ঢাকা, শুক্রবার, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

মেসির সতীর্থরা তখন কে কোথায় ছিলেন?

ক্রীড়া ডেস্ক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১২-০৩ ৭:১২:২২ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১২-০৩ ১০:৩২:৩৭ পিএম

১ ডিসেম্বর, ২০০৯; লিওনেল মেসি প্রথমবারের মতো জিতেছিলেন ব্যালন ডি’অর।

২ ডিসেম্বর, ২০১৯; মেসি জিতলেন তার ষষ্ঠ ব্যালন ডি’অর। বার্সেলোনা তারকা বর্ষসেরার পুরস্কারটা প্রথমবার জেতার সময় তার বর্তমান সতীর্থরা কে কোথায় ছিলেন?

মার্ক-আন্দ্রে টের স্টেগেন: বার্সেলোনার জার্মান গোলরক্ষকের বয়স ছিল তখন ১৭ বছর। ছিলেন স্বদেশী ক্লাব বরুসিয়া মনশেনগ্লাডবাখের যুব দলে, যেখানে তিনি যোগ দেন ১৯৯৬ সালে।

নেতো: পেশাদার খেলোয়াড় হিসেবে সেটা ছিল তার প্রথম মৌসুম। দুই বছর পর ব্রাজিলিয়ান এই গোলরক্ষক যোগ দেন ফিওরেন্তিনাতে।

ক্লেমেন্ট লংলে: ফরাসি ডিফেন্ডারের বয়স ছিল তখন মাত্র ১৪, খেলতেন ফ্রান্সের ষষ্ঠ বিভাগের একটি দলের একাডেমিতে।

স্যামুয়েল উমতিতি: ফরাসি ডিফেন্ডার তখন লিঁওর যুব দলে ছিলেন, বয়স ছিল ১৬ বছর।

জেরার্ড পিকে: বার্সেলোনা দলে ততদিনে তিনি দেড় বছর কাটিয়ে দিয়েছেন। স্প্যানিশ ডিফেন্ডারের বয়স ছিল তখন ২২।

ক্লাইর তদিবো: ফরাসি ডিফেন্ডারের বয়স তখন মাত্র ৯ বছর। ছিলেন ফ্রান্সের পঞ্চম বিভাগের ক্লাব লেস লিয়াসের যুব দলে।

জরদি আলবা: স্প্যানিশ লেফট-ব্যাক তখন ভ্যালেন্সিয়ার হয়ে এক বছর কাটিয়েছেন সবে।

জুনিয়র ফিরপো: তখন তিনি পরিবারের সঙ্গেই থাকতেন। তখনো রিয়াল বেতিসে যোগ দেননি। বয়স ছিল ১৩ বছর।

নেলসন সেমেদো: তখন তার বয়স ছিল ১৬, ছিলেন পর্তুগালের তৃতীয় বিভাগের ক্লাব সিনট্রেন্সের যুব দলে।

সার্জিও বুসকেটস: স্প্যানিশ মিডফিল্ডারের বয়স তখন ২১। ততদিনে তিনি বার্সেলোনার হয়ে দেড় মৌসুম কাটিয়ে দিয়েছেন।

ফ্র্যাঙ্কি ডি ইয়ং: ডাচ মিডফিল্ডারের বয়স তখন মাত্র ১২। ছিলেন এএসভি আর্কেলে, তার জন্ম শহরে।

আর্থার মেলো: ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার তখন কেবল ১৩ বছরে পা দিয়েছেন।

সার্জিও রবার্তো: যুব দল ছেড়ে স্প্যানিশ ফুল-ব্যাক তখন বার্সেলোনা ‘বি’ দলে।

ইভান রাকিটিচ: ক্রোয়াট মিডফিল্ডার তখন শালকে ০৪-এ খেলতেন, বয়স ছিল ২১।

কার্লেস অ্যারেনা: তখনো তিনি প্রাইমারি স্কুলে পড়তেন। বয়স ১১। ছিলেন বার্সার একাডেমি লা মাসিয়ায়।

আরতুরো ভিদাল: চিলিয়ান মিডফিল্ডার তখন জার্মান ক্লাব বায়ের লেভারকুসেনে খেলতেন।  

উসমান ডেম্বেলে: ফরাসি ফরোয়ার্ডের বয়স তখন ১২। খেলতেন ফ্রান্সের পঞ্চম বিভাগের একটি ক্লাবের যুব দলে। 

আনসু ফাতি: তার বয়স ছিল তখন মাত্র ৭ বছর। হ্যাঁ, সত্যিই ৭।

আঁতোয়ান গ্রিজমান: ফরাসি ফরোয়ার্ড খেলতেন তখন রিয়াল সোসিয়েদাদে। বয়স ছিল ১৮।

লুইস সুয়ারেজ: উরুগুইয়ান স্ট্রাইকারের বয়স তখন ২২। খেলতেন ডাচ ক্লাব আয়াক্সে।


ঢাকা/পরাগ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন