Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ০২ মার্চ ২০২১ ||  ফাল্গুন ১৭ ১৪২৭ ||  ১৭ রজব ১৪৪২

৫০ হাজার মেট্রিক টন গম আমদানি করছে সরকার

কেএমএ হাসনাত || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:৪১, ১৮ জানুয়ারি ২০২১  
৫০ হাজার মেট্রিক টন গম আমদানি করছে সরকার

দেশের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত ও মজুদ বাড়াতে আন্তর্জাতিক দরপত্রের মাধ্যমে ৫০ হাজার মেট্রিক টন গম আমদানি করবে সরকার। এতে ব্যয় হবে ১৪৩ কোটি ৯০ লাখ ১৩ হাজার টাকা। 

গত ১৪ জানুয়ারি পর্যন্ত দৈনিক খাদ্যশস্য পরিস্থিতি প্রতিবেদন অনুসারে, চাল মজুদ আছে ৫ লাখ ৩৭ হাজার মেট্রিক টন এবং গম আছে ১ লাখ ৮৪ হাজার মেট্রিক টন।

সূত্র জানায়, ২০২০-২০২১ অর্থবছরে আন্তর্জাতিক উৎস থেকে ২ লাখ ৮০ হাজার মেট্রিক টন গম আমদানির জন্য বরাদ্দ রাখা হয়। সে অনুযায়ী গত ১৩ জানুয়ারি সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভায় ৫০ হাজার মেট্রিক টন গম কেনার প্রস্তাবে অনুমোদন দেওয়া হয়। এরই ধারাবাহিকতায় বাজেটে গম আমদানির নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে প্যাকেজ-২ এর আওতায় খাদ্য অধিদপ্তর গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর আন্তর্জাতিক দরপত্র আহ্বান করে। তিনটি প্রতিষ্ঠান দরপত্র দলিল সংগ্রহ করলেও শুধু সিঙ্গাপুরভিত্তিক মেসার্স অ্যাগ্রোকরপ ইন্টারন্যাশনাল প্রাইভেট লিমিটেড দরপত্র দাখিল করে।

সূত্র জানায়, দরপত্র মূল্যায়ন কমিটি প্রাপ্ত কোটেশন এবং বাজারদর যাচাই কমিটির দাখিল করা গমের প্রাক্কলিত দরের প্রতিবেদনের তথ্যের আলোকে দরপত্রে অংশ নেওয়া একক দরদাতা অ্যাগ্রোকরপ ইন্টারন্যাশনাল প্রাইভেট লিমিটেডকে গ্রহণযোগ্য দরদাতা ঘোষণা করে। দরদাতার উদ্বৃত দর—প্রতি মেট্রিক টন ৩৩৯.৩৯ মার্কিন ডলার, যা রাশিয়া, ইউক্রেন ও যুক্তরাষ্ট্রের উৎসের প্রতি মেট্রিক টন গমের শুল্কপূর্ব মূল্য যথাক্রমে ১৩.৩২, ১৪.৩২ ও ৯.৩২ ডলারের চেয়ে বেশি হওয়ায় দরপত্র মূল্যায়ন কমিটি গম রপ্তানিকারক অন্যান্য দেশের এফওবি মূল্য যাচাই করে। কমিটি এ বিষয়ে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে নিশ্চিত হয়, সাম্প্রতিক সময়ে গম রপ্তানিকারক সব দেশের এফওবি মূল্য ঊর্ধ্বমুখী।

সর্বনিম্ন দরদাতা আর্জেন্টিনা উৎসের গম সরবরাহ করবে মর্মে উল্লেখ করেছে। পিপিআর ২০০৮ এর বিধি ৯৮ এর উপবিধি ১৪ এবং বিধি ৯০ (সংযুক্তি-৩) মোতাবেক দরপত্র মূল্যায়ন কমিটি বৈশ্বিক করোনা পরিস্থিতি ও গমের আন্তর্জাতিক বাজারদরের ঊর্ধ্বগতির প্রেক্ষাপটে একক দরদাতা মেসার্স অ্যাগ্রোকরপ ইন্টারন্যাশনাল প্রাইভেট লিমিটেডের উদ্বৃত দর বাংলাদেশের বন্দর পর্যন্ত প্রতি মেট্রিক টন ৩৩৯.৩৯ মার্কিন ডলার (প্রতি কেজি ২৮ টাকা ৭৮ পয়সা) গ্রহণের জন্য সুপারিশ করে। সে হিসেবে ৫০ হাজার মেট্রিক টন গম আমদানি করতে ব্যয় হবে ১৪৩ কোটি ৯০ লাখ ১৩ হাজার টাকা।

এ সংক্রান্ত একটি ক্রয় প্রস্তাবে অনুমোদনের জন্য সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির পরবর্তী সভায় উপস্থাপন করা হবে বলে খাদ্য অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে।

ঢাকা/হাসনাত/রফিক

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়