ঢাকা     শনিবার   ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||  মাঘ ২১ ১৪২৯

দুধ দিয়ে গোসলে ‘কলঙ্ক’ দূর!

মুজাহিদ বিল্লাহ || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৩:২৮, ৮ অক্টোবর ২০২২   আপডেট: ১২:৩৩, ১০ অক্টোবর ২০২২
দুধ দিয়ে গোসলে ‘কলঙ্ক’ দূর!

কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটিতে পদ না-পেয়ে দুধ দিয়ে গোসল করে রাজনীতির ইতি টেনেছেন ছাত্রলীগ নেতা মো. আরমিন আহমেদ। সম্প্রতি দুধ দিয়ে গোসল করার একটি ভিডিও ফেইসবুকে পোস্ট করলে ভিডিওটি ভাইরাল হয়। আরমিনের ভাষ্য এর মাধ্যমে তিনি ‘কলঙ্কমুক্ত’ হতে চেয়েছেন।

দুধ দিয়ে গোসল করে পাপ ধুয়ে ফেলার চেষ্টা, প্রায়শ্চিত্ত করা, পবিত্র হওয়া বা আরমিনের মতো অনেকেই কলঙ্কমুক্ত হতে চান। তারেক মাসুদের ‘রানওয়ে’র শেষ দৃশ্যেও এমন একটি চিত্র দর্শক দেখতে পান। ভারতীয় উপমহাদেশে দুধ দিয়ে গোসল করে পবিত্র হওয়ার ধারণা অনেক আগে থেকেই রয়েছে। যদিও এর স্বপক্ষে বিজ্ঞানভিত্তিক কোনো তথ্য নেই। তবে হ্যাঁ, দুগ্ধস্নানে কলঙ্কমুক্ত হওয়া না-গেলেও এর স্বাস্থ্যগত কিছু উপকারিতার কথা জানা যায়। 

পড়ুন: অভিমানে দুধ দিয়ে গোসল করে রাজনীতির ইতি টানলেন ছাত্রলীগ নেতা 

প্রাচীন যুগের সম্ভ্রান্ত ব্যক্তিরা বিশেষ করে রোমানরা ত্বক কোমল রাখতে নিয়মিত দুধ দিয়ে গোসল করতেন। অর্থাৎ বিষয়টির সঙ্গে সৌন্দর্যের যোগ রয়েছে। মিশরের রানি ক্লিওপেট্রার রূপচর্চার বিষয়টি অনেকেই জানেন। কথিত আছে তিনি কুসুম গরম গোসলের পানিতে দুধ মিশিয়ে নিতেন। ডাবের পানি দিয়ে গোসলের কথাও জানা যায়। এ ছাড়া গত শতাব্দীতে অনেক আমেরিকান বাটারমিল্কে মুখ ধুতেন।

শুধু সৌন্দর্য বৃদ্ধি নয়, ত্বকের উপকারে পানিতে দুধ মিশিয়ে গোসল অপরিচিত কোনো বিষয় নয়। অর্থাৎ কলঙ্কমুক্ত না-হলেও দুধ দিয়ে গোসলের রয়েছে কিছু উপকারিতা। এ প্রসঙ্গে রাইজিংবিডির সঙ্গে কথা বলেছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের পুষ্টিবিদ জাহানারা আক্তার সুমি।

তিনি জানান, দুধ দিয়ে গোসল করা খুব বেশি প্রচলিত না হলেও অনেকেই ত্বক সুস্থ এবং সুন্দর রাখার জন্য নিয়মিত পানিতে দুধ মিশিয়ে গোসল করেন। এতে ত্বক অনেক বেশি হাইড্রেট থাকে। ফলে ত্বক ময়শ্চার ধরে রাখতে পারে যা সুন্দর এবং সুস্থ ত্বকের জন্য সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। এ ছাড়া দুধ এক্সফলিয়েটের কাজ করে এবং ত্বকের বিভিন্ন ধরনের ইনফ্লামেশন ও ড্যামেজ প্রতিহত করে। 

সুমি আরও বলেন, দুধের মধ্যে রয়েছে পাঁচটি বিশেষ উপাদান যা ত্বকের জন্য খুব উপকারী। যেমন প্রোটিন, ফ্যাট, ভিটামিনস, মিনারেলস এবং ল্যাকটিক অ্যাসিড। ফ্যাট ত্বক নরম করে এবং ভিটামিন ও  মিনারেলস ত্বকের বিভিন্ন রোগ ও ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করে। দুধের আলফা হাইড্রক্সিক এসিড ও লেকটিক এসিড মৃত কোষ দূর করে এবং কোলাজেনের পরিমান বাড়িয়ে দেয়। 

এই পুষ্টিবিদ আরও জানান, সান বার্ন বা ত্বকের অন্যান্য রোগ যেমন একজিমা, সোরিয়াসিস, চুলকানি প্রতিহত করতে দুধ দিয়ে গোসলে ভালো ফল পাওয়া যায়। শিশুদের জন্যও দুধ দিয়ে গোসল অনেক উপকারী। বিভিন্ন কেমিকেল দিয়ে তৈরি সাবান শ্যম্পু অনেক ক্ষেত্রে শিশুর জন্য ক্ষতিকর। তাই প্রাকৃতিক উপাদান দুধ দিয়ে গোসল শিশুকে ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা থেকে রক্ষা করে। 

তবে দুধ দিয়ে গোসল সবার জন্য উপকারী নাও হতে পারে উল্লেখ করে সুমি বলেন, যাদের ত্বক খুব স্পর্শকাতর তারা এর ফলে অ্যালার্জিতে ভুগতে পারেন। এ কারণে দুধ দিয়ে গোসল করতে চাইলে আগে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। 

/তারা/ 

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়