ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৫ আষাঢ় ১৪২৭, ০৯ জুলাই ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

কাজলের পরিবারের পাশে তামিমরা

আব্দুল্লাহ এম রুবেল : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৫-২৯ ৯:২০:৩৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৫-৩০ ২:৫০:৪৭ পিএম

হঠাৎই না ফেরার দেশে পারি জমিয়েছেন খুলনা জেলা ক্রিকেট দলের অধিনায়ক কাজী রিয়াজুল ইসলাম কাজল। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে মাত্র ৩৪ বছর বয়সে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন এ ক্রিকেটার।

পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি ছিলেন কাজল। ক্রিকেট খেলার পাশাপাশি স্থানীয় একটি একাডেমীতে প্রশিক্ষণ করিয়েও দিন কাটাত তার। পরিবারে মা, স্ত্রী, চার বছরের কন্যা ও একজন বোন আছে। কাজলের আকস্মিক মৃত্যুতে অসহায় হয়ে পড়েছে তার পরিবার।

এমন অবস্থায় তার পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের খেলোয়াড়রা। জাতীয় দলের পেসার ও বাগেরহাটের ছেলে রুবেল হোসেন নিজের ফেসবুকে বিষয়টি জানিয়েছেন। পরে বিষয়টি রাইজিংবিডিকে জানিয়েছেন জাতীয় দলের আরেক ক্রিকেটার নুরুল হাসান সোহান। এছাড়া খুলনার ক্রিকেটাররাও তার পরিবারকে আর্থিক সহায়তা দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছেন।

রুবেল হোসেন ফেসবুকে লিখেছেন, ‘বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল, ক্রিকেটার কাজলের পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছে। এমন মহৎ কাজে আমাদের সবাইকে উদ্বুদ্ধ করেছেন অধিনায়ক তামিম ইকবাল। তার উদ্যোগেই মূলত আমাদের করোনা ভাইরাসের সময় গঠিত অসহায় দুস্থ, গরীব মানুষদের জন্য গঠিত তহবিল থেকে কাজলের পরিবারকে আর্থিক অনুদান দেওয়া হয়েছে।’

‘আপনারা জানেন, শ্বাসকষ্টের কারণে আকস্মিকভাবে মৃত্যুবরণ করেছেন খুলনার সুপরিচিত ক্রিকেটার কাজল। তার সঙ্গে আমার অনেক স্মৃতি রয়েছে। দীর্ঘদিন আমরা একসঙ্গে বাগেরহাট থেকে শুরু করে ঢাকা লিগে খেলেছি। কাজলের মৃত্যু নিয়ে আমার ফেসবুক পেজে একটি পোস্ট দিয়েছিলাম। তা দেখেই তামিম ভাই আমাকে ফোন দিয়েছিলেন। তামিম ভাই ফোন দিয়ে আমার কাছে কাজলের পরিবার সম্পর্কে খোঁজখবর নেওয়ার পর তাৎক্ষনিক ভাবে তাদের পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নেন। এরই প্রেক্ষিতে আজ কাজলের স্ত্রীর কাছে আমি আর্থিক সহায়তা পৌঁছে দিয়েছি। মানসিক ভাবে অনেক শান্তি লাগছে।’

এদিকে খুলনার ক্রিকেটার ফেসবুক গ্রুপ ক্রিকেটার্স খুলনায়ও কাজলের পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানানো হয়েছে। সেখানেও ক্রিকেটাররা একটি ফান্ড গঠন করে কাজলকে আর্থিক সহায়তা দিয়েছে।

খুলনা জেলা ক্রীড়া সংস্থার যুগ্ম সম্পাদক ও কাজলের একাডেমী বয়রা তরুণ সংঘ একাডেমীর সভাপতি শেখ হেমায়েত উল্লাহ জানান, ‘কাজলের পরিবারের পাশে দাঁড়ানো আমাদের নৈতিক দায়িত্ব। আমরা চেষ্টা করবো তার পরিবারে একটি স্থায়ী আর্থিক সমাধানের। এক্ষেত্রে তার স্ত্রী বা তার বোনকে একটি চাকরি দেয়া যায় কি না সে চেষ্টা করবো।’


ঢাকা/ইয়াসিন