ঢাকা, মঙ্গলবার, ১ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৬ জুলাই ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

রক্তদাতাকে হাসপাতালে পৌঁছে দিচ্ছেন তারা

খালেদ সাইফুল্লাহ : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৭-১১ ৪:১৫:০৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৭-১১ ৪:২৭:৫১ পিএম
রক্তদাতাকে হাসপাতালে পৌঁছে দিচ্ছেন তারা
জাহাঙ্গীর আলম ও আবিদ হুসাইন
Voice Control HD Smart LED

খালেদ সাইফুল্লাহ : রক্ত দিয়ে অসুস্থ একজনকে বাঁচিয়ে তোলা সম্ভব। এজন্য রক্তদানকে বলা হয় পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ ও নিঃস্বার্থ উপহার। এখন অনেকেই স্বেচ্ছায় রক্তদানে এগিয়ে আসছেন। ফলে বেঁচে যাচ্ছে অনেক প্রাণ। সার্জারি থেকে শুরু করে নানা অসুখের জন্য রোগীর শরীরে রক্ত দেয়ার প্রয়োজন হয়। তবে এজন্য রোগীর রক্তের গ্রুপ অনুযায়ী রক্তদাতা পাওয়া সবচেয়ে কঠিন। রক্তদাতার সময়মতো হাসপাতালে পৌঁছানোটাও গুরুত্বপূর্ণ। রক্তদাতা পাওয়া গেলেও কখনো কখনো সঠিক সময়ে হাসপাতালে পৌঁছতে না পারার কারণে রোগীকে বাঁচানো যায় না।

রক্তদাতার সঠিক সময়ে হাসপাতালে পৌঁছানো নিশ্চিত করতে নতুন ধরনের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে সিলেটের দুই যুবক। রক্ত দিতে ইচ্ছুক যে কেউ তাদের ফোন দেয়ামাত্র তারা মোটরসাইকেল নিয়ে হাজির হয়ে যায়। এরপর রক্তদাতাকে নিয়ে সোজা হাসপাতাল। তবে এজন্য বাড়তি খরচ হবে না। রক্তদাতার কষ্ট লাঘব ও সঠিক সময়ে রোগীর রক্তপ্রাপ্তি নিশ্চিত করতে সিলেট মহানগরীতে স্বেচ্ছাসেবামূলক এই উদ্যোগ নিয়েছে জাহাঙ্গীর আলম ও আবিদ হুসাইন। তারা দুজনই কলেজে পড়ছেন।

সিলেট মহানগরীর এমসি কলেজের ইসলামের ইতিহাস বিভাগের মাস্টার্স-এর ছাত্র জাহাঙ্গীর আলম। তিনিই মূলত এই উদ্যোগের পথিকৃৎ। গত ৯ জুলাই তিনি ফেসবুকে একটি পোস্টের মাধ্যমে এই কাজের ঘোষণা দেন। সেখানে তিনি যোগাযোগের জন্য ব্যক্তিগত মোবাইল নম্বর দেন। এরপর থেকে প্রতিদিনই অনেকে তাকে ফোন দিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন। ফোন পেয়ে তাদের নিজের মোটর বাইকের মাধ্যমে জায়গামতো পৌঁছেও দিচ্ছেন। জাহাঙ্গীরের এই উদ্যোগের সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন আবিদ হুসাইন।

মদনমোহন কলেজের অর্থনীতি বিভাগের ৩য় বর্ষের ছাত্র আবিদ। ফেসবুকের মাধ্যমে তিনি জাহাঙ্গীরের উদ্যোগের কথা জানতে পারেন। সেখান থেকে যোগাযোগ হয় তাদের। তিনিও জাহাঙ্গীরের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করেন। ব্যক্তিগত মোটরসাইকেল থাকায় এই কাজে শামিল হতে পেরেছেন বলে জানান তিনি। ফেসবুকে নিজের মোবাইল নম্বর দিয়ে পোস্ট দেয়ায় তিনিও প্রতিদিন ডাক পাচ্ছেন।

২০১৪ সালে অনার্সে ভর্তি হওয়ার পরই ‘হৃদপিণ্ড সিলেট’ নামে একটি সংগঠন প্রতিষ্ঠা করেন জাহাঙ্গীর আলম। সংগঠনটি প্রতিষ্ঠিত হয় রক্তদাতা খুঁজে দেয়ার জন্য। শাবিপ্রবি এবং সিলেট মহানগরীর বিভিন্ন কলেজের ছাত্ররা মিলে সংগঠনটি গড়ে তোলেন। এ পর্যন্ত ২৩৫০ জনেরও বেশি রক্তদাতা জোগাড় করে দিয়েছেন তারা।

জাহাঙ্গীর বলেন, ‘রক্তদাতা সংগ্রহ করতে গিয়ে দেখেছি- রক্ত দেয়ার ইচ্ছা থাকলেও যাতায়াত সমস্যার কারণে অনেকে রক্ত দিতে রাজি হন না। বিষয়টি মাথায় রেখে রক্তদাতাদের বিনামূল্যে হাসপাতালে পৌঁছে দেয়ার জন্যই আমরা মোটরসাইকেল সেবার ব্যবস্থা করেছি। ফেসবুকের মাধ্যমে আমরা সবাইকে উৎসাহিত করছি এই ধরনের সেবা দেয়ার।’

জাহাঙ্গীর-আবিদের সঙ্গে জাবেদ ও রাহিন নামের আরো দুজন যুক্ত হয়েছেন। তবে এখনই কোনো সাংগঠনিক কাঠামো তৈরি করছেন না বলে জানান জাহাঙ্গীর। কিন্তু তাদের মতো করে দেশের সব জায়গায় এ ধরনের সেবা দেয়া গেলে রক্তদানে মানুষ আরো বেশি উদ্বুদ্ধ হতো বলেও জানান তিনি।

তাদের এই সেবা পাওয়া যাবে সকাল ১১টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত সিলেট মহানগরীর মধ্যে যেকোনো জায়গায়। ব্যক্তিগত জরুরি কাজ থাকলে তারা এই সেবাটি দিতে অপারগ হবেন বলে জানান আবিদ হুসাইন। সিলেট মহানগরীর মধ্যে রক্তদাতাকে হাসপাতালে পৌঁছানোর জন্য জাহাঙ্গীর ও আবিদকে পাওয়া যাবে যথাক্রমে ০১৭২৮৩৪২৮৭৯ ও ০১৭৮৮৫২৬১১৪ নম্বরে।


রাইজিংবিডি/ঢাকা/১১ জুলাই ২০১৯/ফিরোজ/তারা

Walton AC
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       

Walton AC
Marcel Fridge