ঢাকা     রোববার   ২২ মে ২০২২ ||  জ্যৈষ্ঠ ৮ ১৪২৯ ||  ২০ শাওয়াল ১৪৪৩

সেরা অধিনায়কদের একজন: কোহলিকে বিসিসিআইর শ্রদ্ধা

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৩:২১, ১৬ জানুয়ারি ২০২২   আপডেট: ১৩:২৩, ১৬ জানুয়ারি ২০২২
সেরা অধিনায়কদের একজন: কোহলিকে বিসিসিআইর শ্রদ্ধা

‘সেরা অধিনায়কদের একজন’ এবং ‘এক প্রজন্মে একবারই’ আসা ক্রিকেটার- টেস্ট অধিনায়কত্ব ছাড়ার ঘোষণা দেওয়ার পর বিরাট কোহলিকে শ্রদ্ধা জানিয়ে এসব বলেছে ভারতীয় ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ বোর্ড (বিসিসিআই)। দেশটির সর্বোচ্চ ক্রিকেট সংস্থা তার এই ব্যক্তিগত সিদ্ধান্তকে সম্মান জানিয়েছে।

ভারতের সবচেয়ে সফল টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে সাত বছরের অধ্যায়ে ইতি টানেন দক্ষিণ আফ্রিকায় ২-১ এ সিরিজ হারের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে। ৬৮ টেস্টে নেতৃত্ব দিয়ে ৪০ ম্যাচ জেতার রেকর্ড তার। বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলি এক বিবৃতি দিয়েছেন, ‘ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক হিসেবে তার বিশাল অবদানের জন্য আমি ব্যক্তিগতভাবে বিরাটকে ধন্যবাদ জানাই। তার নেতৃত্বাধীন ভারতীয় ক্রিকেট দল সব ফরম্যাটের খেলায় দ্রুত উন্নতি সাধন করেছে। তার এই সিদ্ধান্ত একান্তই ব্যক্তিগত এবং বিসিসিআই তার সিদ্ধান্তকে সমর্থন করে। এই দলের খুব গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হিসেবে সে খেলবে এবং নতুন অধিনায়কের অধীনে ব্যাট হাতে অবদান রেখে এই দলকে নতুন উচ্চতায় নিয়ে যাবে।’

বিসিসিআইর সঙ্গে দ্বন্দ্বের সম্পর্ক সম্প্রতি ছিল সবচেয়ে আলোচিত। গত সেপ্টেম্বরে টি-টোয়েন্টির নেতৃত্ব ছাড়ার ঘোষণা দেন, পরে বরখাস্ত হন ওয়ানডে অধিনায়ক হিসেবে। সৌরভ জানান, কোহলিকে টি-টোয়েন্টির নেতৃত্ব না ছাড়তে অনুরোধ করেছিলেন তিনি। কিন্তু শোনেননি। আর বোর্ড সীমিত ওভারের দুই ফরম্যাটে আলাদা অধিনায়ক রাখার পক্ষে নেই।

বিসিসিআই সেক্রেটারি জয় শাহ বলেছেন, ‘বিরাট কোহলি ভারতীয় ক্রিকেট দলের সর্বকালের সেরা অধিনায়কদের একজন। একজন নেতা হিসেবে দলে তার রেকর্ড ও অবদান দ্বিতীয় কারো নেই। ৪০ টেস্টে জয়ই প্রমাণ করে দুর্দান্তভাবে দলকে নেতৃত্ব দিয়েছে। ভবিষ্যতের জন্য অনেক শুভকামনা জানাই আমরা এবং আশা করব ভারতীয় ক্রিকেট দলের জন্য মাটে স্মরণীয় অবদান রাখবে।’

ঘরের মাঠে অধিনায়ক হিসেবে কোহলির অবদান অনন্য। ৩১ টেস্টে জয় ২৪টি, হার মাত্র দুটিতে। বোর্ডের ভাইস প্রেসিডেন্ট রাজিব শুক্লা বলেছেন, ‘বিরাটের মতো ক্রিকেটার এক প্রজন্মে একবারই আসে এভং তাকে নেতা হিসেবে পাওয়া ভারতীয় ক্রিকেটের জন্য সৌভাগ্যের ব্যাপার। অনেক ভালোবাসা ও আগ্রাসন নিয়ে সে নেতৃত্ব দিয়েছে দলকে এবং দেশে ও বিদেশে ভারতের অনেক স্মরণীয় জয়ের অংশীদার ছিল। সামনের ক্যারিয়ারের জন্য তাকে শুভকামনা জানাই।’

ঢাকা/ফাহিম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়