Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     রোববার   ২৮ নভেম্বর ২০২১ ||  অগ্রহায়ণ ১৪ ১৪২৮ ||  ২১ রবিউস সানি ১৪৪৩

সিরিজ জিতে বিশ্বকাপ সুপার লিগের শীর্ষে বাংলাদেশ

সাইফুল ইসলাম রিয়াদ || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১২:৩৬, ২৫ মে ২০২১   আপডেট: ২২:০১, ২৫ মে ২০২১
সিরিজ জিতে বিশ্বকাপ সুপার লিগের শীর্ষে বাংলাদেশ

শ্রীলঙ্কাকে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে বৃষ্টি আইনে ১০৩ রানে হারিয়ে ১ ম্যাচ বাকি থাকতেই সিরিজ নিশ্চিত করে বাংলাদেশ। প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ জিতে ৩৩ রানে।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে নবম সিরিজে এসে ইতিহাস গড়েছে বাংলাদেশ। এর আগে ৮টি সিরিজ খেলে ১টিতেও জেতেনি লাল সবুজের দল। দুটি সিরিজে ড্র হয়েছিল; আর বাকি ৬টিতে শ্রীলঙ্কা জেতে। এবার ঘরের মাঠে লঙ্কাবধ করেছে তামিম ইকবালের দল।

এ ছাড়া বাংলাদেশ উঠে এসেছে ওয়ানডে সুপার লিগের শীর্ষে। ৮  ম্যাচে ৫ জয়ে ৫০ পয়েন্ট নিয়ে বাংলাদেশের অবস্থান এখন প্রমথ স্থানে। এই ম্যাচের আগে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল চতুর্থ স্থানে। অস্ট্রেলিয়া-পাকিস্তান-ইংল্যান্ডকে টপকে শীর্ষে ওঠে বাংলাদেশ। এই তিন দলের প্রত্যেকটির পয়েন্ট ৪০ করে।

ব্যাট হাতে প্রথম ম্যাচের মতো এই ম্যাচেও বাংলাদেশের নায়ক মুশফিক। তার ক্যারিয়ারের অষ্টম সেঞ্চুরিতে ভর করে বাংলাদেশ ১০ উইকেট হারিয়ে ২৪৬ রান করে। মোস্তাফিজ-মিরাজ নেন সর্বোচ্চ ৩ উইকেট করে।

স্কোর:  শ্রীলঙ্কা ৪০ ওভারে ১৪১/৯ (সামিরা ৪*, উদানা ১৮*) বাংলাদেশ ২৪৬/১০

৯টা ৫০ মিনিটে খেলা শুরু, ২ ওভারে শ্রীলঙ্কার প্রয়োজন ১১৯

প্রায় ৪৫ মিনিট বন্ধ থাকার পর ৯টা ৫০ মিনিটে মাঠে আবার খেলা মাঠে গড়াবে। আর মাত্র ২ ওভার খেলা হবে। এই ২ ওভারে শ্রীলঙ্কাকে করতে হবে ১১৯ রান। বৃষ্টি আইনে শ্রীলঙ্কার সামনে লক্ষ্য দাঁড়িয়েছে ৩০ ওভারে ২৪৫ রান। এর আগে ৩৮ ওভারে সফরকারীরা ১২৬ রান করে। তাই বাকি ২ ওভারে করতে হবে ১১৯ রান।

খেলা না হলে বৃষ্টি আইনে ১০৮ রানে জিতবে বাংলাদেশ

৩৮ ওভার খেলা শেষে হঠাৎ করে বৃষ্টি নামে শের-ই বাংলায়। পিচ ঢেকে রাখা হয়েছে কাভারে। বন্ধ রয়েছে খেলা। ৯টা ৪০ এর মধ্যে খেলা শুরু না হলে বৃষ্টি আইনে বাংলাদেশ ১০৮ রানে জিতবে।

মোস্তাফিজের জোড়া আঘাত

দ্বিতীয় উইকেটের দেখা পেলেন মোস্তাফিজুর রহমান। তার আউট সাইড অফের বল মিডঅফে তুলে দেন বান্দারা; সহজ ক্যাচ লুপে নিতে ভুল করেননি মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। এক ওভার পরেই মোস্তাফিজ আবার আঘাত হানেন। এবার তার বলে সান্দাকান মিড অনে ক্যাচ তুলে দেন; লুফে নেন তামিম।

সেই হাসারাঙ্গাকে বোল্ড করে ফেরালেন মিরাজ

মিরাজের করা এর আগের বলে ডিপ মিডউইকেটে হাসারাঙ্গার ক্যাচ ফেলেন আফিফ। জীবন পেয়েও আগের ম্যাচের মতো বাংলাদেশকে ভোগাতে পারেননি।  পরের বলেই বোল্ড হয়ে ফেরেন সাজঘরে। আউট হওয়ার আগে হাসারাঙ্গার ব্যাট থেকে আসে ৬ রান। এ নিয়ে মিরাজ ৩ উইকেট নিলেন।

সাকিব-মিরাজের ঘূর্ণিতে দিশেহারা শ্রীলঙ্কা

লঙ্কানদের একের পর এক উইকেট তুলে নিচ্ছেন সাকিব আল হাসান ও মেহেদী হাসান মিরাজ। দুজনের এখন পর্যন্ত নিয়েছেন ৪ উইকেট। সাকিবের আঘাতের পর মিরাজ এবার পকেটে পুরলেন তার দ্বিতীয় উইকেট। মিরাজের বলে সুইপ করতে চেয়েছিলেন; কিন্তু বল ব্যাটে ঠিকমতো লাগেনি। মিডঅনে ক্যাচ ধরেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। আউট হওয়ার আগে শানাকার ব্যাট থেকে আসে ১৯ বলে ১১ রান।

মাশরাফিকে ছুঁলেন সাকিব

ওয়ানডে ক্রিকেটে উইকেট সংখ্যায় বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজাকে ছুঁলেন সাকিব আল হাসান। ওয়ানডেতে ২১০ ম্যাচে মাশরাফির উইকেট ২৭০টি। তার মধ্যে ১টি নিয়েছিলেন এশিয়া একাদশের হয়ে; আর বাকি ২৬৯টি বাংলাদেশের হয়ে। অন্যদিকে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ২ উইকেট নিয়ে ২১১ ম্যাচে ২৬৯ উইকেট স্পর্শ করেন সাকিব। আরেকটি উইকেট নিলেই ছাড়িয়ে যাবেন মাশরাফিকে।

আবারও সাকিবের আঘাত

যাদুকরী ঘূর্ণিতে এবার ধনাঞ্জয়া ডি সিলভাকে সাজঘরে পাঠালেন সাকিব আল হাসান। এলবিডব্লিউ হয়ে আউট হওয়ার আগে মাত্র ৬ রান করেন ধনাঞ্জয়া।  সাকিবের ফ্ল্যাটার ডেলিভারি ব্যাকফুটে গিয়ে খেলতে চেয়েছিলেন ধনাঞ্জয়া; কিন্তু বল ব্যাট মিস করে লাগে পায়ে। নিখুঁত এলবি হওয়াতে রিভিউর আবেদনও করেননি এই ব্যাটসম্যান। এর আগে সাকিব নিয়েছিলেন পাথুম নিসানকার উইকেট।

সাকিবের পর মিরাজের আঘাত

সাকিব ফিরিয়েছিলেন ক্রিজে থিতু হওয়া পাথুম নিসানকাকে। এর দুই ওভার না যেতেই আঘাত হানেন মিরাজ। তিনি কুশল মেন্ডিসকে এলবিডব্লিউ করে পাঠান সাজঘরে। মেন্ডিস রিভিউ নিয়েছিলেন কিন্তু কোনো লাভ হয়নি।

সাকিবের ঘূর্ণিতে কুপোকাত নিসানকা

সাকিবের অফ কুইকারে কুপোকাত পাথুম নিসানকা।  পুল করতে চেয়েছিলেন কিন্তু বলের গতি একটি বেশি হওয়াতে পরাস্ত হন। মিডউইকেটে উলটো দৌড়ে তামিমের দারুণ ক্যাচে ২০ রান করে নিসানকা ফেরেন সাজঘরে।

স্বস্তি এনে দিলেন মোস্তাফিজ

লঙ্কান শিবিরে প্রথম আঘাত হেনেছিলেন অভিষিক্ত শরিফুল ইসলাম। এরপর ঘুরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত দিচ্ছিলেন গুনাথিকালাকা-নিসানকা। তাদের ২৯ রানের জুটি ভেঙে স্বস্তি এনে দিইয়েছেন মোস্তাফিজ। ২ চারে ৪৬ বলে ২৪ রান করে আউট হয়ে সাজঘরে ফেরেন। মোস্তাফিজের আউটসাইড অফের বল ডিপ অনে স্কয়ার কাট করেছিলেন; সেখানে একমাত্র ফিল্ডার সাকিব দারুণ দক্ষতায় বল তালুবন্দি করেন।

 

শরিফুলের অভিষেক শিকার পেরেরা

ইনিংসের শুরুতে শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক কুশল পেরেরাকে সাজঘরে পাঠান শরিফুল ইসলাম। এটি তার ক্যারিয়ারের অভিষেক উইকেট। আউট হওয়ার আগে পেরেরার ব্যাট থেকে ১৪ রান করেন ১৫ বলে। মাংলাদেশের ১৩৬তম ওয়ানডে ক্রিকেটার হিসেবে শরিফুলের অভিষেক হয়। তাকে ক্যাপ পরিয়ে দেন মোস্তাফিজুর রহমান। তাসকিন আহমেদের পরিবর্তে তিনি দলে সুযোগ পেয়েছেন।

সাইফ হাসপাতালে, তাসকিন কনকাশন সাব

হেলমেটে আঘাত পাওয়া সাইফ উদ্দিনকে এভারকেয়ার হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। তার বদলি হিসেবে কনকাশন সাব হয়েছেন তাসকিন আহমেদ। সন্ধ্যা ছয়টায় বিসিবি কার্যালয়ের সামনে একটি অ্যাম্বুলেন্স দাঁড়ায়। এর ১০ মিনিট পরই সাইফকে নিয়ে বের হয়ে যায় অ্যাম্বুলেন্স।

মুশফিকের সেঞ্চুরিতে ২৪৭ রানের লক্ষ্য দিলো বাংলাদেশ

ক্যারিয়ারের ৮ম সেঞ্চুরির পর মুশফিক হাত খুলে খেলা শুরু করেন। ঝড় তোলেন শের-ই বাংলায়। সেঞ্চুরি করতে হাঁকিয়েছিলেন ৬টি চার; সেঞ্চুরির পর এখন পর্যন্ত ১২৫ রানের মধ্যে হাঁকান ৪টি চার। এরপর আর এগোতে পারেননি। পয়েন্টে বান্দারার হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন সাজঘরে। তার ইনিংসে ভর করে বাংলাদেশ ১০ উইকেট হারিয়ে ২৪৬ রান করে। তামিম-সাকিব বাদে মুশফিক সবার সঙ্গেই জুটি গড়েন। সর্বোচ্চ মাহমুদউল্লাহর সঙ্গে ৮৭ রানের জুটি। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৪৮ রান আসে সাইফউদ্দিনের সঙ্গে জুটিতে। মাঝে দুবার বাগড়া দেয় বৃষ্টি। শঙ্কা জাগে মুশফিকের সেঞ্চুরি নিয়ে। শেষ পর্যন্ত চার মেরে  শঙ্কা কাটিয়ে হাঁকান সেঞ্চুরি। মুশফিক ছাড়া বাংলাদেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান আসে মাহমুদউল্লাহর ব্যাট থেকে। তিনি ৪১ রান করেন।

অভিষেকে শরিফুলের শূন্য!

১৩৬ তম ক্রিকেটার হিসেমে শরিফুল ইসলামের অভিষেক হলো। তবে ব্যাট হাতে রানের খাতা খোলার আগেই সাজঘরে ফেরেন এই পেসার। উদানার বলে তিনি ক্যাচ দেন উইকেটের পেছনে।

রান আউট হয়ে ফিরলেন সাইফউদ্দিন

গণমাধ্যমে পাঠানো বক্তব্যে সাইফদ্দিন ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন ওপরে ব্যাটিং করার। কিন্তু এই ম্যাচে তাকে এক ধাপ নিচে নামানো হয়। তার আগে ব্যাটিংয়ে আসেন মিরাজ। বেশি সুবিধা করতে না পারলেও মুশফিককে দারুণ সঙ্গ দিয়েছিলেন। ৩০ বলে ১১ রান করে ফেরেন রানআউট হয়ে।

মুশফিকের অষ্টম সেঞ্চুরি

আগের ম্যাচে রিভার্স সুইপ করতে গিয়ে মাঠ ছেড়েছেন ১৬ রানের আক্ষেপ নিয়ে। এবার আর আক্ষেপ থাকলো না; দুবার বৃষ্টির বাগড়ার পর মুশফিক ঠিকই তুলে নিলেন ক্যারিয়ারের অষ্টম সেঞ্চুরি। চার মেরে ১১৪ বলে তিন অঙ্কের ম্যাজিক ফিগার। স্রোতের বিপরীতে দাঁড়িয়ে মুশফিক এই সেঞ্চুরি হাঁকান। অপর প্রান্তে যখন আসা যাওয়ার মিছিল মুশফিক তখন এক প্রান্ত আগলে রাখেন। তার সেঞ্চুরির ইনিংসটি সাজানো ছিল ৬টি চারের মারে।

থেমেছে বৃষ্টি, ফের খেলা শুরু

মিরপুরে বৃষ্টি নাটক আপাতত বন্ধ। এবার আধঘণ্টারও বেশি সময় বন্ধ থাকার পর খেলা শুরু হয়েছে।

৫টা ২০ মিনিটে ব্যাটিংয়ে নামবে বাংলাদেশ

মিরপুরে থেমেছে বৃষ্টি। কাভার সরিয়ে ফেলা হয়েছে। সরিয়ে ফেলা হয়েছে পিচের কাভারও। ৫টা ২০ মিনিটে খেলা শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।

বৃষ্টিতে ফের খেলা বন্ধ, সেঞ্চুরির অপেক্ষায় মুশফিক

মিরপুরে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি বৃষ্টির পর এবার ঝুম বৃষ্টিতে বন্ধ খেলা। তবে বৃষ্টির বেগ কমে যায় ২ মিনিট না যেতেই। আবারও দেখা যাচ্ছে নাটকীয় বৃষ্টি; একবার থামে একবার আসে। গুড়িগুড়ি বৃষ্টিতে ৪টা ৮ মিনিট থেকে ৪টা ৩৪ মিনিট পর্যন্ত খেলা বন্ধ ছিল। এরপর খেলা শুরু হলেও ২ ওভার ২ বলের বেশি মাঠে গড়ায়নি। ১০ মিনিট পর বন্ধ হয়ে যায় খেলা। আগের ম্যাচে ৮৪ রানে রিভার্স সুইপ খেলতে গিয়ে ১৬ রানের জন্য মুশফিক সেঞ্চুরি মিস করেন। এবার সেই ধাপ পার হয়ে মুশফিক এখন সেঞ্চুরি থেকে মাত্র ৪ রান দূরে।

১৮৯ মিনিটে বাংলাদেশের ২০০

১৮৯ মিনিট ও ২৫৫ বলে বাংলাদেশ দলীয় ২০০ রান পার করে। এক প্রান্তে উইকেটের আসা যাওয়ার মিছিল থাকলেও মুশফিক আরেক প্রান্ত আগলে বাংলাদেশের স্কোর পার করেন ২০০ এর ঘর।

নাটকীয় বৃষ্টি

আবহাওয়া পূর্বাভাসে আগে থেকেই বৃষ্টির আভাস ছিল। দুপুর ১টা থেকে বৃষ্টির সম্ভাবনার কথা বলা থাকলেও তখন মিরপুরে ছিল ঝলমলে রোদ। তবে ছিল মেঘের আনাগোণা। ৪টা ৮ মিনিটে গুড়িগুড়ি বৃষ্টি পড়তে থাকে। সঙ্গে সঙ্গে কাভারের ঢেকে ফেলা হয় শের-ই বাংলা। বন্ধ হয়ে যায় খেলা। অল্পকিছুক্ষণ পরে কাভার সরিয়ে ফেলতে দেখা যায়। তখন দ্বিধায় ছিলেন মাঠকর্মীরা; পরে প্রধান পিচ কিউরেটর গামিনির নির্দেশে তারা কাভার সরিয়ে ফেলেন। কিছুক্ষণের মধ্যে আবার বৃষ্টি পড়ায় কাভারে ঢেকে ফেলা হয়। মিনিট পাঁচেক না যেতে আবারও বন্ধ হয় বৃষ্টি। ৪টা ২৮ মিনিটে কাভার সরিয়ে ফেলা হয়। এখন অপেক্ষা খেলা শুরুর।

আবার জোড়া পতনে বিপদে বাংলাদেশ

শুরুর জোড়া পতন ধাক্কা সামলে উঠেছিলেন মুশফিক-মাহমুদউল্লাহ। ৮৭ রানের জুটি গড়ে দলকে নিয়ে গিয়েছিলেন চালকের আসনে। মাহমুদউল্লাহর আউটের পর আবারও জোড়া পতন। পরপর দুই ওভারে সাজঘরে ফিরে গেলেন আফিফ-মিরাজ। আফিফ ১০ রান করলেও মিরাজ আউট হন ০ রানে। হাসারাঙ্গার বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন সাজঘরে।

৮ বলে ১০ রান করে আউট আফিফ

লাকশান সান্দাকানকে হাটুগেড়ে বসে মিড অনে দারুণ চারে রানের খাতা খোলেন আফিফ। শুরু থেকেই তেজদীপ্ত আফিফ ইনিংস বড় করতে পারেননি শেষ পর্যন্ত। ৮ বলে ১০ রান করে সাজঘরে ফেরেন। ইসিরু উদানার বলে মিড অনে ধরা পড়েন নিসানকার হাতে।

সম্ভাবনা দেখিয়ে সাজঘরে মাহমুদউল্লাহ

ক্রিজে থাকা মুশফিকের সঙ্গে দলের হাল ধরেছিলেন মাহমুদউল্লাহ। পঞ্চম উইকেটে গড়েছেন দারুণ জুটি। দুজনের এই জুটি থেকে আসে ১০৮ বলে ৮৭ রান। প্রথম ম্যাচের মতো এই ম্যাচে আর পারলেন না হাফসেঞ্চুরি কর‍তে। সম্ভাবনা দেখিয়ে ৫৮ বলে ৪১ রান করে ফেরেন সাজঘরে।

মুশফিক এখন দুইয়ে

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম দুই ওয়ানডেতে ব্যাট হাতে নিষ্প্রভ সাকিব। মুশফিক চেনা ফর্মে। তাতে আবার সাকিবকে টপকে ওয়ানডে রানে দুইয়ে উঠে এসেছেন মুশফিক। মিরপুরে ক্যারিয়ারের ৪১তম হাফ সেঞ্চরি পাওয়া মুশফিকের এখন ওয়ানডে রান ৬৪৮৮। শূন্য রানে আউট হওয়া সাকিবের রান ৬৪৫১। 

মুশফিকের ৪১তম ফিফটি

আগের ম্যাচে ৯৯ রানে চার উইকেট হারিয়ে যখন ধুঁকছিল বাংলাদেশ তখন ত্রাণকর্তা হয়ে আসেন মুশফিক। এবারও তার ব্যতিক্রম ঘটেনি; অপর প্রান্তে যখন আসা যাওয়ার মিছিল মুশফিক তখন আগলে রাখেন এক প্রান্ত। সিঙ্গেলস-ডাবলসে ৭০ বলে দেখা পান ক্যারিয়ারের ৪১তম হাফসেঞ্চুরি। এর মধ্যে চারের মার মাত্র ১টি।

১১০ মিনিটে বাংলাদেশের ১০০

প্রথম ওভারে ৩ চারে বাংলাদেশের ২দারুণ শুরু। এরপরে দ্বিতীয় ওভারেই জোড়া পতনে হোঁচট খায় স্বাগতিক শিবির। মুশফিক-লিটন ঘুরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। কিন্তু টিকে থাকতে পারেননি লিটন। ৪২ বলে ২৫ করে ফেরেন সাজঘরে। এরপর প্রায় দুই বছর পর দলে ফিরে ১২ বলে ১০ করে সুযোগ কাজে লাগাতে পারেননি মোসাদ্দেক হোসেন। এখন মুশফিক বাংলাদেশকে টেনে নিয়ে যাচ্ছেন মাহমুদউল্লাহকে সঙ্গে নিয়ে। ২২.২ ওভারে চার উইকেট হারিয়ে দলীয় ১০০ রান করে তামিমের দল।

সুযোগ কাজে লাগাতে পারলেন না মোসাদ্দেক

মোহাম্মদ মিথুনের জায়গায় সুযোগ পাওয়া মোসাদ্দেক হোসেন রান পেলেন না। ১২ বলে ১০ রান করে লাকশান সান্দাকানের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন। বাংলাদেশ হারাল চতুর্থ উইকেট। নতুন ব্যাটসম্যান মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।  

এবার সাজঘরে লিটন

শুরুতে দুই উইকেট হারানোর পর মুশফিক-লিটনের ব্যাটে দেখা গিয়েছিল ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যয়। কিন্তু হলো না। বড় ইনিংসের ইঙ্গিত দিয়ে লিটন ফিরলেন সাজঘরে। লাকশান সান্দাকানের আউটসাইড অফের বল কাট করতে চেয়েছিলেন লিটন; কিন্তু পয়েন্ট ধরা পড়েন হাসারাঙ্গার হাতে। আউট হওয়ার আগে তার ব্যাট থেকে আসে ২ চারে ৪২ বলে ২৫ রান।

মুশফিক-লিটনের ব্যাটে ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যয়

দলীয় ১৫ রানে একই ওভারে দুই উইকেট হারায় বাংলাদেশ। প্রথম ওভারে তামিমের তিন চারে দারুণ শুরুর পর আচমকা ঝড় বয়ে যায় বাংলাদেশের ব্যাটিংয়ে। সেই ঝড় ধীরে ধীরে সামলানোর ইঙ্গিত দিচ্ছে মুশফিক-লিটনের ব্যাট। আগের ম্যাচে ম্যাচ সেরা মুশফিককে দারুণ সঙ্গ দিচ্ছেন নিজেকে হারিয়ে খোঁজা লিটন। সিঙ্গেলস-ডাবলসে মনোযোগী এই দুই ডানহাতি ব্যাটসম্যানের মধ্যে কোনো তাড়াহুড়া দেখা যাচ্ছে না।

সাকিব ফিরলেন শূন্য রানে

দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলে তামিমকে হারায় বাংলাদেশ। এরপর ক্রিজে আসেন সাকিব আল হাসান। তার দায়িত্ব ছিল দলকে এগিয়ে নেওয়ার। কিন্তু পারলেন না। ফিরলেন খালি হাতে। দুশমন্থ চামিরার বলে এলবিডব্লিউ হয়ে ফেরেন সাজঘরে। সাকিব যেনো নিজেকে হারিয়ে খুঁজছেন। প্রথম ম্যাচে আউট হয়েছেন ১৫ রানে; এবার শূন্যতে। ওয়ানডে ক্যারিয়ারে ২১১ ম্যাচে তার শূন্য ১১টি।

দারুণ শুরুর পর সাজঘরে তামিম

টানা তিন চারে দারুণ শুরু করেছিলেন তামিম ইকবাল। ওয়াইড-নো দিয়ে দিশেহারা ইসিরু উদানা। শুরু থেকেই সাবলীল তামিম ১২ রানের সময় ইনিংসের চতুর্থ বলে ক্যাচ তুলে দেন পয়েন্টে। কিন্তু অ্যাশেন বান্দারা তালুবন্দি করতে পারেননি। এরপর আর বাঁচতে পারেননি; দুশমন্থ চামিরার বলে এলবিডব্লিউ হয়ে ফেরেব সাজঘরে। প্রথম ম্যাচে অর্ধশতক হাঁকালেও এই ম্যাচে বড় রান করতে পারেননি জীবন পেয়েও। তার ব্যাট থেকে আসে ৬ বলে ১৩ রান। 

শরিফুলের অভিষেক, জায়গা হারালেন তাসকিন-মিথুন

সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডের একাদশে দুটি বদল এনেছে বাংলাদেশ। পেসার তাসকিন জায়গা হারিয়েছেন। তার জায়গায় জীবনের প্রথম ওয়ানডে ম্যাচ খেলতে নামছেন শরীফুল ইসলাম। আগের ম্যাচে ব্যর্থ মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ মিঠুনও এই ম্যাচের একাদশ থেকে বাদ পড়েছেন। মিঠুনের জায়গায় খেলছেন মোসাদ্দেক হোসেন।

প্রায় দুই বছর পর ওয়ানডে দলে মোসাদ্দেক

মোসাদ্দেক হোসেন সর্বশেষ ওয়ানডে খেলেছেন শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেই; ২০১৯ সালের জুলাইয়ে। এরপর আর ওয়ানডের সেরা একাদশে জায়গা হয়নি। নিউ জিল্যান্ড সফরের দলে থাকলেও সুযোগ পেয়েছিলেন টি-টোয়েন্টিতে।

বাংলাদেশ: তামিম ইকবাল, লিটন কুমার দাস, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মোসাদ্দেক হোসেন, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আফিফ হোসেন ধ্রুব, মেহেদি হাসান মিরাজ, সাইফউদ্দিন, শরিফুল ইসলাম ও মোস্তাফিজুর রহমান।

শ্রীলঙ্কা: কুশল জেনিথ পেরেরা (অধিনায়ক), কুশল মেন্ডিস, দানুশকা গুনাথিকালাকা, ধনঞ্জয় ডি সিলভা, আশেন বান্দারা, ইসুরু উদানা, লাকশান সান্দাকান, দাসুন শানাঙ্কা, আশেন বানদারা, ভানিন্দু হাসারাঙ্গা, দুশমন্থ চামিরা

টস; মঙ্গলবার (২৫ মে)  মিরপুর শের-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এই ম্যাচে টস জিতে ব্যাটিং নিয়েছে  বাংলাদেশ। খেলাটাটি শুরু হচ্ছে দুপুর ১টায়।

কী বলছে আবহাওয়া রিপোর্ট

ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাবে দেশের বিভিন্ন স্থানে ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টিপাত হচ্ছে। ব্যতিক্রম নয় রাজধানী ঢাকাও। তবে মিরপুরে এখন রোদ ঝলমল করছে। ওয়ার্ল্ড ওয়েদারের প্রতিবেদন অনুযায়ী মিরপুরে দুপুর ১টায় দশমিক ২ মিলিমিটার বৃষ্টি হতে পারে। ৩টায় বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা ৮২ শতাংশ। বৃষ্টি হবে দশমিক ৭ মিলিমিটার। এরপর ৪টা, ৫টা ও সন্ধ্যা ৬টায় যথাক্রমে দশমিক ৬, ৪, ৩ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হতে পারে। রাত ৮টার দিকেও হালকা বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

এক ম্যাচ হাতে রেখে সিরিজ জয়ের সুযোগ

ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দারুণ জয়ে সিরিজে সূচনা করেছে বাংলাদেশ। তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে তামিম ইকবালের দল এগিয়ে ১-০তে। এবার এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জয়ের পালা। এই ম্যাচ জিতলে প্রথমবারের মতো লঙ্কানদের বিপক্ষে সিরিজ জিতবে বাংলাদেশ। তামিম-সাকিবরা কী পারবেন ইতিহাস গড়তে?

শীর্ষে ওঠার হাতছানি

এই ম্যাচে জিতলেই সিরিজ জয়ের সঙ্গে উন্নতি ঘটবে ওয়ানডে সুপার লিগের পয়েন্ট টেবিলে। ৭ ম্যাচে ৪ জয়ে ৪০ পয়েন্ট নিয়ে বাংলাদেশের অবস্থান এখন চতুর্থ স্থানে। আজ জিতলেই লাল সবুজের প্রতিনিধিরা অস্ট্রেলিয়া-পাকিস্তান-ইংল্যান্ডকে টপকে উঠে যাবে শীর্ষে। এই তিন দলের প্রত্যেকটির পয়েন্ট ৪০ করে।

ঢাকা/রিয়াদ

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়