ঢাকা, রবিবার, ৭ কার্তিক ১৪২৪, ২২ অক্টোবর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

সপ্তমীর খাবার

ঝুমকি বসু : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৯-২৬ ১১:৫৩:০৮ এএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৯-২৬ ১২:২৫:৪০ পিএম
মোচার চপ

ঝুমকি বসু : সপ্তমীর দিন সাধারণ নিরামিষ ভোজের আয়োজন করা ঘরে ঘরে। তাই এ দিনের জন্য রইল কিছু নিরামিষ খাবারের রেসিপি।

পুরভরা কাঁকরোল
উপকরণ : ৫টি বড় কাঁকরোল, ১টা নারকেলের অর্ধেকটা কোরা, পোস্তদানা ২ চা-চামচ, সরিষা আধা চা-চামচ, বেসন ১০০ গ্রাম, কাঁচামরিচ ৪টা, চিনি সামান্য, লবণ স্বাদমতো, তেল ১ কাপ।

প্রণালি : কাঁকরোল মাঝখান থেকে লম্বালম্বিভাবে ২ ফালি করে কেটে নিন। এরপর সিদ্ধ করে ঠান্ডা করুন। তারপর ভেতরের শাঁস বের করে ফেলুন। নারকেল, সরিষা, পোস্তদানা এবং কাঁচামরিচ একসঙ্গে বেটে নিন। কড়াইয়ে সামান্য তেল দিয়ে মিশ্রণটা দিয়ে দিন। এরপর এতে লবণ ও চিনি মেশান। নাড়াচাড়া করে নামিয়ে নিন। এই পুরটা কাঁকরোলের সবগুলো খোলের ভেতর ভরে ফেলুন। একটি পাত্রে বেসন, লবণ এবং পানি দিয়ে গোলা তৈরি করুন। এই গোলায় পুরভরা কাঁকরোলগুলো চুবিয়ে গরম তেলে লাল করে ভেজে তুলুন।

সরিষা বেগুন
উপকরণ : বড় বেগুন ৫০০ গ্রাম, হলুদ গুঁড়া ১ চা-চামচ, মরিচ গুঁড়া ১ চা-চামচ, দই ১০০ গ্রাম, পানি আধা কাপ, সরিষা বাটা দেড় টেবিল চামচ, পাঁচফোড়ন এক চিমটি, কাঁচামরিচ ৪-৫টি, তেল ১ কাপ, লবণ স্বাদমতো, চিনি সামান্য।

প্রণালি : বেগুনগুলোকে বোঁটাসহ লম্বালম্বি ৪ ফালি করে কাটুন। সামান্য লবণ, হলুদ মাখিয়ে নিন। কড়াইয়ে ১ কাপ তেল দিয়ে বেগুনগুলো লাল করে ভেজে তেল ঝরিয়ে রাখুন। যে তেলে বেগুনগুলো ভাজবেন সেই তেল থেকে দুচামচ তেল কড়াইয়ে দিন। তেল গরম হলে পাঁচফোড়ন ও কাঁচামরিচ দিয়ে দেবেন। হলুদ ও মরিচ গুঁড়া দিয়ে একটু পানি দেবেন। ভালো করে কষান। দই ফেটিয়ে মেশান। আর একটু কষিয়ে বেগুনগুলো দিয়ে দিন। আঁচ কমিয়ে ৫-৭ মিনিট ঢেকে রাখুন। সরিষা বাটা দিয়ে মৃদু আঁচে ২ মিনিট ঢেকে রাখুন। নামিয়ে পরিবেশন করুন।

ছোলার ডাল
উপকরণ : ছোলার ডাল ২০০ গ্রাম, কাজুবাদাম ১ চা-চামচ, কিশমিশ ১ চা-চামচ, নারকেলের দুধ ১ কাপ, ঘি ১ টেবিল চামচ, তেজপাতা ২টা, টমেটো ১টা, জিরাবাটা ১ চা-চামচ, হলুদ গুঁড়া ১ চা-চামচ, আদা বাটা ১ চা-চামচ, শুকনা মরিচ গুঁড়া ১ চা-চামচ, শুকনা মরিচ ২টি, তেল ২ টেবিল চামচ, গরম মশলা বাটা ১ চা-চামচ, লবণ স্বাদমতো।
প্রণালি : ছোলার ডাল সিদ্ধ করে রাখুন। কড়াইয়ে তেল গরম হলে শুকনা মরিচ ও তেজপাতা ফোঁড়ন দিন। হলুদ গুঁড়া, মরিচ গুঁড়া, লবণ, আদা ও জিরাবাটা দিয়ে কষান। ডাল দিয়ে দিন। ফুটে উঠলে নারকেলের দুধ মেশান। ঘন হলে ঘি, কাজুবাদাম, কিশমিশ ও গরম মশলা বাটা দিয়ে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

মোচার চপ
উপকরণ : কলার মোচা ১টা, সিদ্ধ আলু ২-৩টা, কাঁচামরিচ কুচি ২-৩টি, আদাবাটা ১ চা-চামচ, হলুদ গুঁড়া আধা চা-চামচ, গরম মশলা গুঁড়া আধা চা-চামচ, ধনিয়া পাতা কুচি ১ আঁটি, নারকেল কোরা আধা কাপ, ঘি ১ চা-চামচ, ব্রেড ক্রাম্ব ১০০ গ্রাম, বেসন ১০০ গ্রাম, লবণ স্বাদমতো, চিনি সামান্য, তেল ভাজার জন্য পরিমাণমতো।

প্রণালি : মোচা পরিষ্কার করে কেটে কুচিয়ে পানিতে কিছুক্ষণ ভিজিয়ে রাখুন। এবার এটি সিদ্ধ করে নিন। সিদ্ধ হলে পানি ছেঁকে ফেলে দিন। কড়াইতে সামান্য তেল গরম করে মরিচকুচি, আদাবাটা, হলুদ গুঁড়া দিয়ে কষিয়ে নিন। কষানো হলে মোচা ও আলুসিদ্ধ দিয়ে নাড়ুন। শুকিয়ে এলে ঘি, ধনিয়াপাতা কুচি, গরম মশলা গুঁড়া, নারকেল কোরা দিয়ে নেড়ে নামিয়ে নিন। ঠান্ডা হলে চপের মতো আকার বানিয়ে বেসনের গোলায় ডুবিয়ে ব্রেড ক্রাম্ব মাখিয়ে তেলে লাল করে ভেজে তুলুন।

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭/ফিরোজ

Walton
 
   
Marcel