ঢাকা     সোমবার   ২২ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ৯ ১৪৩১

কোকের বোতলে ছাত্রলীগ নেতার মদ ঢালার ভিডিও ভাইরাল

নোয়াখালী প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:২৮, ৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  
কোকের বোতলে ছাত্রলীগ নেতার মদ ঢালার ভিডিও ভাইরাল

আব্দুল মালেক উকিল মেডিক্যাল কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. ইমদাদুল হক শিহাব

নোয়াখালীর আব্দুল মালেক উকিল মেডিক্যাল কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. ইমদাদুল হক শিহাবের কোকের বোতলে মদ ঢালার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। 

সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া ৮ সেকেন্ডের ভিডিওতে দেখা যায়, আবদুল মালেক উকিল মেডিক্যাল কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি শিহাব তার বাঁ পায়ের মাঝখান থেকে একটি মদের বোতল থেকে কোকের বোতলে মদ ঢালছেন। ঢালা শেষ হলে পাশে থাকা একজনকে সেটি দিচ্ছেন। এসময় পাশের ওই ব্যক্তি বলছেন, ‌‘এই দেখুন বড় বড় মদারুরা কালকে চালানের জন্য মাল ভরছেন কোকের বোতলে।’ এছাড়াও সিগনেচার ব্যান্ডের মদের বোতলের সঙ্গে তোলা হাস্যোজ্জ্বল ছবি ও নেশা করার ছবিও ভাইরাল হয়েছে।

নাম প্রকাশে না করার শর্তে আব্দুল মালেক উকিল মেডিক্যাল কলেজ শাখা ছাত্রলীগের এক সদস্য বলেন, সভাপতি শিহাবের বিরুদ্ধে অনেক অভিযোগ রয়েছে। তিনি কিছুদিন আগেও হল শাখার সভাপতি আল মাসুদুর রহমান সোহেলের রুমের তালা ভেঙে রুম দখল করেন। এনিয়ে বেগমগঞ্জ মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছিল।

আব্দুল মালেক উকিল মেডিক্যাল কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি মো. ইমদাদুল হক শিহাব বলেন, আমি নেশা করি না। মজার ছলে ছবি ও ভিডিও করা হয়েছে। এসবের মধ্যে আমি নেই। আমি ক্যাম্পাসে শান্তির জন্য শিক্ষার্থীবান্ধব কাজকর্মের সঙ্গে জড়িত।

তিনি আরও বলেন, কিছুদিন আগে ছাত্রলীগ হল শাখার সভাপতি সোহেলের সঙ্গে আমার ঝামেলা হয়েছিল। তিনি অভিযোগও দিয়েছিলেন, সেটার মীমাংসা হয়েছে। তার হল কমিটি বিলুপ্ত করা হয়েছে। আমাদের শিক্ষকরা সমাধান করে দিয়েছেন। এখন আবার এসব বিষয় নিয়ে নিউজ হলে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে।

হল শাখার সভাপতি আল মাসুদুর রহমান সোহেল বলেন, আমার সঙ্গে কলেজ সভাপতির যে সমস্যা হয়েছে তার সমাধানও হয়েছে। আমি এখন হলে থাকি না। হল শাখা কমিটিও বিলুপ্ত হয়েছে। ছাত্রলীগের সভাপতি শিহাবের যেসব ভিডিও-ছবি ভাইরাল হয়েছে তা এডিট করা।

নোয়াখালী আবদুল মালেক উকিল মেডিক্যাল কলেজ শাখা ছাত্রলীগ সূত্রে জানা যায়, ২০২৩ সালে ১৪ অক্টোবর ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাদ্দাম হোসেন এবং সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে মো. ইমদাদুল হক শিহাবকে আবদুল মালেক উকিল মেডিক্যাল কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি ও মাহাদী হাসানকে সাধারণ সম্পাদক করে ১০ সদস্য বিশিষ্ট কমিটির অনুমোদন দেওয়া হয়।

সুজন/মাসুদ

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়