Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     সোমবার   ১৭ মে ২০২১ ||  জ্যৈষ্ঠ ৩ ১৪২৮ ||  ০৩ শাওয়াল ১৪৪২

১৩ ভাষায় বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ

মেসবাহ য়াযাদ || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১২:০৩, ৭ মার্চ ২০২১   আপডেট: ১২:১৪, ৭ মার্চ ২০২১

৭ মার্চ, ১৯৭১ সাল।  তৎকালীন রেসকোর্স ময়দানে (বর্তমান সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) বিশাল জনসমুদ্র। বঙ্গবন্ধ‌ু শেখ মুজিবুর রহমান সে সময় পাকিস্তানের সংখ্যাগরিষ্ঠ দলের নির্বাচিত নেতা। শুধু তাই নয়, পূর্ব পাকিস্তানের একমাত্র নেতাও ছিলেন তিনি।

১৯৭০ সালের সাধারণ নির্বাচনে ১৬৯ আসনের মধ্যে ১৬৭টি আসনে জয়লাভ করে আওয়ামী লীগ। সে সময় আওয়ামী লীগ, বাংলাদেশ, স্বাধীনতা, বঙ্গবন্ধু ছিল সমার্থক শব্দ। বঙ্গবন্ধু এদেশের মানুষের মুক্তি আর স্বাধীনতা চেয়েছিলেন বলেই ৭ মার্চের তার ঐতিহাসিক ভাষণে বলেছেন, ‘এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম, স্বাধীনতার সংগ্রাম।’

হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালির বজ্রকণ্ঠে দেওয়া ১৮ মিনিটের ঐতিহাসিক সেই ভাষণ সাড়ে সাত কোটি মানুষের দাবিকে এক করে দিয়েছিল।  মূলত সেদিন বঙ্গবন্ধুর দেওয়া ভাষণই মুক্তিযুদ্ধের প্রকাশ্য আহ্বান হিসেবে বিবেচিত হয়। 

তখন বঙ্গবন্ধুর ডাকে সাড়া দিয়ে লাখো মানুষ মুক্তিসংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়েন। রেসকোর্স ময়দানে দেওয়া বঙ্গবন্ধুর সেই ভাষণ আজও বাঙালি জাতির রক্তে বাজে।  সেদিন তার বজ্রকণ্ঠে উচ্চারিত ‘এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম’- ছিলো পাকিস্তানি শোষকদের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে যুদ্ধ ঘোষণার আহ্বান।

জাতির জনকের সে ভাষণ ছিল বাংলায়। কালজয়ী সেই ভাষণটি বিশ্ববাসীকে জানানোর লক্ষ্য নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে কাজ করে যাচ্ছেন এক তরুণ।  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়াশোনা এবং পরবর্তী সময়ে নিজের বিভাগে শিক্ষক হিসেবে যোগ দেওয়া সহকারী অধ্যাপক জি. মাওলা।

বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণকে বাংলা ছাড়াও বিশ্বের ১২টি ভাষায় অনূদিত করে Poet of Politics (রাজনীতির কবি) নামে বিশ্ব দরবারে পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে কাজ করছেন এই লেখক-শিক্ষক। 

তিনি রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘আমি বঙ্গবন্ধুর অনুপম ব্যক্তিত্বে অনুপ্রাণিত হয়ে তার সংক্ষিপ্ত জীবন-পরিচয় এবং ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের বহু ভাষায় ভাষান্তর করার তাগিদ অনুভব করি। ৭ মার্চের ভাষণের তাৎপর্য বিশ্বের প্রতিটি জাতি-গোষ্ঠীর কাছে পৌঁছে দেওয়াই আমার স্বপ্ন।’

তিনি আরও বলেন, ‘এ প্রচেষ্টার মূল লক্ষ্য হচ্ছে বঙ্গবন্ধুর জীবন ও তার চিন্তা-চেতনা, দর্শন এবং দূরদৃষ্টি বিশ্বের মানুষ যেন নিজস্ব ভাষায় অনুধাবন করতে পারে। আমার বিশ্বাস, এই প্রকাশনা পৃথিবীর বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে বঙ্গবন্ধুর জীবন-পরিচয় ও তার ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণ পাঠ্যসূচিতে অন্তর্ভুক্ত করতে উৎসাহী করবে।’

ভবিষ্যতেও এ ধরনের কাজ করার ইচ্ছে রয়েছে বলে জানান জি. মাওলা। এছাড়া আরও  তিনটি বিষয় নিয়ে, বিভিন্ন ভাষায় গ্রন্থ প্রকাশ করে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দেওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন তিনি। তার পরবর্তী প্রকাশনার বিষয় হচ্ছে- Leader of Hope (From the Core of People's Heart), Contribution of Foreigners (Behind the Independence of Bangladesh), History of Martyrs (Behind the Language Movement).

বাংলা, ইংরেজি, হিন্দি, রাশিয়ান, আরবি, ফ্রেঞ্চ, চাইনিজ, ইতালিয়ান, জাপানিজ, স্প্যানিশ, পার্সিয়ান, কোরিয়ান এবং উর্দু-  এই ১২ ভাষায় অনূদিত Poet of Politics (রাজনীতির কবি) গ্রন্থটি প্রথম প্রকাশিত হয় ২০১৩ সালের ৭ মার্চ।

বহুভাষায় অনূদিত Poet of Politics (রাজনীতির কবি) গ্রন্থটি শুধু বঙ্গবন্ধুর সংক্ষিপ্ত জীবনী নয়, বরং স্বাধীনতাযুদ্ধের রক্তাক্ত ইতিহাসেরও এক অনন্য দলিল। প্রকাশ করেছে, গ্রিন পাবলিশার্স। প্রচ্ছদ করেছেন শামসুদ্দোহা।

মেসবাহ/সাইফ

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়