ঢাকা, শুক্রবার, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

‘বয়ঃসন্ধিকালে সন্তানকে বন্ধু ভাবুন’

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১২-০৩ ৮:৫২:৩১ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১২-০৩ ৮:৫৯:১৭ পিএম

তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান বলেছেন, ‘বয়ঃসন্ধিকালে সন্তানকে বন্ধু ভাবুন, সন্তানের সাথে উন্মুক্ত আলোচনা করুন, তাদের শারীরিক, মানসিক স্বাস্থ্য পরিবর্তনের বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করুন।’

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে ‘সিরাক বাংলাদেশ আয়োজিত ‘ইউথ ফ্রেন্ডলি সার্ভিসেস রিপোর্টিং অ্যান্ড ভিডিও কম্পিটিশন-২০১৯ অ্যাওয়ার্ড সিরিমনি’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘মাদকের নেশা থেকে শুরু করে ধর্ষণ, সাইবার ক্রাইম কিংবা জঙ্গিবাদের মতো অপরাধমূলক কাজে যারা জড়িয়ে পড়ে, তাদের বেশির ভাগের বয়সই টিন-এজের মধ্যে বা তার কিছু বেশি৷ বর্তমান সময়ে রীতিমতো আতঙ্কের ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে৷ কিশোর-কিশোরীদের নিয়ে করা বিভিন্ন সমীক্ষা থেকেও জানা যায়, বয়ঃসন্ধিকালে হরমোনের পরিবর্তনের কারণে ছেলে-মেয়েদের মাথা এতটাই এলোমেলো থাকে যে, তখন নাকি ওদের অনেকেরই মন চায় ‘ঝুঁকিপূর্ণ' কিছু একটা করতে৷’

‘একজন উঠতি বয়সের মানুষের এই ঝুঁকিপূর্ণ এবং গুরুত্বপূর্ণ সময়টিতে সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন তার মা-বাবাকে, পরিবারকে৷ পারিবারিক বন্ধন হচ্ছে সবচেয়ে বড় বন্ধন। তাই বয়ঃসন্ধিকালে সন্তানকে বন্ধু ভাবুন, তাদের শারীরিক, মানসিক স্বাস্থ্য পরিবর্তনের বিষয়গুলি নিয়ে উন্মুক্ত আলোচনা করুন’, বলেছেন মুরাদ হাসান।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘বয়ঃসন্ধিকালীন ছেলে-মেয়েদের স্বাস্থ্যসেবা নিয়ে রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা সরকার অনেক কাজ করছেন। বয়ঃসন্ধিকালীন স্বাস্থ্যসেবার অধিকার নিশ্চিত করতে প্রচারণা, সরকারি নীতিতে এ বিষয়কে অন্তর্ভুক্ত করে তার বাস্তবায়ন, উন্নততর সেবা প্রদানের ব্যবস্থা এবং কমিউনিটির ক্ষমতায়নের মাধ্যমে তাদের জন্য কাজ করছে বর্তমান সরকার।’

তিনি আরও বলেন, ‘বয়ঃসন্ধিকালের জন্য সহায়ক স্বাস্থ্য সেবা এবং জেলায় জেলায় সরকারি স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্রে কাউন্সেলিংয়ের ব্যবস্থা আছে। এ বিষয়ে বাংলাদেশ সরকারের কৈশোরকালীন স্বাস্থ্য নীতিতে তাদের যৌন ও প্রজনন স্বাস্থ্য, পুষ্টি, তাদের প্রতি সহিংসতা রোধ এবং কিশোরী মায়েদের স্বাস্থ্যের ওপর গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।’

কৈশোরবান্ধব স্বাস্থ্য সেবা এ সংক্রান্ত সার্বিক কার্যক্রমের একটি অংশে পুষ্টি, এইচআইভি, পয়ঃনিষ্কাশন, ঋতুকালীন পরিচ্ছন্নতা, জীবন দক্ষতার ওপর ভিত্তি করে শিক্ষা এবং গণমাধ্যমে অংশগ্রহণের মতো বিষয়ও রয়েছে। প্রতিবন্ধী কিশোর-কিশোরীরাও যাতে এসব সেবা পায় সে বিষয়টিও নিশ্চিত করেছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকার বলে জানান তিনি।

তিনি বলেন, ‘সরকারের তথ্য ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে ব্যাপক কাজ করছে। আগামী উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয় নিয়ে সরকার তরুণ প্রজন্মের জন্য বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।’

অনুষ্ঠানে বয়ঃসন্ধিকালীন স্বাস্থ্য নিয়ে বিভিন্ন মিডিয়ার প্রচারিত সংবাদ দেখানো হয়। এসময় বক্তব্য রাখেন জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিনসহ আরও অনেকে।


ঢাকা/আসাদ/মাহি

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন