ঢাকা     বুধবার   ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||  মাঘ ১৯ ১৪২৯

ল্যাম্বরগিনির আদলে গাড়ি বানিয়ে সাড়া ফেললেন আজিজ

মাহমুদুল হাসান মিলন, ময়মনসিংহ  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১১:৪৫, ১৭ জানুয়ারি ২০২৩   আপডেট: ১১:৪৭, ১৭ জানুয়ারি ২০২৩
ল্যাম্বরগিনির আদলে গাড়ি বানিয়ে সাড়া ফেললেন আজিজ

নিজের তৈরি স্বপ্নের গাড়ির সঙ্গে মোটর মেকানিক আজিজ

বিশ্ববিখ্যাত ইতালিয়ান ব্রান্ড ‘ল্যাম্বরগিনি’ স্পোর্টস কার তৈরি করেছেন ময়মনসিংহের মোটর মেকানিক আব্দুল আজিজ। শখের বশে ইউটিউবে ভিডিও দেখে ‘ল্যাম্বরগিনি অ্যাভেন্টেডর এলপি-৭০০’ মডেলের মতো দেখতে হুবুহু স্পোর্টস কারটি তৈরি করে সবার মধ্যে সাড়া ফেলেছেন এই মোটর মেকানিক। 

সপ্তম শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশোনা করা আজিজের বাড়ি জামালপুর জেলার বকশিগঞ্জ উপজেলার নিলক্ষীয়া ইউনিয়নের জাকনীপুর গ্রামে।  তার বাবার নাম সোহরাব আলী। তিনি গত ২৫ বছর ধরে ময়মনসিংহ নগরীর মাসকান্দা এলাকার শাহাদাত মোটর ওয়ার্কশপে মেকানি হিসেবে কাজ করছেন। 

করোনার সময় গ্যারেজের কাজ কম থাকায় পুরাতন মডেলের একটি ‘টয়োটা স্টারলাইট’ গাড়ি কেনেন আজিজ। পরে মোবাইল ফোনে ইউটিউবে ভিডিও দেখে বিশ্বখ্যাত স্পোর্টস কার ‘ল্যাম্বরগিনি অ্যাভেন্টেডর এলপি-৭০০’ মডেলের গাড়ি তৈরির পরিকল্পনা করেন তিনি। ১৫ মাসের অক্লান্ত পরিশ্রম ও চেষ্টায় সফল হন তিনি। দুই সহকর্মীর সহায়তায় ১৫০০ সিসির  ল্যাম্বরগিনি স্পোর্টস কারের আদলে গাড়িটি তৈরি করে ফেলেন তিনি। 

বর্তমানে আজিজ ল্যাম্বরগিনির আদলে তৈরি গাড়িটি নিয়ে যেখানেই যান না কেন সেখানেই ভিড় করেন সাধারণ মানুষ।  তারা গাড়িটি ছুয়ে দেখেন এবং সেটির সঙ্গে সেলফি তুলতে ভুল করেন না। তাছাড়া গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখে অনেকই গাড়িটি একনজর দেখতে ভিড় করছেন শাহাদাত মিয়ার গ্যারেজে।

আজিজ বলেন, '২০২১ সালের শেষের দিকে টয়োটা স্টারলেট পুরোনো গাড়ি সংগ্রহ করি।  গাড়িটি কিনে এনে প্রথমে সম্পূর্ণ বডিটি আমি কেটে ফেলি। তারপর ল্যাম্বরগিনির আদলে বানানোর কাজ শুরু করি। এরপর ১৫ মাসের চেষ্টায় গাড়টি বাস্তবের রূপ পায়।’

তিনি আরও বলেন, “ ‘ল্যাম্বরগিনি’ না হলেও সেই আদলে তৈরী এই গাড়িটি গ্যাস বা অকটেনে ঘণ্টায় ১২০ কিলোমিটার গতিতে চলতে পারে। গাড়িটি তৈরিতে ১১ লাখ টাকা ব্যাংক লোনসহ মোট ১৫ লাখ টাকা খরচ হয়েছে।” 

আজিজ বলেন, ‘১০০ পার্সেন্ট মডিফাইড গাড়ি দেশে চালানোর অনুমতি নেই। তবে আমার স্বপ্ন ও সাধনার তৈরি এই গাড়িটি সরকার যেন চলাচলের অনুমতি দেয়।সেই দাবি আমি করছি।’

মাসুদ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়