ঢাকা, সোমবার, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

প্রিয়ার স্বামী দুদকের উপ-পরিচালক

এসকে রেজা পারভেজ : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৭-২০ ১০:২৮:১৯ এএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৭-২০ ১০:৩২:২৩ এএম

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে প্রিয়া সাহা নামে একজন নারী নিজেকে বাংলাদেশি পরিচয় দিয়ে ‘সাম্প্রদায়িক হামলা’র অভিযোগ করেছেন।

তার ওই অভিযোগের পর নড়েচড়ে বসেছেন সংশ্লিষ্টরা। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বাংলাদেশের বিরুদ্ধে বদনাম করা এই প্রিয়া সাহা কে তা নিয়ে খুঁজে চলেছেন অনেকে।

গত ১৬ জুলাই সাম্প্রদায়িক নিপীড়নের শিকার বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিদের সঙ্গে হোয়াইট হাউজে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প কথা বলেন। সেখানে বাংলাদেশে সংখ্যালঘুদের ওপর নিপীড়ন করা হচ্ছে বলে ট্রাম্পের কাছে অভিযোগ করেন প্রিয়া।

প্রিয়া সাহার ওই বক্তব্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পর দেশের মানুষের মধ্যে ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে। অনেকে এই নারীর শাস্তি দাবি করেছেন।

জানা যায়, প্রিয়ার গ্রামের বাড়ি পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলার চরবানিরী গ্রামে। তার স্বামীর নাম মলয় সাহা। তিনি দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) উপ-পরিচালক।

তাদের দুই মেয়ে প্রজ্ঞা পারমিতা সাহা ও ঐশ্বর্য লক্ষ্মী সাহা যুক্তরাষ্ট্রে পড়াশুনা করেন। কিছুদিন আগে প্রিয়া সাহা আমেরিকায় যান। প্রিয়া সাহা মহিলা ঐক্য পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। এখন বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক।

তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র ইউনিয়ন করতেন। থাকতেন রোকেয়া হলে। এখন ‘শাড়ি’ নামের একটি এনজিও চালান প্রিয়া। নেতিবাচক কর্মকাণ্ডের জন্য ২০১৮ সালে তাকে মহিলা ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদকের পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়।

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/২০ জুলাই ২০১৯/রেজা/ইভা

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন