RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     রোববার   ১৭ জানুয়ারি ২০২১ ||  মাঘ ৩ ১৪২৭ ||  ০২ জমাদিউস সানি ১৪৪২

অবসরপ্রাপ্ত কর্নেলসহ ৪ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৩:৪৪, ১০ নভেম্বর ২০২০  
অবসরপ্রাপ্ত কর্নেলসহ ৪ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

অস্ত্র আইনের মামলায় অবসরপ্রাপ্ত কর্নেল শহিদ উদ্দিন চৌধুরীসহ চার জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার (১০ নভেম্বর) ঢাকার তৃতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ রবিউল আলমের আদালত এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত অপর তিন জন হলেন, কর্নেল শহিদ উদ্দিন চৌধুরীর স্ত্রী মিসেস ফারজানা আনজুম খান, সৈয়দ আকিদুল আলী ও খোরশেদ আলম পাটওয়ারী।

আকিদুল আলী ও খোরশেদ আলমকে রায় ঘোষণার আগে আদালতে হাজির করা হয়। রায় ঘোষণার পর সাজা পরোয়ানা দিয়ে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

কর্নেল শহিদ উদ্দিন চৌধুরী ও তার স্ত্রী মিসেস ফারজানা আনজুম খান পলাতক রয়েছেন। আদালত তাদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানাসহ সাজা পরোয়ানা ইস্যু করেছেন। জহুরুল হক খন্দকার মারা যাওয়ায় তাকে মামলার দায় থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর মোহাম্মাদ সালাহউদ্দিন হাওলাদার সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, শহিদ উদ্দিন চৌধুরীর স্ত্রীর নামে ক্যান্টনমেন্ট থানাধীন বারিধারার একটি বাসা থেকে দীর্ঘদিন সরকার ও রাষ্ট্রবিরোধী কার্যকলাপ পরিচালনা করা হচ্ছিলো। গত বছর ১৭ জানুয়ারি ওই বাসায় অভিযান চালিয়ে ৫ রাউন্ড গুলি ভর্তি ম্যাগাজিনসহ একটি পিস্তল, ৬ রাউন্ড গুলি ভর্তি ম্যাগাজিনসহ আরকেটি পিস্তল, একটি শর্টগান, দুই রাউন্ড কার্তুজ ও শর্টগানের দুইটি ম্যাগাজিন উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের ফেইক কারেন্সি নোট টিমের পুলিশ পরিদর্শক (নি.) বিপ্লব কিশোর শীল ওই দিনই ক্যান্টনমেন্ট থানায় মামলা করেন। মামলাটি তদন্ত করে একই বিভাগের উপপুলিশ পরিদর্শক জহুরুল হক পাঁচ জনের বিরুদ্ধে গত বছরের ৪ এপ্রিল আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। গত বছর ১৩ আগস্ট আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জগঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেন আদালত। মামলাটির বিচার চলাকালে আদালত চার্জশিটভুক্ত ২১ জন সাক্ষীর মধ্যে নয়জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেন।

ঢাকা/মামুন/ইভা 

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়