ঢাকা     সোমবার   ২৮ নভেম্বর ২০২২ ||  অগ্রহায়ণ ১৪ ১৪২৯ ||  ০৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪১৪

রাইজিংবিডির প্রতিবেদন পেলো ‘টিআইবি অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা পুরস্কার’

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:১৭, ৯ ডিসেম্বর ২০২১   আপডেট: ১৮:২৬, ৯ ডিসেম্বর ২০২১
রাইজিংবিডির প্রতিবেদন পেলো ‘টিআইবি অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা পুরস্কার’

রাইজিংবিডিতে প্রতিবেদন লিখে ‘টিআইবি অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা পুরস্কার ২০২১’ পেয়েছেন রফিকুল ইসলাম মন্টু

বাংলাদেশের শীর্ষ স্থানীয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল রাইজিংবিডি ডটকমে উপকূলীয় বেড়িবাঁধ বিষয়ে পাঁচ পর্বের ধারাবাহিক সরেজমিন অনুসন্ধান প্রতিবেদন এ বছর ‘টিআইবি অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা পুরস্কার’ পেয়েছে। উপকূল অনুসন্ধানী সাংবাদিক রফিকুল ইসলাম মন্টু মাঠ ঘুরে ঘুরে এসব প্রতিবেদন তৈরি করেছেন।

বৃহস্পতিবার (৯ ডিসেম্বর) আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবসে রাজধানীর ধানমন্ডিতে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) উদয়পদ্ম কনফারেন্স রুমে অনুষ্ঠানিকভাবে এ পুরস্কার বিতরণ করা হয়। টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান এবং প্রতিযোগিতার বিচারকমণ্ডলীর সদস্যরা বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

উপকূলের বেড়িবাঁধ নিয়ে রাইজিংবিডিতে প্রকাশিত পাঁচ পর্বের প্রতিবেদনগুলো হলো-

প্রথম পর্ব

বাঁধের ফাঁদে উপকূলজীবন

‘সিডর আইলা আম্পান ঠেকানোর সামর্থ্য উপকূলীয় বেড়িবাঁধের নেই’

দ্বিতীয় পর্ব

সর্বনাশের ষোলকলা চিংড়িতে

তৃতীয় পর্ব

বাঁধভাঙা আশ্বাসে শুধুই দীর্ঘশ্বাস

‘নদীর প্রস্থ কমিয়ে নিয়মিত ড্রেজিং করবো’

চতুর্থ পর্ব

চিংড়ি চাষ থেকে মুক্তির জন্য রক্তক্ষয়

ঝড়-জলোচ্ছ্বাসে আরো ৪ বিপর্যয়

পঞ্চম পর্ব

বাঁধের মালিকানা দিতে হবে জনগণকে

‘অল্প টাকায় বাঁধের উন্নয়নে কাজ করা কঠিন’

পুরস্কার দেওয়ার আগে ‘বাংলাদেশে অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা: গণমাধ্যমের প্রাতিষ্ঠানিক চ্যালেঞ্জ’ শীর্ষক মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন টিআইবি’র আইটরিচ অ্যান্ড কমিউনিকেশন বিভাগের অ্যাসিসট্যান্ট কো-অর্ডিনেটর জাফর সাদিক।

এতে তিনি উল্লেখ করেন, বাংলাদেশে সাংবাদিকতা শুধু চ্যালেঞ্জিং পেশাই নয়, বরং এটি আত্মোৎসর্গমূলক হয়ে দাঁড়িয়েছে। এ দেশের সাংবাদিকদের পেশাগত নানা জটিলতা, চ্যালেঞ্জ, অসন্তুষ্টির পাশাপাশি গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠানগুলোর বাণিজ্যিকীকরণ, প্রাতিষ্ঠানিক সুশাসনের ঘাটতি এবং পেশাদারিত্বের অভাব সাংবাদিকতাকে আরও কঠিন করে তুলেছে।

এছাড়া, গণমাধ্যম নিয়ন্ত্রণমূলক নানা আইন ও নীতি এবং সরকারি-বেসরকারি নানা প্রতিবন্ধকতা ছাপিয়ে সাংবাদিকতা, বিশেষ করে অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা চ্যালেঞ্জিং হয়ে উঠেছে। দেশ যখন উন্নয়নশীল রাষ্ট্রের কাতারে শামিল হতে যাচ্ছে, সরকারি ভাষ্যে চারিদিকে অবকাঠামোগত উন্নয়নের মহাবয়ান চর্চিত হচ্ছে, তখন ‘গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভ’ গণমাধ্যম তথা সাংবাদিকদের এমন দৈন্য দেশের সার্বিক উন্নয়ন ও গণতান্ত্রিক যাত্রাকে অসম্ভব যাত্রায় পরিণত করার যুক্তি তৈরি করছে।

টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, ‘জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বলেছিলেন, আমি আইন করব, অন্যায় করলে কাউকেই ছাড় দেব না। দুর্নীতি রোধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। সবার অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে। আমরা সেটা নিশ্চিত করতে চাই।’

তিনি বলেন, ‘তরুণদের উৎসাহিত করতে আমাদের এ আয়োজন। দুর্নীতি রোধে মিডিয়ার ভূমিকা জরুরি। আমরা তাদের উৎসাহিত করতে অনুসন্ধানী সাংবাদিকতার ওপর পুরস্কার দিই। আমাদের সকলের প্রচেষ্টা থাকবে। তবে, দুর্নীতি প্রতিরোধের বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে সরকারকে।’

ইয়ামিন/রফিক

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়