ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ২৯ মে ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

টিভি ক্লাসে তদারকি নেই, অমনোযোগী শিক্ষার্থীরা

আবু বকর ইয়ামিন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৪-০১ ৭:২৩:১৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৪-০২ ১:০০:৪০ এএম

করোনাভাইরাসের কারণে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। এসময় শিক্ষার্থীদের যাতে পড়াশোনায় বিঘ্ন না ঘটে সেজন্য সংসদ টেলিভিশনের মাধ্যমে ৬ষ্ট থেকে দশম শ্রেণির ক্লাস চালু করেছে সরকার।

এটুআই এর সহযোগিতায় এটি পরিচালনা করছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি) ।

অভিভাবকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, শিক্ষার্থীরা টেলিভিশনে ক্লাস করার ব্যাপারে খুব বেশি মনোযোগী নয়।  তাছাড়া টেলিভিশনে শিক্ষকদের প্রশ্ন করে কোনো কিছু জানার সুযোগ নেই। আবার কোথাও কোথাও টেলিভিশন নেই। রয়েছে বিদ্যুৎ বিভ্রাটের সমস্যা। সব মিলিয়ে এই ক্লাস করার প্রক্রিয়া কতটা সফল হচ্ছে, সেটা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন অনেকেই।

কেউ কেউ বলছেন, ছেলেমেয়েরা স্কুলের ক্লাস, কোচিং ক্লাস, প্রাইভেট টিউটর এসবে অভ্যস্ত। এ কারণে টিভির পাঠদানে ওরা মনোযোগী নয়। অনেকে আবার বাসার বাইরে খেলাধুলায় মেতে উঠছে। কেউ আবার এদিক সেদিক ঘুরে বেড়াচ্ছে, বেড়াতেও যাচ্ছে। টেলিভিশন ক্লাসের প্রতি তাদের মনযোগ নেই।

এর তদারকির জন্য স্ব স্ব প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদেরও তেমন উদ্যোগ নেই বলে অভিযোগ অভিভাবকদের। তাদের অভিযোগ, অন্তত প্রত্যেক প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা যদি এগুলো ভালভাবে তদারকি করতো তাহলে শিক্ষার্থীরা মনযোগী হতো।

জানতে চাইলে মাউশির পরিচালক (উন্নয়ন ও প্রশিক্ষণ) অধ্যাপক ড. প্রবীর কুমার ভট্টাচার্য্য রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘আমরা সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে দক্ষ শিক্ষকদের মাধ্যমে ক্লাস নেওয়াচ্ছি। তাছাড়া শিক্ষার্থীদের মনোযোগী করতে কৌশল হিসেবে কিছু উদ্যোগও নেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, পাঠদানকারী শিক্ষক ক্লাস শেষে পাঠদানকৃত বিষয়ের ওপর বাড়ির কাজ দিবেন। প্রতিটি বিষয়ের জন্য শিক্ষার্থীরা আলাদা আলাদা খাতায় তারিখ অনুযায়ী বাড়ির কাজ সম্পন্ন করবে। স্কুল খোলার পর নিজ নিজ স্কুলের নির্দিষ্ট বিষয়ের শিক্ষকের কাছে বাড়ির কাজ জমা দিতে হবে। এই বাড়ির কাজের ওপর প্রাপ্ত নম্বর ধারাবাহিক মূল্যায়নের অংশ হিসেবে বিবেচিত হবে।

এ বিষয়ে প্রতিষ্ঠান প্রধানদের নির্দেশনা দেওয়া আছে বলে জানান তিনি।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক বলেন, ‘কিছু জায়গায় টেলিভিশন দেখা যাচ্ছে না বলে অভিযোগ পেয়েছি। তবে সে বিষটিও সমাধান করা হচ্ছে। বিটিভির মতো স্যাটেলাইট সংযোগ ছাড়াই সংসদ টিভির এই পাঠদান দেখা যাবে। পাশাপাশি টেলিভিশনে প্রচার হওয়া সকল ক্লাসগুলো কিশোর বাতায়নে দেওয়া হবে। শিক্ষার্থীরা যেকোনো সময়ে তা দেখতে পারবে। আশা করছি সমস্যা থাকলে কেটে যাবে। শিক্ষকদেরও আরো দায়িত্ববান হতে হবে বলে জানান তিনি।

 

ঢাকা/ইয়ামিন/সাজেদ