ঢাকা     রোববার   ১৬ জানুয়ারি ২০২২ ||  মাঘ ২ ১৪২৮ ||  ১২ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

ভবিষ্যৎ সাকিবদের ঠিকানা যেখানে…

ইয়াসিন হাসান || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১২:১৪, ২ জানুয়ারি ২০২১   আপডেট: ২২:১৬, ২ জানুয়ারি ২০২১

‘ড্রিম ডু কাম ট্রু’- গত বছরের ২১ নভেম্বর নিজের ফেসবুকে ১৩ সেকেন্ডের ভিডিও দিয়েছিলেন সাকিব আল হাসান। স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছিল নিজের একাডেমির স্বপ্ন পূরণের পথে।

সত্যিই তাই। নতুন বছরে সাকিব উপহার দিতে যাচ্ছেন, ‘মাস্কো সাকিব ক্রিকেট একাডেমি।’ পূর্বাচলে কাঞ্চন ব্রিজ পার হলেই পূর্ব পাশে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে সাকিবের স্বপ্নের প্রকল্প। এরই মধ্যে কাঞ্চন ব্রিজের আশেপাশে ‘সাকিবের স্টেডিয়াম’ নামে জায়গাটি পরিচিতি পেয়েছে এটি।

মাস্কো গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় সাকিবের তত্ত্বাবধানে রাজধানীর অদূরে গড়ে উঠছে সাকিবের একাডেমি। একাডেমির প্রস্তাব মাস্কো গ্রুপের কাছে নিয়ে গিয়েছিলেন সাকিব নিজে। মাস্কো গ্রুপের চেয়ারম্যান এম এ সবর বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের থেকে এমন প্রস্তাব পাওয়ার পর দ্বিতীয়বার চিন্তা করেননি। ‘মাস্কো সাকিব ক্রিকেট একাডেমি’র যাত্রা সেখানেই।

আসছে ফেব্রুয়ারিতে একাডেমি উদ্বোধনের চিন্তা থাকলেও সবকিছু ঠিকঠাক করতে লাগবে আরও এক মাস। সেজন্য উদ্বোধনের জন্য বেছে নেওয়া হয়েছে স্বাধীনতার মাস। প্রকল্পের সঙ্গে সংযুক্তরা জানালেন, মার্চের প্রথম দিন থেকে ব্যাট-বলের ঠুকঠাক শব্দে মুখরিত হয়ে থাকবে সাকিবের একাডেমি।

সাকিবের এই একাডেমিতে প্রধান কোচ হিসেবে যুক্ত হবেন তার-ই শৈশব গুরু মোহাম্মদ সালাউদ্দিন। তিনি নিয়মিত প্রকল্পস্থানে গিয়ে কাজের তদারকি করছেন। সাকিবের একাডেমিতে নিয়মিত ঢুঁ মারছেন ক্রিকেটাররাও। রাইজিংবিডির পরিদর্শনকালে এনামুল হক বিজয়কে দেখা গিয়েছে।

১৬ বিঘা জমির উপর তৈরি করা হয়েছে সাকিবের একাডেমি। ১২ হাজার স্কয়ার ফুটের জায়গায় রয়েছে অনুশীলনের সুযোগসুবিধা। সবুজের আচ্ছাদনে রয়েছে একটি মাঠ। সেন্ট্রাল উইকেটে উইকেট আছে ছয়টি। এছাড়া ইনডোর ও আউটডোর মিলে পুরো একাডেমিতে উইকেট আছে ১৯টি। মাঠ ও উইকেট রক্ষণাবেক্ষণের জন্য বিসিবির প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত কিউরেটর ও গ্রাউন্ডসম্যান নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

আধুনিক সব সুযোগ সুবিধা রয়েছে সাকিবের একাডেমিতে। ইনডোর ও আউটডোরে রাত দিন অনুশীলন করা যাবে সেখানে। কৃত্রিম আলোয় অনুশীলন করতে শক্তিশালী ফ্লাডলাইটের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। ইনডোরের বোলিং মেশিন আসছে ইংল্যান্ড থেকে। এছাড়া শীতাতপ নিয়ন্ত্রণের ব্যবস্থাও রাখা হয়েছে। একাডেমিতে আবাসিক ও ডে কেয়ার সুবিধাও রয়েছে। একাডেমি চত্বরের ভেতরেই একটি তিনতলা ও একটি পাঁচতলা বিল্ডিং করা হয়েছে। রয়েছে দুইটি ড্রেসিংরুম, ওয়াকিং এরিয়াসহ বিশ্রামাগার, জিমনেশিয়াম ও ক্যাফেটেরিয়ার ব্যবস্থা।

২২ গজে ব্যাট-বলের মুগ্ধতায় ছড়ানো সাকিব পূরণ করেছেন লাখো-কোটি মানুষের স্বপ্ন। এবার তার স্বপ্ন পূরণের পথে। ক্রিকেটার হতে মাগুড়ার ছেলেটি গিয়েছিলেন বিকেএসপিতে। ভবিষ্যত সাকিবদের ঠিকানা মাস্কো সাকিব ক্রিকেট একাডেমি।

ঢাকা/ইয়াসিন/ফাহিম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়