ঢাকা, বুধবার, ১২ আষাঢ় ১৪২৬, ২৬ জুন ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

স্বাস্থ্য লক্ষ্য : জুলাই থেকে ডিসেম্বর

এস এম গল্প ইকবাল : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০১-০২ ৭:৪৮:৩৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০১-০২ ৭:৪৮:৩৮ পিএম
প্রতীকী ছবি
Walton AC 10% Discount

এস এম গল্প ইকবাল : এক মাসেই সকল স্বাস্থ্য প্রতিজ্ঞা পূরণ করা খুবই কঠিন, এমনকি তা অসম্ভবও হতে পারে। যদি আপনি ছোট ছোট পদক্ষেপ অনুযায়ী বছরের শুরু থেকে শেষের দিকে যান, তাহলে সকল স্বাস্থ্য লক্ষ্য পূরণ হতে পারে।

বছরের ১২ মাসের জন্য আপনি ১২টি স্বাস্থ্য প্রতিজ্ঞা করতে পারেন। এক মাসে একটি করে প্রতিজ্ঞা বাস্তবায়ন করা অসম্ভব বা কঠিন কোনো কাজ নয়। ২০১৯ সালের ১২ মাসের জন্য ১২টি স্বাস্থ্য লক্ষ্য নিয়ে দুই পর্বের প্রতিবেদনের আজ থাকছে শেষ পর্ব।

জুলাই: খাবারের সঙ্গে স্বাস্থ্যসম্মত সম্পর্ক তৈরি করুন
অনেক লোকের স্বাস্থ্যকর খাবার সম্পর্কে ভালো কোনো ধারণা নেই- তারা বুঝতে পারে না যে, কোন খাবারটি স্বাস্থ্যকর কিংবা কোনটি অস্বাস্থ্যকর। খাবার সম্পর্কে অসচেতনতা বা অজ্ঞতা তাদেরকে ক্রনিক অসুস্থতা বিকাশের ঝুঁকিতে রাখে। আপনার জন্য কখন কোন খাবারটি ভালো তা সম্পর্কে জেনে রাখুন, প্রয়োজনে বিশেষজ্ঞের সাহায্য নিন। তদন্ত করে আপনার ডায়েট থেকে অস্বাস্থ্যকর খাবার দূর করুন ও স্বাস্থ্যকর খাবার অন্তর্ভুক্ত করুন। কোন খাবারটি শরীরের পক্ষে কাজ করছে জানা থাকলে স্বাস্থ্য লক্ষ্যার্জন সহজ হয়।

আগস্ট: ডাক্তারের অ্যাপয়েন্টমেন্ট নিন
বিভিন্ন ধরনের স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য আগস্ট মাসকে বেছে নিন। নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষা কোনো রোগ বিকশিত হতে থাকলে তা তাড়াতাড়ি শনাক্তকরণে সাহায্য করতে পারে, যার ফলে আপনি রোগ দমনে কার্যকরী পদক্ষেপ নিতে পারবেন। এই মাসে শারীরিক পরীক্ষা অথবা স্বাস্থ্য স্ক্রিনিংয়ের জন্য বিশেষভাবে উদ্যোগ নিন, যেমন- কোলনোস্কপি, প্যাপ স্মিয়ার ও ম্যামোগ্রাম।

সেপ্টেম্বর: বেশি করে গোটা শস্য খান
এ মাসে আপনি যত শস্য খাবেন, তার অর্ধেক যেন গোটা শস্য (হোল গ্রেন) হয়, বলেন ডায়েটিশিয়ান কালেইহ ম্যাকমোর্ডি। তিনি যোগ করেন, ‘গোটা শস্য হচ্ছে পুষ্টির গুরুত্বপূর্ণ উৎস- এটি হজম বৃদ্ধি করে, দীর্ঘক্ষণ পেট ভরা রাখতে সাহায্য করে এবং স্বাস্থ্যসম্মত ওজন বজায় রাখতে ভূমিকা রাখে। সাদা চালের পরিবর্তে বাদামী চাল, চিনিযুক্ত সিরিয়ালের পরিবর্তে ওটমিল ও সাদা পাউরুটির বদলে গম দিয়ে দিয়ে শুরু করুন।’ গোটা শস্য ভোজনের ফলে শরীরের উন্নত ও সহজ কার্যক্রম দেখে আপনি বিস্মিত হবেন।

অক্টোবর: ফ্লু শট নিন
এটি বছরের সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ লক্ষ্য নয়, কিন্তু ফ্লু সিজনের পূর্বে ফ্লু’র টিকা গ্রহণ হচ্ছে আপনার ইমিউন সিস্টেমকে উন্নত করার অন্যতম সর্বাধিক সহজ উপায়। কায়সার পারমানেন্তের ছোঁয়াচে রোগের গবেষক মাইকেল জ্যাকসন বলেন, ‘ফ্লু’র টিকা নেওয়ার সর্বোত্তম সময় হচ্ছে অক্টোবর। ফ্লু সিজন শুরু হওয়ার আগে ফ্লু শট নেওয়া ভালো, কারণ এই টিকাটি সম্পূর্ণ কার্যকর হতে দুই সপ্তাহ সময় নেয় এবং এটি সারাবছর কার্যকর থাকে, ফলে আপনি সকল সিজনে সুরক্ষিত থাকেন।’

নভেম্বর: মেডিটেশন করুন
মানসিক স্বাস্থ্য ঠিক রাখা একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। প্রতিদিন কয়েক মিনিটের মেডিটেশন আপনার মেজাজ ঠিক রাখতে ও জীবনে সুখের মাত্রা বৃদ্ধি করতে ভূমিকা রাখে। মেডিটেশনের মাধ্যমে আপনি অর্থবহ উপায়ে জীবনযাপন করতে পারেন। সাধারণত নভেম্বর মাসে লোকজন জমে থাকা ছুটি কাটিয়ে থাকে, এটি অনেকের জন্য স্ট্রেসফুল বা মানসিক চাপপূর্ণ। এমনকি পাঁচ মিনিটের মেডিটেশনও আপনার স্ট্রেস হ্রাস করতে পারে এবং সারাদিন জুড়ে মেজাজকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে।

ডিসেম্বর: অ্যালকোহল সীমিত করুন
একটি বৈশ্বিক গবেষণা বলছে যে, মদ্যপানের কোনো নিরাপদ মাত্রা নেই। যার মানে হচ্ছে, অল্প মদ্যপানও আপনার স্বাস্থ্যকে ঝুঁকির মধ্যে রাখতে পারে। তাই অ্যালকোহল থেকে দূরে থাকাই উচিৎ। কিন্তু যদি পার্টিতে অ্যালকোহল পান করতে চান, তাহলে এক বা দুই ড্রিংকের বেশি পান করবেন না, কারণ এর বেশি অ্যালকোহল পান করলে স্বাস্থ্য সমস্যার (যেমন- লিভারের সমস্যা ও ওজন বৃদ্ধি) ঝুঁকি বৃদ্ধি পাবে।

পড়ুন : স্বাস্থ্য লক্ষ্য : জানুয়ারি থেকে জুন

তথ্যসূত্র : রিডার্স ডাইজেস্ট



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২ জানুয়ারি ২০১৯/ফিরোজ

Walton AC
     
Walton AC
Marcel Fridge