ঢাকা     বুধবার   ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||  আশ্বিন ৮ ১৪২৭ ||  ০৫ সফর ১৪৪২

নতুন বাণিজ্যমন্ত্রীকে ওয়ালটনের শুভেচ্ছা

হাসান মাহামুদ || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৪:০৪, ১০ জানুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ০৫:২২, ৩১ আগস্ট ২০২০
নতুন বাণিজ্যমন্ত্রীকে ওয়ালটনের শুভেচ্ছা

সচিবালয় প্রতিবেদক : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়ী হয়ে বাণিজ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব পেয়েছেন রংপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য আওয়ামী লীগের অর্থ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা টিপু মুনশি। নবনিযুক্ত বাণিজ্যমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছে দেশের ইলেকট্রনিক্স জায়ান্ট স্বনামধন্য বাংলাদেশি ব্র্যান্ড ওয়ালটন।

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে মন্ত্রীকে নিজ দপ্তরে শুভেচ্ছা জানান ওয়ালটনের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর এস এম জাহিদ হাসান। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন ওয়ালটনের ডেপুটি এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর উদয় হাকিম, অপারেটিভ ডিরেক্টর (পাবলিক রিলেশন ডিপার্টমেন্ট) জাহিদ আলমসহ অন্যান্য কর্মকর্তা।

মন্ত্রী এ সময় দেশীয় উৎপাদক কোম্পানি হিসেবে ওয়ালটনের অগ্রযাত্রার প্রশংসা করেন এবং আরো সমৃদ্ধি কামনা করেন।

তিনি বলেন, দেশের উন্নয়নে দেশীয় উৎপাদন ব্যবস্থার বিকল্প নেই। একটি দেশের অন্যতম অর্থনৈতিক নির্দেশক হচ্ছে মোট অভ্যন্তরীণ বা দেশজ উৎপাদন অর্থাৎ জিডিপি। দেশীয় উৎপাদক প্রতিষ্ঠানগুলো দেশের জিডিপিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। এটি খুব আশাব্যঞ্জক।

তিনি দেশীয় উৎপাদক প্রতিষ্ঠান হিসেবে ওয়ালটনের উত্তোরত্তর সমৃদ্ধি কামনা করেন এবং আগামীতে রপ্তানি ও উৎপাদনের ক্ষেত্রে সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, কয়েক বছরের ব্যবধানে ওয়ালটন যে পরিমাণ সমৃদ্ধ হয়েছে, উন্নতি করেছে তা অনেকের জন্য একটি উদাহরণ। এ ধারা অব্যাহত থাকা আপনাদের জন্য যেমন আবশ্যক, দেশের জন্যও মঙ্গল। 

 



তিনি আরো বলেন, গতকাল (বুধবার) আমি আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা উদ্বোধনের পর রাষ্ট্রপতি মহোদয়ের সাথে ওয়ালটন প্যাভিলিয়নে গিয়েছিলাম। ওয়ালটনের নিজস্ব উৎপাদনের বিভিন্ন প্রোডাক্ট দেখে আমি মুগ্ধ হয়েছি। ওয়ালটনের সামনে এগিয়ে যাওয়ার যথেষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে।

তিনি বলেন, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে দেশীয় উৎপাদক প্রতিষ্ঠান হিসেবে ওয়ালটনকে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা করা হবে।

শুভেচ্ছা বিনিময়কালে স্বনামধন্য দেশীয় উৎপাদক প্রতিষ্ঠান ওয়ালটনের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর এস এম জাহিদ হাসান বলেন, স্থানীয় বাজারে যেকোনো ব্র্যান্ডের চেয়ে উচ্চ গুণগতমানের পণ্য উৎপাদন করছে ওয়ালটন। দেশের বাজারে একমাত্র ওয়ালটনই দিচ্ছে সঠিক বিটিইউসহ গুণগত মানের নিশ্চয়তা। বর্তমানে দেশের চাহিদা পূরণ করে এশিয়া, ইউরোপ ও আফ্রিকা মহাদেশের বেশ কয়েকটি দেশে রপ্তানি হচ্ছে ওয়ালটন পণ্য।

ওয়ালটনের প্রতিনিধিদলের পক্ষ থেকে বাণিজ্যমন্ত্রীকে এ সময় ওয়ালটনের কারখানা পরিদর্শনের আমন্ত্রণ জানানো হয়। মন্ত্রী আমন্ত্রণ গ্রহণ করে জানান, খুব শিগগিরই সুবিধাজনক সময়ে তিনি ওয়ালটন কারখানা পরিদর্শনে যাবেন।

প্রসঙ্গত, দেশের সর্ববৃহৎ ইলেকট্রিক্যাল, ইলেকট্রনিক্স, অটোমোবাইলস এবং হোম অ্যাপ্লায়েন্স পণ্য প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন গ্রুপ। সারা দেশে ছড়িয়ে রয়েছে ওয়ালটনের বিক্রয়কেন্দ্র। বর্তমানে বিশ্বের বিভিন্ন দেশেও ওয়ালটনের পণ্য রপ্তানি হচ্ছে। এসব দেশের মধ্যে রয়েছে- নাইজেরিয়া, সৌদি আরব, সুদান, ঘানা, দক্ষিণ আফ্রিকা, মিয়ানমার, নেপাল প্রভৃতি।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১০ জানুয়ারি ২০১৯/হাসান/রফিক

রাইজিংবিডি.কম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়