ঢাকা, সোমবার, ১৩ চৈত্র ১৪২৩, ২৭ মার্চ ২০১৭
Risingbd
মার্চ
সর্বশেষ:

বেশি ঘুমালে, বেশি সুবিধা (প্রথম পর্ব)

শাহিদুল ইসলাম : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০১-১২ ১:২৯:২৪ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০১-১৫ ১১:৫৫:৩৮ এএম
প্রতীকী ছবি

শাহিদুল ইসলাম : ব্যস্ত জীবনে অনেকেই প্রয়োজনের তুলনায় কম ঘুমিয়ে থাকেন। রাত জেগে কাজ করা, রাত জেগে টিভি দেখা কিংবা ইন্টারনেট ব্রাউজিংয়ে এখন অনেকেই অভ্যস্ত। ফলে পর্যাপ্ত পরিমান ঘুম দৈনন্দিন জীবনে প্রতিদিন হয়ে ওঠে না।

অপর্যাপ্ত ঘুমিয়ে অনেকে যে জীবনযাপন করেন, তার তুলনায় বেশি ঘুমালে জীবনযাপনে মিলবে আরো বেশি সুবিধা। পর্যাপ্ত ঘুমানোর ১৮ সুবিধা নিয়ে দুই পর্বের প্রতিবেদনের আজ প্রথম পর্বে ৯টি সুবিধা তুলে ধরা হল।

সুখী রাখে

রাতে পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুম সারা দিনের কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি করে। গবেষকরা ৯০৯ জন কর্মজীবী মহিলার ওপর পরিচালিত এক গবেষণার ফলাফলে জানিয়েছেন, যারা রাতে পর্যাপ্ত ঘুমিয়েছেন তারা সারাদিন অনেক বেশি প্রাণবন্ত ছিলেন। অপরিমিত ঘুম, মেজাজের ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। পর্যাপ্ত ঘুম, ব্যস্ত কর্মদিনেও মন প্রফুল্ল রেখে সুখী করে।

যৌন জীবনের উন্নতি ঘটায় 

কামশক্তি কমে যায় পর্যাপ্ত ঘুমের অভাবে। ইরেক্টিল ডিসফাংসন এর মতো ভয়ানক যৌন সমস্যা তৈরি করে। ঘুম নিজে বলবর্ধক হিসেবে কাজ করে। শরীরের টেসটোসটের মাত্রা বৃদ্ধি করে, যা নারী এবং পুরুষ উভয়ের যৌনক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়। সুতরাং পর্যাপ্ত ঘুম যে আপনাকে ঠিকঠাক রাখতে সাহায্য করবে শুধু তা নয়, পাশাপাশি যৌন জীবনও ঠিক রাখবে।

আরো সহজে পেশী গঠনে সহায়তা করে

ফিটনেস ম্যাগাজিন এবং ফোরামগুলো সবসময় ঘুমের গুরুত্বের ওপর যে আলোচনা করে থাকে, তার যুক্তিসঙ্গত কারণ রয়েছে। আর তা হচ্ছে, দুর্বল ঘুমের জীবনযাপন নিয়ে মাসল (পেশী) গঠন করা যাবে না।

আপনি যখন জাগ্রত থাকেন তখন শরীরের কোষ ও টিস্যুর যে ক্ষতিগ্রস্ততা, তার অধিকাংশের মেরামত হয়ে রাতে। তাই অপর্যাপ্ত ঘুম পেশীর ক্ষয় বাড়িয়ে থাকে।

স্ট্রোকের ঝুঁকি কমায়

নিদ্রাজনিত সমস্যায় যারা ভোগেন তাদের স্ট্রোকের ঝুঁকি অনেক বেশি৷ গবেষণা দেখা যায়, যারা রাতে ৫ ঘন্টা বা তার চেয়ে কম ঘুমায় তাদের ৪৫ শতাংশ হৃদ রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভবনা থাকে। এছাড়া রাতে যারা কম ঘুমায় তাদের উচ্চ রক্তচাপের প্রবল সম্ভবনা থাকে। যারা রাতে সাড়ে ৩ ঘণ্টা বা তার চেয়ে কম ঘুমায় তাদের রক্তচাপের মাত্রা অন্যদের তুলনায় ব্যাপক তারতম্য লক্ষ্য করা যায়।


আর্থিক সিদ্ধান্ত নিতে সহায়তা করে

পর্যাপ্ত ঘুম মানসিক স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী। বিশেষ করে অর্থনৈতিক বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবার ক্ষেত্রে ভালো নিয়ামক হিসেবে কাজ করে। গবেষণায় দেখা গেছে, যখন কোনো কর্মী যখন ক্লান্ত হয়ে পড়ে তখন সে ঘন ঘন আর্থিক সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে এবং এর ফলে ঝুকিপূর্ণ প্রকল্প গ্রহণের সম্ভবনা বেড়ে যায়। গবেষকরা মতে, বড় ধরনের আর্থিক সিদ্ধান্ত বা কেনাকাটার পূর্বের রাতে অবশ্যই ভালো করে ঘুমানো উচিত।

দুর্ঘটনা রোধ করে

রাতে ঠিকমতো ঘুম না হওয়ার পরিনতিতে ড্রাইভিংয়ের সময় তন্দ্রা,  মনোযোগের অভাব,  বিরক্তি কারণে মারাত্বক দূর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে। বেশিরভাগ সড়ক দূর্ঘটনা হয়ে থাকে, রাতে ঠিকমতো ঘুম না হওয়ার কারণে। এজন্য বলা হয়ে থাক, ঘুম ঘুম চোখে গাড়ি চালানো আর মদ্যপান করে গাড়ি চালানো একই কথা। নিরাপদ ড্রাইভিংয়ের জন্য পর্যাপ্ত ঘুম আবশ্যক।

ডায়বেটিসের ঝুঁকি কমায়

টাইপ ২ ডায়াবেটিস এমনই মারাত্বক একটি ব্যাধি, যা থেকে আপনার স্ট্রোক, অন্ধত্ব এমনকি শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ-প্রতঙ্গ চিরতরে বিকল হয়ে যেতে পারে। অনেকে ভুল ধারণা পোষণ করে যে শুধু শরীরে মেদ বৃদ্ধিই ডায়বেটিসের কারণ। কিন্তু আপনি যতই চিকন স্বাস্থ্যের অধিকারী হোন না কেন, রাতে পর্যাপ্ত না ঘুমালে ডায়বেটিস হওয়ার সম্ভবনা আনেকাংশে বেড়ে যায়। একটি গবেষণার ফলাফলে বলা হয়েছে, যারা রাতে ছয় ঘণ্টার কম ঘুমান তাদের তাদের ডায়বেটিস আক্রান্ত হওয়ার সম্ভবনা রাতে আট ঘণ্টা ঘুমানো মানুষের তুলনায় ১.৭ শতাংশ বেড়ে যায়। অন্যদিকে যারা পাঁচ ঘণ্টার কম ঘুমান তাদের মধ্যে ডায়বেটিস আক্রান্ত হওয়ার হার ২.৫ শতাংশ বেশি।


দৃষ্টিশক্তি ভালো রাখে

পর্যাপ্ত ঘুম শুধু আমাদের দেহকে কর্মক্ষম রাখে না, পাশাপাশি দৃষ্টিশক্তি ভালো রাখতেও ঘুম বিশেষ ভূমিকা পালন করে। যত বেশি জেগে থাকবেন, দৃষ্টিশক্তি জনিত ভুল বেশি করবেন। অনিদ্রা আমাদের দৃষ্টিশক্তি দূর্বল করে দেয় এবং হ্যালুশিনেশনের মতো রোগের প্রকোপ বাড়ায়।

ক্যানসারের ঝুঁকি কমায়

একটি গবেষণায় দেখা গেছে, যারা রাত জেগে কাজ করে তারা মারাত্বক স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পড়েন। বিশেষ করে যারা নাইট শিফটে কাজ করেন, তাদের ক্লোন ও ব্রেস্ট ক্যানসারের ঝুঁকি অনেকাংশেই বেড়ে যায়। সুস্থ থাকলে পর্যাপ্ত পরিমান ঘুম জরুরি।

তথ্যসূত্র : বিজনেস ইনসাইডার




রাইজিংবিডি/ঢাকা/১২ জানুয়ারি ২০১৭/ফিরোজ

Walton Laptop