Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ২৪ জুলাই ২০২১ ||  শ্রাবণ ৯ ১৪২৮ ||  ১২ জিলহজ ১৪৪২

বাধা নেই, তবুও কেন মুক্তি পাচ্ছে না সিনেমা?

প্রকাশিত: ১৭:৩৫, ২৯ মে ২০২১   আপডেট: ১৭:৩৭, ২৯ মে ২০২১
বাধা নেই, তবুও কেন মুক্তি পাচ্ছে না সিনেমা?

গত বছর করোনা সংক্রমণের শুরু থেকেই চলচ্চিত্রে ধস নামে। সিনেমা হল খোলা এবং শুটিংয়ে বাধা না-থাকলেও স্থবির হয়ে পড়ে চলচ্চিত্রাঙ্গন। মাঝখানে করোনা সংক্রমণ কমে এলেও স্থবিরতা থেকে মুক্তি পায়নি ঢালিউড। নতুন কোনো সিনেমা মুক্তি দিচ্ছেন না পরিচালক-প্রযোজক। গত দেড় বছরে স্বল্প বাজেটের কয়েকটি সিনেমা মুক্তি পেলেও বিগ বাজেটের তারকাবহুল একটি সিনেমাও মুক্তি পায়নি। এমন সিনেমার সংখ্যা প্রায় ৫০টি।

প্রযোজক, পরিবেশক সমিতি সূত্রে জানা গেছে, মুক্তির জন্য অনেকগুলো সিনেমার আবেদনপত্র সমিতিতে জমা পড়ে রয়েছে। কেউই এ সময়ে সিনেমা মুক্তি দিতে চান না। গত ঈদে অমি বনি কথাচিত্রের ‘সৌভাগ্য’ সিনেমাটি মুক্তি পায়। যদিও সিনেমাটি মুক্তির পর প্রশাসনিক জটিলতা তৈরি হয়। সিনেমা হল চলতে আইনগত বাধা না থাকলেও স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে না বলে দেশের বিভিন্ন জেলায় প্রায় ১৫টি সিনেমা হলের শো বন্ধ করে দেওয়া হয়। এ তথ্য জানিয়েছে প্রদর্শক সমিতি।

ঢাকা মহানগরেও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ‘চিত্রামহল’ ও ‘আজাদ’ সিনেমা হল। সমিতি সূত্রে জানা গেছে, ঈদ সামনে  রেখে ১১৫টি সিনেমা হল চালু করা হয়েছিল। সমিতির প্রধান উপদেষ্টা সুদীপ্ত কুমার দাস বলেন, ‘প্রথমে বন্ধ করা হয় সিলেটের নন্দিতা। তারপর বন্ধ করা হয় দিনাজপুরের একটি হল। এভাবে ১৫টি সিনেমা হল স্থানীয় থানা বা ইউএনওরা বন্ধ করে দেন।’

এদিকে করোনার এই পরিস্থিতিতে বিগ বাজেটে সিনেমা মুক্তি দিতে সাহস পাচ্ছে না প্রযোজক। কারণ তাদের ধারণা এ সময় কেউ প্রেক্ষাগৃহে যাবে না। লোকসানের আশঙ্কা করছেন তারা। অথচ এই তালিকায় দেশ সেরা চিত্রনায়ক শাকিব খান, অপু বিশ্বাস, মাহি, পরীমনি, নুসরাত ফারিয়া, পূজা চেরিসহ দেশের জনপ্রিয় তারকাদের সিনেমা আটকে আছে। তবে আশার কথা হচ্ছে, এই মহামারির মধ্যেও প্রায় ৩০টি সিনেমার নির্মাণ কাজ চলছে। এফডিসিতে আবার শিল্পী ও কলাকুশলীদের কর্মব্যস্ততা ফিরে আসতে শুরু করেছে। কিন্তু সিনেমা মুক্তি না দিলে সব কর্মযজ্ঞই দিন শেষে শূন্য হবে বলে মনে করেন চলচ্চিত্রসংশ্লিষ্টরা। 
 

ঢাকা/রাহাত সাইফুল

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়