবাহ আরো কয়েকদিন অব্যাহত থাকতে পারে।

ভারত, পাকিস্তান এবং দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় এপ্রিল মাসে তীব্র তাপপ্রবাহ ছিল। যার ফলে ব্যাপক অবকাঠামোর ক্ষতি হয়েছে এবং হিটস্ট্রোকের মাত্রা বেড়েছে। এই মাসে বাংলাদেশও ৫০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে উষ্ণ দিন ছিল। এছাড়া থাইল্যান্ড ৪৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা ছিল, যা দেশটির সর্বোচ্চ তাপমাত্রার রেকর্ড। একই মাসে সিঙ্গাপুরকে ৪০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে উষ্ণতম দিন পার করতে হয়েছে।
 

ঢাকা/শাহেদ

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়