ঢাকা     শনিবার   ১৫ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ৩১ ১৪২৭ ||  ২৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

ওয়ান ব্যাংকের চেয়ারম্যান পদ থেকে বাদ পড়লেন সাঈদ

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১০:১৩, ৬ জুলাই ২০২০  
ওয়ান ব্যাংকের চেয়ারম্যান পদ থেকে বাদ পড়লেন সাঈদ

ঋণখেলাপি হওয়ায় বেসরকারি ওয়ান ব্যাংক লিমিটেডের চেয়ারম্যান পদ থেকে বাদ পড়েছেন সাঈদ হোসেন চৌধুরী। অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ব্যাংক কোম্পানি আইন অনুযায়ী বাংলাদেশ ব্যাংক তাকে এ পদ থেকে সরিয়ে দেয়। আইন অনুযায়ী একজন ঋণখেলাপি ব্যাংকের পরিচালক পদে থাকতে পারেন না।

ইতোমধ্যে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের এ সিদ্ধান্ত ওয়ান ব্যাংক পর্ষদকে চিঠির মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে, ২০১৯ সালের ১৫ অক্টোবর থেকে সাঈদ হোসেন চৌধুরীকে ওয়ান ব্যাংক লিমিটেডের চেয়ারম্যান পদ থেকে অপসারণের সিদ্ধান্ত কার্যকর হয়েছে।

সোমবার (৬ জুন) বিকেল ৩টায় বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো. সিরাজুল ইসলাম রাইজিংবিডিকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ ব্যাংক এ ধরনের একটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তা চিঠি দিয়ে সংশ্লিষ্ট ব্যাংক পর্ষদকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।’

বাংলাদেশের অন‌্যতম বড় ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান এইচআরসি গ্রুপের চেয়ারম্যান ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সাঈদ হোসেন চৌধুরী। তিনি এ গ্রুপের সহযোগী প্রতিষ্ঠান এইচআরসি শিপিং লাইন্সের ব্যবসায়িক কার্যক্রম পরিচালনার নামে বেসরকারি স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে ফেঁসে যান। নিয়মমাফিক ঋণ পরিশোধে ব্যর্থ হওয়ায় স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের ঋণখেলাপির তালিকায় তার নাম ওঠে। বাংলাদেশ ব্যাংকে পাঠানো স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের প্রতিবেদনে বলা হয়, গত বছরের ৬ জানুয়ারি পর্যন্ত সাঈদ হোসেন চৌধুরীর মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান এইচআরসি শিপিং লাইন্সের কাছে সুদসহ মোট পাওনা দাঁড়িয়েছে ১২১ কোটি ৪৩ লাখ টাকা। পাওনা আদায়ে বন্ধকিতে থাকা চট্টগ্রামের তার সম্পত্তি নিলামে বিক্রির সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের প্রিন্সিপাল শাখা। এ পাওনা আদায়ে সাঈদ হোসেন চৌধুরীর মালিকানাধীন চট্টগ্রামের আগ্রাবাদে অবস্থিত আরেক সহযোগী প্রতিষ্ঠান আরাকান এক্সপ্রেস লিমিটেডের ৩১ দশমিক ৮০ ডিসিমেল জমির ওপর নির্মিত বাণিজ্যিক শেড ও সংশ্লিষ্ট সব ধরনের স্থাপনা নিলামে বিক্রির প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।


ঢাকা/শাহ আলম/রফিক

রাইজিংবিডি.কম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়