ঢাকা     শনিবার   ০২ মার্চ ২০২৪ ||  ফাল্গুন ১৮ ১৪৩০

লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে জেলা জাপা সভাপতিকে অবাঞ্চিত ঘোষণা

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:৫৯, ৭ নভেম্বর ২০২৩  
লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে জেলা জাপা সভাপতিকে অবাঞ্চিত ঘোষণা

লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি ও রামগঞ্জ উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি মাহমুদুর রহমান মাহমুদকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করেছেন দলটির নেতাকর্মীরা। মঙ্গলবার (৭ নভেম্বর) দুপুরে রামগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেওয়া হয়।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন- উপজেলা জাতীয় পার্টির সিনিয়র সহ-সভাপতি চৌধুরী আহম্মদ উল্যা, সহ সভাপতি মো. আনোয়ার পাটওয়ারী, পৌর জাতীয় পার্টির সহ সভাপতি মো. খবির উদ্দিন, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মো. আলমগীর হোসেন প্রমুখ। এসময় রামগঞ্জ উপজেলা, পৌর ও ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা উপস্থিত ছিলেন। 

জাতীয় পার্টির নেতারা বক্তব্যে বলেন, মাহমুদুর রহমান কখনোই দলের স্বার্থে এবং তৃণমূল নেতাকর্মীদের জন্য জাতীয় পার্টির রাজনীতি করেননি। তিনি সবসময় নিজের স্বার্থে রাজনীতি করেছেন। দশম সংসদ নির্বাচনের সময় জাতীয় পার্টির রাজনীতি ছেড়ে বিএনপিতে যোগ দেন তিনি। সেখানে নিজের স্বার্থ হাসিল করতে না পেরে এখন আবারও জাতীয় পার্টিতে যোগ দিয়েছেন।

তারা আরো বলেন, মাহমুদুর রহমান জিএম কাদেরের আত্মীয় হওয়ায় জাতীয় পার্টির রাজনীতিতে সবসময় প্রভাব খাটিয়ে আসছেন। তিনি সুযোগকে কাজে লাগিয়ে এবং ভুল বুঝিয়ে জেলা এবং উপজেলার সভাপতি পদ নিয়েছেন। এখন তিনি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টি থেকে মনোনয়ন চান। অথচ তার সঙ্গে তৃণমূল নেতাকর্মীদের কোনো যোগাযোগ নেই। যারা উপজেলা এবং পৌরসভার সিনিয়র নেতারা আছেন তাদের সঙ্গেও মাহমুদুর রহমান যোগাযোগ রাখেন না। এমনকি রামগঞ্জেও আসেন না। সিনিয়র কোনো নেতাকর্মীকেই মূল্যায়ন করেন না তিনি।

বর্তমানে আমরা যারা প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে জাতীয় পার্টির রাজনীতি করি, আমরা এখন দিশেহারা এবং নেতৃত্বহীন। বিএনপি থেকে জাতীয় পার্টিতে অনুপ্রবেশকারী, মাহমুদুর রহমানকে কোনোভাবেই যেন আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টি থেকে মনোনয়ন দেওয়া না হয় সেই দাবি জানাচ্ছি। একই সঙ্গে রামগঞ্জে মাহমুদুরর রহমানকে অবাঞ্চিতও ঘোষণা করেন তারা।

এ বিষয়ে জানতে জাতীয় পার্টির জেলা সভাপতি মাহমুদুর রহমানের মুঠোফোনে একাধিকবার কল করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

জাহাঙ্গীর/মাসুদ

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়