Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ১১ মে ২০২১ ||  বৈশাখ ২৮ ১৪২৮ ||  ২৮ রমজান ১৪৪২

বাবার ব‌্যবসা দখল করতে…

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:২৮, ১৬ এপ্রিল ২০২১   আপডেট: ২২:২৯, ১৬ এপ্রিল ২০২১
বাবার ব‌্যবসা দখল করতে…

ব‌্যবসা দখল করতে এক ব‌্যক্তি তার বাবাকে জোর করে মানসিক হাসপাতালে ভর্তি করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। হাসপাতাল থেকে ওই ব‌্যবসায়ীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। ১৫ দিন আগে প্রথম স্ত্রীর সন্তান ও তার সহযোগীরা ওই ব‌্যবসায়ীকে অপহরণ করে।  

শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) বিকেলে পুলিশ সদর দপ্তরের জনসংযোগ বিভাগ থেকে এসব তথ‌্য জানানো হয়েছে।

পুলিশ জানায়, পাবনা থেকে এক নারী পুলিশের মিডিয়া অ‌্যান্ড পাবলিক রিলেশন উইং পরিচালিত ‘বাংলাদেশ পুলিশ ফেসবুক পেজ’ এর ইনবক্সে জানান, তার বাবা পাবনার প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী। তাকে তার প্রথম স্ত্রীর সন্তান কিছু দুষ্কৃতকারীর সহযোগিতায় ১৫ দিন আগে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে গেছে। প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে তার বহু বছর আগে বিচ্ছেদ হয়েছে। আগের স্ত্রীর সন্তানকে তিনি পর্যাপ্ত পরিমাণ অর্থ দিচ্ছিলেন। তবু, সেই ছেলে বাবার ব্যবসা দখলের পাঁয়তারা করছে। এক সুযোগে কিছু দুষ্কৃতকারীর সহযোগিতায় বাবাকে পথ থেকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে গেছে। পরে গোপনে বাবাকে ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে মানসিক রোগী হিসেবে ভর্তি করে রেখে তার ব্যবসা দখল করেছে।

পুলিশ আরও জানায়, অপহৃত ব্যবসায়ীর দ্বিতীয় স্ত্রী ও পরিবার তার কোনো খোঁজ না পেয়ে পুলিশের শরণাপন্ন হয়। এক পর্যায়ে তারা পুলিশের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে বার্তা পাঠিয়ে সহযোগিতা চায়। বার্তাটি দেখার পরপরই মিডিয়া অ‌্যান্ড পাবলিক রিলেশন উইং ভুক্তভোগীর পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করে বিস্তারিত তথ‌্য জেনে নেয়। এ বিষয়ে দ্রুত ব‌্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্ট থানাকে নির্দেশ দেওয়া হয়। পাশাপাশি পাবনা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মাসুদ আলমকে এ বিষয়ে তদারকির দায়িত্ব দেওয়া হয়। মাসুদ আলম পুলিশ সুপারের সঙ্গে পরামর্শ করে এ বিষয়ে দ্রুত পদক্ষেপ নেন। তদন্ত কর্মকর্তা মো. তরিকুল ইসলামের সঙ্গেও যোগাযোগ রাখছিল পুলিশের মিডিয়া উইং। অবশেষে পাবনা জেলা পুলিশের তৎপরতায় স্বল্পতম সময়ে ওই ব্যবসায়ীর অবস্থান শনাক্ত করা সম্ভব হয়। শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) তদন্ত কর্মকর্তা এসআই মো. তরিকুল ইসলামের নেতৃত্বে ঢাকার বসিলায় অবস্থিত একটি মানসিক হাসপাতাল ও রিহ্যাব সেন্টার থেকে ওই ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করা হয়।

ওই ব্যবসায়ীর সামাজিক অবস্থান বিবেচনায় তার নাম-পরিচয় প্রকাশে অপারগতা প্রকাশ করেছে পুলিশ।

ঢাকা/মাকসুদ/রফিক

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়