Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     সোমবার   ০৮ মার্চ ২০২১ ||  ফাল্গুন ২৩ ১৪২৭ ||  ২৩ রজব ১৪৪২

হবিগঞ্জে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৯:২৩, ১৮ জানুয়ারি ২০২১   আপডেট: ১৯:৪০, ১৮ জানুয়ারি ২০২১
হবিগঞ্জে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩

হবিগঞ্জ জেলায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় তিন জন নিহত হয়েছেন। 

রোববার দিবাগত রাত এবং সোমবার (১৮ জানুয়ারি) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত এসব দুর্ঘটনা ঘটে। 

নিহতরা হলেন- হবিগঞ্জ সদর উপজেলার রিচি গ্রামের দিদার আলীর ছেলে শাবাজ মিয়া (৩৮), মাধবপুর উপজেলার আদাবর গ্রামের আনু মিয়ার ছেলে আলম মিয়া (৩৫) ও ময়মনসিংহ জেলার হালুয়াঘাট উপজেলার দড়িয়াপুর গ্রামের ঠান্ডা মিয়ার ছেলে এসএম কেরামত আলী (৩৫)। 

সোমবার সন্ধ্যায় হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাসুক আলী, লাখাই থানার ওসি মো. সাইদুর রহমান ও শায়েস্তাগঞ্জ হাইওয়ে থানার ওসি মো. মাঈনুল ইসলাম তিনটি সড়ক দুর্ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, লাখাই উপজেলার বুল্লা ব্র্যাক কার্যালয়ের কর্মসূচি ম্যানেজার এসএম কেরামত আলী সোমাবর সকালে মোটরসাইকেলে করে হবিগঞ্জ থেকে কর্মস্থলে যাচ্ছিলেন। পথে অজ্ঞাত কোনো গাড়ি তাকে চাপা দিলে সেখানেই তার মৃত্যু হয়। তবে কুয়াশার কারণে মরদেহ কেউ দেখতে পায়নি। কয়েক ঘণ্টা পর কুয়াশা কমলে স্থানীয়রা কেরামত আলীর মরদেহ ও তার মোটরসাইকেল রাস্তার পাশের খাদ থেকে উদ্ধার করেন।

একইদিন দুপুরে মাধবপুর উপজেলার হোটেল হাইওয়ে ইনের পাশে গাড়িচাপায় আলম মিয়া নামে আরেকজন মারা গেছেন। তার মরদেহও দীর্ঘক্ষণ সড়কে পড়েছিল, কিন্তু কেউ দেখেননি। কুয়াশা কমলে স্থানীয়রা তার মরদেহ দেখতে পান। পরে খবর পেয়ে দুপুরে শায়েস্তাগঞ্জ হাইওয়ে থানা পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

এর আগে রোববার দিবাগত রাতে ঢাকা থেকে শ্রীমঙ্গলগামী একটি বাস হবিগঞ্জ সদর উপজেলার ভাদৈ এলাকায় একটি ট্রাক্টরকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয়। এতে ট্রাক্টরের চালক শাবাজ মিয়া আহত হন। এ অবস্থায় রাতে তাকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হচ্ছিল। পথেই তার মৃত্যু হয়।

হবিগঞ্জ বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক শঙ্খ শুভ্র রায় জানান, ট্রাক্টরটি হঠাৎ সড়কে বিকল হয়ে যায়। ঘন কুয়াশার কারণে কিছুই দেখা যাচ্ছিল না। সেসময় ট্রাক্টরটিকে ধাক্কা দেয় বাস। নিহতের পরিবারের সঙ্গে বাস মালিক সমিতি বিষয়টি সামাজিকভাবে নিষ্পত্তি করেছে।

মামুন চৌধুরী/সনি

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়