Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৫ জুন ২০২১ ||  আষাঢ় ১ ১৪২৮ ||  ০৩ জিলক্বদ ১৪৪২

ক্যারিয়ারের ১০-১২ বছর উৎকণ্ঠায় কেটেছে শচীনের

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:২১, ১৬ মে ২০২১  
ক্যারিয়ারের ১০-১২ বছর উৎকণ্ঠায় কেটেছে শচীনের

করোনা মহামারিতে লম্বা সময় ধরে জৈব সুরক্ষা বলয়ে থাকতে হচ্ছে ক্রিকেটারদের। এটা যে মানসিক স্বাস্থ্যের ওপর প্রভাব ফেলছে তা স্বীকার করছেন অনেকে। এই সমস্যা কাটিয়ে উঠতে নিজের জীবনের অভিজ্ঞতা তুলে ধরলেন শচীন টেন্ডুলকার। মাস্টার ব্লাস্টার অকপটে স্বীকার করলেন, ২৪ বছরের ক্রিকেট ক্যারিয়ারে উদ্বেগের সঙ্গে তার লড়াইটা ছিল দীর্ঘ সময় ধরে।

এক অনুষ্ঠানে ভারতীয় ক্রিকেটের অগণিত রেকর্ডের মালিক বলেছেন, ‘সময় গড়ানোর সঙ্গে আমি বুঝতে পারলাম যে খেলার জন্য শারীরিক প্রস্তুতির পাশাপাশি আপনার নিজেকে মানসিকভাবে প্রস্তুত করতে হবে। মাঠে ঢোকার অনেক আগেই আমার মনের মধ্যে ম্যাচ শুরু হয়ে যেতো। উৎকণ্ঠার মাত্রা থাকতো চরমে।’

কত রাত যে নির্ঘুম কেটেছে সেটাও জানালেন শচীন, ’১০-১২ বছর আমি উৎকণ্ঠায় কাটিয়েছি, ম্যাচের আগে বহু রাত ঘুম হয়নি। পরে আমি বুঝতে শুরু করলাম, যে এটা খেলারই একটা অংশ। তারপর আমি মনকে বুঝালাম যে আমার রাতে ঘুম হবেই না। তখন আমার মন শান্ত রাখতে কিছু কাজ শুরু করলাম।’

ভারতীয় লিটল মাস্টারের সেই ‘কিছু কাজের’ তালিকায় রয়েছে শ্যাডো ব্যাটিং, টিভি দেখা ও সকাল সকাল ভিডিও গেম খেলা। এমনকি ম্যাচের আগে নিজেকে প্রস্তুত করতে সকালের চা-টাও নিজে বানিয়ে খেতেন। ২০১৩ সালে ২০০তম টেস্ট খেলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানানো এই ব্যাটিং গ্রেট মানসিক উদ্বেগ কাটাতে কিছু পরামর্শও দিলেন।

‘যখন কোনও ইনজুরি হয়, তখন ফিজিও ও চিকিৎসকরা পরীক্ষার পর জানায় আপনার সমস্যা কী। মানসিক স্বাস্থ্যের ক্ষেত্রেও একই ব্যাপার। চড়াই-উতরাই যে কারও জন্য স্বাভাবিক এবং যখন খারাপ সময় যায় তখন আপনার আশেপাশে লোকের প্রয়োজন হয়। মানিয়ে নেওয়াটাই এখানে মূল বিষয়। যখন আপনি মানিয়ে নিবেন, তখনই সমাধান খোঁজার চেষ্টা শুরু হয়ে যাবে।’

ঢাকা/ফাহিম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়