RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ২৬ জানুয়ারি ২০২১ ||  মাঘ ১২ ১৪২৭ ||  ১০ জমাদিউস সানি ১৪৪২

ঘুষসহ গ্রেপ্তার নৌ-পরিবহনের সাবেক প্রকৌশলীকে জিজ্ঞাসাবাদ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:৪৬, ২৬ নভেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৬:৫৯, ২৬ নভেম্বর ২০২০
ঘুষসহ গ্রেপ্তার নৌ-পরিবহনের সাবেক প্রকৌশলীকে জিজ্ঞাসাবাদ

ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে গ্রেপ্তার হয়ে জামিনে থাকা নৌ-পরিবহন অধিদপ্তরের বরখাস্ত হওয়া প্রধান প্রকৌশলী এস এম নাজমুল হককে ভিন্ন অভিযোগে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত অনুসন্ধান কর্মকর্তা দুদকের উপ-পরিচালক মো. সালাউদ্দিন তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। দুদক পরিচালক প্রনব কুমার ভট্টাচার্য্য বিষয়টি জানিয়েছেন।

এর আগে নাজমুলকে ঘুষের টাকাসহ গ্রেপ্তার করে দুদক। এবার তার নামে নৌ-পরিবহন অধিদপ্তরের দুটি প্রকল্পে দুর্নীতি নিয়ে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ আসে দুদকে।

নাজমুলের বিরুদ্ধে নতুন অভিযোগের বিষয়ে দুদকের এক কর্মকর্তা জানান, অধিদপ্তরের ‘স্ট্যাবলিস্ট অব গ্লোবাল মেরিটাইম ডিস্ট্রেস অ্যান্ড সেফটি সিস্টেম’ এবং ‘ইন্টিগ্রেটেড মেরিটাইম নেভিগেশন সিস্টেম’ নামে দুই প্রকল্পে অনিয়ম-দুর্নীতি হয়েছে।

এতে প্রধান চাবিকাঠি নেড়েছিলেন দুদকের হাতে ঘুষের পাঁচ লাখ টাকাসহ আটক নাজমুল হক। এই অনিয়মের সঙ্গে আরও কয়েকজন জড়িত রয়েছেন, বলেন তিনি।

এর আগে ২০১৮ সালের এপ্রিলে ফাঁদ পেতে রাজধানীর সেগুনবাগিচা এলাকার একটি হোটেল থেকে ঘুষের পাঁচ লাখ টাকাসহ নাজমুল হককে গ্রেপ্তার করে দুদক।

ওইদিনই তার বিরুদ্ধে রাজধানীর শাহবাগ থানায় মামলা করে দুদক। এর পাঁচ মাস পর জামিনে বেরিয়ে আসেন নাজমুল হক।

এরপর একই বছরের ১৮ অক্টোবর আদালতে অভিযোপত্র দাখিল করেন তদন্ত কর্মকর্তা ও দুদকের সহকারী পরিচালক আবদুল ওয়াদুদ।

ওই মামলায় নাজমুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ, মেসার্স সৈয়দ শিপিং লাইনসের এমভি প্রিন্স অব সোহাগ নামীয় যাত্রীবাহী নৌযানের রিসিভ নকশা অনুমোদন এবং নতুন নৌযানের নামকরণের অনাপত্তিপত্রের জন্য নাজমুল হকের কাছে গেলে তিনি ১৫ লাখ টাকা ঘুষ দাবি করেন। সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি বিষয়টি দুদককে অবহিত করেন। এরপর কমিশনের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক নাসিম আনোয়ারে নেতৃত্বে ঘুষের টাকার কিস্তি বাবদ পাঁচ লাখ টাকাসহ তিনি গ্রেপ্তার হন।

ঢাকা/এম এ রহমান/জেডআর

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়