ঢাকা, শুক্রবার, ১ পৌষ ১৪২৪, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

সেলফি তুলে সমলোচনায় প্রেসিডেন্ট কন্যা

মনিরুল হক ফিরোজ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৯-২৪ ৭:১৮:০৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৯-২৫ ৮:১৭:০৫ এএম

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক : আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট জাতিসংঘে গণহত্যা নিয়ে ভাষণ দেওয়ার সময়, তার কন্যা স্বার্থপর মনোভাব দেখিয়ে সেলফি নিয়ে ব্যস্ত থাকায়, ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েছেন।

৫৫ বছর বয়সি প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভ সম্প্রতি নিউইয়র্কে যখন বিশ্ব নেতৃবিন্দের সঙ্গে ১৯৯২ সালের  নাগোর্নো কারবাখ যুদ্ধ নিয়ে কথা বলছিলেন, তখন তার ৩৩ বছর বয়সি মেয়ে লেইলাকে দেখা গেছে অদ্ভুত ভঙ্গিতে সেলফি তুলতে।

জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে লেইলা তার স্মার্টফোন দিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় লাইভ স্ট্রিমিং করতে থাকায়, বিষয়টি বিশ্ব নেতাদের অস্বস্তিকর অবস্থায় ফেলে।

নিউ ইয়র্কে অধিবেশন হলে ৩৩ বছর বয়সি নেইলা প্রথম দিকে তার ৫৩ বছর বয়সি মা মেহরিবানের সঙ্গে বসে বাবার বক্তব্য মনোযোগ দিয়েই শুনছিল। কিন্তু ২ মিনিটেরও কম সময় পরেই নেইলা তার স্মার্টফোন বের করে সেলফি তোলা শুরু করে। এই আচরণের কারণে সোশ্যাল মিডিয়ায় তাকে নিয়ে তুমুল সমালোচনা করা হচ্ছে।



মেকহানিক নামক একজন বলেন: ‘এটা সংস্কৃতি বোধের অভাব এবং ধনী সন্তানদের নির্বুদ্ধিতার পরিচয় প্রকাশ করে। যার অর্থ তার বাবা-মায়েরা তাকে এভাবে গড়ে তুলেছে।’

জান্ডোস নামক আরেকজন বলেন, ‘পরিবারটির জন্য এটি খুবই লজ্জাজনক। যখন তারা পিতা গণহত্যা নিয়ে কথা বলছে, তখন তার এমন আচরণ ...।’

আজারবাইজান সংবাদ সংস্থা এপিএ’র মতে, প্রেসিডেন্ট আলিয়েভ আর্মেনিয়াতে আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপের আহবান জানান। তিনি বলেন, ‘আর্মেনিয় আগ্রাসনের ফলে আজারবাইজানের এক মিলিয়নেরও বেশি মানুষ শরণার্থী এবং অভ্যন্তরীণ বাস্তুচ্যুত হয়েছে। আর্মেনিয়া আজারবাইজানদের বিরুদ্ধে গণহত্যা চালিয়েছিল। ১০৬ জন নারী এবং ৬৩ জন শিশু সহ ৬১৩ জন তাদের গণহত্যার শিকার হয়েছিল।’

আর্মেনিয়া আগেই থেকেই তাদের বিরুদ্ধে আজারবাইজানের প্রেসিডেন্টের গণহত্যার দাবি প্রত্যাখান করে আসছে।

তথ্যসূত্র : মিরর



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭/ফিরোজ

Walton
 
   
Marcel