RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     বুধবার   ২৭ জানুয়ারি ২০২১ ||  মাঘ ১৩ ১৪২৭ ||  ১২ জমাদিউস সানি ১৪৪২

আবৃত্তি অনলাইন: বাঙালির কবিতা পৌঁছে দেবে বিশ্বময় 

সানজানা হোসেন অন্তরা || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:৪৫, ২৯ নভেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৭:৫২, ২৯ নভেম্বর ২০২০
আবৃত্তি অনলাইন: বাঙালির কবিতা পৌঁছে দেবে বিশ্বময় 

কবিতা এক আশ্চর্য স্বপ্নময় ধ্বনি, আর আবৃত্তি তার প্রতিধ্বনি। বাঙালি জাতির জীবনে, আজীবন ছিল সংস্কৃতির ছোঁয়া। সংস্কৃতি প্রেমী এ জাতির জীবনের সঙ্গে কবিতাও ঠিক ওতোপ্রোতোভাবে জড়িয়ে আছে ও থাকবে। আজও বাঙালি ভোলেনি কবি গুরু রবীন্দ্রনাথ, জীবনানন্দ দাশ ও নজরুলকে। 

বাঙালির যেকোনো অনুষ্ঠানে কবিতা আজও সমান সমাদৃত। যারা আবৃত্তি করে এই আশ্চর্য স্বপ্নময় ধ্বনি, যাদের কণ্ঠের জাদুতে চেনা কবিতার লাইনগুলো অন্য এক আবেগ, ভালাবাসা নিয়ে আমাদের মনকে ছুঁয়ে ফেলতে পারে, সেই আবৃত্তি শিল্পীরাও আজ এই মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে দীর্ঘ সময় গৃহবন্দি। হচ্ছে না কোনো অনুষ্ঠান পার্বণ, নেই আগের মতো পৃথিবী। সব যেন স্থবির। 

কিন্তু তাই বলে কি থেমে যাবে লাখো কবি ও কবিতার মধ্যকার প্রেম! না থামবে না। আমরা যারা কবিতা শুনতে পছন্দ করি, একটা কবিতার গভীরতা কোনো এক আবৃত্তি শিল্পীর কণ্ঠে গভীর ভালোবাসায় উপলব্ধি করতে চাই, যারা আবৃত্তি করতে চাই, শিখতে চাই সেই সবার কথা মাথায় রেখে ‘আবৃত্তি Online’ নামক প্রতিষ্ঠানের শুরু। তথ্য প্রযুক্তির এ যুগে কবিতাকে তো হারাতে দেওয়া যাবে না। শুধু মহামারি করোনাভাইরাসের কারণেই এই প্রতিষ্ঠানের জন্ম তা নয়, পৃথিবীর সব আবৃত্তি শিল্পী ও কবিতা প্রেমীদের একত্র করাই এর লক্ষ্য।

‘আবৃত্তি অনলাইন’ এই ধ্বনি-প্রতিধ্বনির শিল্প সমন্বয়ের সুইজারল্যান্ড থেকে প্রচারিত অন্তর্জালিক মঞ্চ বা ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্ম। আবৃত্তি কর্মী, শিল্পী, শ্রোতা, দর্শক ও শুভানুধ্যায়ীদের এক বিশ্বজনীন বৈঠকী আয়োজন। আবৃত্তি শিল্পের বিকাশ, বিনোদন, প্রশিক্ষণ, অভিষেক ও কবিতার ছন্দ প্রভায় হাসি-কান্না-বিষাদ, আবেগ-প্রেম-দ্রোহসহ বাঙালির মনোজগতের আলোকবর্তিকা ঘিরেই আবর্তিত এই বিশ্বমঞ্চ। 

ইতোমধ্যে এখানে যুক্ত পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে অবস্থানরত বাঙালি, যারা আজও চায় কবিতার গভীরতায় নিজেকে হারাতে। আবৃত্তিকে ভালোবেসে সৌন্দর্যের প্রতিষ্ঠায় শিল্পের ভিত্তি ভূমিতে সটান দাঁড়িয়ে আছে ‘আবৃত্তি Online’। মুক্তমনা, সৃজনশীল ও শিল্পানুরাগীদের মননশীলতায় ঋদ্ধ হচ্ছে প্রতিনিয়ত। শিল্প ভেঙে শিল্প গড়ার পক্ষে আমাদের সানন্দ অবস্থান। পায়ে পায়ে নান্দনিকতার উৎকর্ষেই হোক নিরন্তর পথচলা। 

পথ চলতে চলতে যখন সন্ধ্যা নেমে আসে, শহুর জীবনে তখনও ঘুম এসে কড়া নাড়ে না কারো কারো চোখে। পরিশ্রান্ত হয়ে সপ্তাহের কর্মব্যস্ত দিনটি শেষ করে যখন আপনি জানালা দিয়ে বাইরে তাকাবেন, তখন হয়তো মিলবে না চাঁদের আলো, ঝি ঝি আর জোনাকিদের সমাগম, কিন্তু কবিতার আশ্চর্য Daisy পারে আমাদের সেই কাব্যিক জগতে নিয়ে যেতে, অনিন্দ্য সুন্দর সেই উচ্চারণ আবৃত্তির ভেতর দিয়ে।  তেমনি একটি পাক্ষিক আয়োজন ‘আবৃত্তি Online Live। ৯০ মিনিটের এই live video পডকাস্টের নিয়মিত আয়োজন শুরু করেছে আবৃত্তি অনলাইন। অনলাইন ভিত্তিক একটি প্ল্যাটফর্ম, যা কাজ করে আবৃত্তির প্রসারে।

সবকিছু আধুনিকায়ন হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে, তথ্য প্রযুক্তির উন্নয়নের সঙ্গে তাল মিলিয়ে বাঙালির সংষ্কৃতি, বাঙালির কবিতা সারা পৃথিবীতে পৌঁছে দেওয়াটা আমাদের কর্তব্য। যেসব বাঙালি কবি নিজেদের লেখার দ্বারা সমৃদ্ধ করেছেন বাঙালির সাহিত্য, তাদের লেখার গভীরতা সারা পৃথিবীতে ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য হলেও আবৃত্তি ‘online’-এর মতো প্ল্যাটফর্ম সত্যি দরকার।

লেখক: শিক্ষার্থী, তথ্যবিজ্ঞান ও গ্রন্থাগার ব্যবস্থাপনা বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

ঢাবি/মাহি

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়