ঢাকা     বুধবার   ২৫ মে ২০২২ ||  জ্যৈষ্ঠ ১১ ১৪২৯ ||  ২৩ শাওয়াল ১৪৪৩

বাবাকে হত্যা করে লাশ সেফটিক ট্যাংকে, ছেলে অভিযুক্ত 

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৩:০২, ২০ জানুয়ারি ২০২২  
বাবাকে হত্যা করে লাশ সেফটিক ট্যাংকে, ছেলে অভিযুক্ত 

দ্বিতীয় বিয়ে করতে চাওয়ায় রাজশাহীতে ঘুমন্ত অবস্থায় বাবাকে গলাকেটে হত্যার পর টয়লেটের সেফটিক ট্যাংকে লাশ ফেলে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ছেলের বিরুদ্ধে। 

রাজশাহীর দামকুড়া থানার বিন্দারামপুর গ্রামে এ হত্যাকাণ্ড ঘটেছে।

বৃহস্পতিবার (২০ জানুয়ারি) ভোররাতে পুলিশ নিহত সাজ্জাদ হোসেনের (৬৫) লাশ উদ্ধার করে। 

পুলিশ জানিয়েছে, ছেলে রাসেল আলী স্বপন (৩২) মঙ্গলবার (১৮ জানুয়ারি) রাত বারোটার দিকে ঘরে ঢুকে তার বাবাকে গলাকেটে হত্যা করেছে। স্বপনকে আটক করেছে পুলিশ।

দামকুড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুব আলম জানান, মঙ্গলবার রাত থেকে সাজ্জাদ হোসেন নিখোঁজ হন। এ ঘটনায় নিখোঁজ সাজ্জাদের ভাই সাজদার রহমান হাদী দামকুড়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। ওই জিডির সূত্র ধরে পুলিশ সাজ্জাদের অপর ছেলে রাসেল আলী স্বপনকে জিজ্ঞাসাবাদ করে। এরপর স্বপন পুলিশকে স্বীকারোক্তি দেন, তিনি তার বাবা সাজ্জাদকে প্রথমে শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা করেন, ব্যর্থ হয়ে পরে গলাকেটে হত্যা করেন। হত্যার পর বাবার লাশ বাড়ির টয়লেটের সেফটিক ট্যাংকে ভরে রাখেন।

স্বপন পুলিশকে জানান, এক বছর আগে তার মা মারা যান। এরপর বাবা দ্বিতীয় বিয়ে করার কথা বলছিলেন বাসায়। দ্বিতীয় বিয়ে করলে তাদের সম্পত্তি ভাগ হয়ে যাবে- এই ধারণা থেকে স্বপন তার বাবা সাজ্জাদকে হত্যার পরিকল্পনা করেন। 

ওসি জানান, নিহত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নিহত সাজ্জাদের ভাই সাজদার রহমান হাদী হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

তানজিমুল/টিপু

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়