Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ২৪ জুলাই ২০২১ ||  শ্রাবণ ৯ ১৪২৮ ||  ১২ জিলহজ ১৪৪২

খুলনায় করোনায় আরও ২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৫৬

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১০:০০, ১৩ জুন ২০২১   আপডেট: ১০:০৬, ১৩ জুন ২০২১
খুলনায় করোনায় আরও ২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৫৬

খুলনায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আ. মজিদ খান ও কাজী জালাল উদ্দীন নামে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

খুলনা মেডিক‌্যাল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার (১২ জুন) রাতে তারা মৃত্যুবরণ করেন।

রোববার (১৩ জুন) সকালে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন খুলনা মেডিক‌্যাল কলেজ হাসপাতালের আবাসিক মেডিক‌্যাল অফিসার ও করোনা হাসপাতালের ফোকাল পার্সন ডা. সুহাস রঞ্জন হালদার।

ডা. সুহাস রঞ্জন হালদার জানান, মৃত আ. মজিদ খান (৬৮) যশোরের কেশবপুর এলাকার মৃত তোরাব আলী খানের ছেলে ও মৃত কাজী জালাল উদ্দীন (৭০) ফুলতলা উপজেলার বেজের ডাংগা এলাকার মৃত সদম আলীর ছেলে।

এদিকে, শনিবার রাতে খুমেক পিসিআর ল্যাবের পরীক্ষায় ৫৬ জনের করোনা পজিটিভ এসেছে । প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী খুলনা মেডিক‌্যাল কলেজ পিসিআর মেশিনে ১৮৮ জনের করোনা পরীক্ষা করা হয়। যার মধ্যে ১৫৬ জন খুলনা মহানগরী ও জেলার।

এরমধ্যে ৫৬ জনের করোনা পজিটিভ এসেছে। যার মধ্যে খুলনা মহানগরী ও জেলার ৪৯ জন, বাগেরহাট ৩ জন, যশোর ২ জন, নড়াইলের ১ জন ও মাগুরা জেলার ১ জন রয়েছে।

প্রসঙ্গত, আজ রোববার (১৩ জুন) থেকে ১৯ জুন পর্যন্ত খুলনা জেলা ও মহানগরীতে ৭ দিনের বিধি-নিষেধ শুরু হচ্ছে। এ বিধি বাস্তবায়নের লক্ষে শনিবার খুলনার জেলা প্রশাসক এবং করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধ জেলা কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ হেলাল হোসেন গণবিজ্ঞপ্তি জারি করেছেন।

গণবিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, খুলনায় করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব বৃদ্ধির কারণে ১৩ জুন থেকে ১৯ জুন পর্যন্ত সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত দোকানপাট, মার্কেট, শপিংমল ও হোটেলসমূহ খোলা থাকবে। তবে মার্কেটের প্রবেশদ্বারে হ্যান্ড স্যানিটাইজার/হাত ধোয়ার ব্যবস্থা রাখতে হবে।

‘স্বাস্থ্যবিধি না মানলে মৃত্যু ঝুঁকি আছে’— এই সতর্কবাণী অবশ্যই দৃশ্যমান স্থানে রাখতে হবে। দোকানসমূহে ক্রেতা ও বিক্রেতাদের অবশ্যই মাস্ক পরিধান করতে হবে এবং দুই জনের মধ্যে তিন ফুট শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। হোটেল-রেস্তোরাগুলো পার্সেলকৃত/প্যাকেটজাত খাবার সরবরাহ করতে পারবে। বেবী ট্যাক্সি ও ব্যাটারিচালিত অটোরিকশাসহ সকল ধরনের যানবাহনে অর্ধেকের বেশি যাত্রী বহন করতে পারবে না। যানবাহনের চালকসহ প্রত্যেক যাত্রীদের অবশ্যই মাস্ক পরিধানসহ সকল স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করতে হবে। তবে, ওষুধের দোকান সার্বক্ষণিক খোলা রাখা যাবে এবং কেসিসি সন্ধ্যা বাজার ও সোনাডাঙ্গা ট্রাক স্ট্যান্ড সংলগ্ন পাইকারী কাঁচাবাজার রাত ৯টা পর্যন্ত খোলা রাখা যাবে। এছাড়া পাইকগাছা উপজেলার পৌরসভা এলাকার ক্ষেত্রে গত ৯ জুন থেকে জারী করা বিধি-নিষেধসমূহ বলবৎ থাকবে।

এই বিধি-নিষেধ খুলনা জেলা ও মহানগরের সংশ্লিষ্ট সকলকে কঠোরভাবে মেনে চলার অনুরোধ করা হয়েছে। অন্যথায় সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও গণবিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।

খুলনা/নূরুজ্জামান/বুলাকী

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়