Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     রোববার   ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ||  ফাল্গুন ১৫ ১৪২৭ ||  ১৫ রজব ১৪৪২

ম্যাচ পাতানোর চেষ্টায় দোষী সাব্যস্ত আমিরাতের দুই ক্রিকেটার

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:০৩, ২৬ জানুয়ারি ২০২১  
ম্যাচ পাতানোর চেষ্টায় দোষী সাব্যস্ত আমিরাতের দুই ক্রিকেটার

নাভীদ ও আনোয়ার

২০১৯ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বাছাই পর্ব চলাকালে ম্যাচ পাতানোর চেষ্টায় সংযুক্ত আরব আমিরাতের খেলোয়াড় মোহাম্মদ নাভীদ ও শাইমান আনোয়ারকে দোষী সাব্যস্ত করেছে আইসিসি। একটি স্বতন্ত্র দুর্নীতিবিরোধী ট্রাইব্যুনালের শুনানি শেষে এই রায় দেওয়া হয়েছে।

আইসিসি এক বিবৃতিতে দুই খেলোয়াড়ের নিষেধাজ্ঞা বহাল রাখার ঘোষণা দিয়েছে। তাদের কী শাস্তি দেওয়া হবে তা পরে জানানো হবে বলেছে বিশ্ব ক্রিকেট নিয়ন্তা সংস্থা। আমিরাতের সবচেয়ে অভিজ্ঞ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার নাভীদ ও আনোয়ার। ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি মিলে দেশের শীর্ষ রান সংগ্রাহক ৪১ বছর বয়সী আনোয়ার। ৩৩ বছর বয়সী নাভীদ দেশের শীর্ষ উইকেট শিকারি এবং সাবেক অধিনায়ক।

২০১৯ সালের অক্টোবরে আইসিসির দুর্নীতিবিরোধী আচরণবিধির অধীনে অভিযুক্ত হন নাভীদ ও আনোয়ার। আমিরাতে বাছাই শুরুর কদিন আগে বহিষ্কৃত হন তারা। ওই সময় নাভীদ জাতীয় দলের অধিনায়ক ছিলেন, পরে দায়িত্ব ছেড়ে দেন।

আইসিসির দুর্নীতিবিরোধী আচরণবিধির ২.১.১ ও ২.৪.৪ অনুচ্ছেদ লংঘন করেছেন দুজনই। নাভীদের বিরুদ্ধে একই বছরের টি টেন লিগেও একই আচরণবিধি ভাঙার অভিযোগ আনা হয়েছিল এবং তাতেও দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন।

জানা গেছে, বাছাই পর্বের ম্যাচগুলোর ফল পাল্টানোর জন্য প্রায় ২ লাখ ৭২ হাজার ডলারের প্রস্তাব করা হয়েছিল। ২০১৯ সালের অক্টোবরে নাভীদ স্বীকার করেন, টি টেন টুর্নামেন্ট চলাকালে জুয়ারিদের কুপ্রস্তাব রিপোর্ট করতে ব্যর্থ হয়েছিলেন। তবে পরে দাবি করেন, যখন তিনি বুঝতে পেরেছিলেন যে প্রস্তাবকারী একজন ফিক্সার তখন তার সঙ্গে আর যোগাযোগ রাখেননি।

ঢাকা/ফাহিম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়