ঢাকা     শুক্রবার   ০১ জুলাই ২০২২ ||  আষাঢ় ১৭ ১৪২৯ ||  ০১ জিলহজ ১৪৪৩

দোলাচলে থাকলেও সাকিবকে নিয়ে শ্রীলঙ্কার পরিকল্পনা

ক্রীড়া প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম থেকে || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:০৪, ১৩ মে ২০২২   আপডেট: ২০:১৪, ১৩ মে ২০২২
দোলাচলে থাকলেও সাকিবকে নিয়ে শ্রীলঙ্কার পরিকল্পনা

সংবাদ সম্মেলনে দিমুথ করুনারত্নকে প্রথম প্রশ্ন ইনজুরিতে জর্জর বাংলাদেশের বোলিং আক্রমণ নিয়ে। প্রশ্নকর্তা শ্রীলঙ্কান সাংবাদিক। যেখানে উঠে আসে সাকিব আল হাসান, মেহেদী হাসান মিরাজ ও তাসকিনের নাম। ভদ্রলোক তখনও জানতেন না কোভিডে আক্রান্ত সাকিব ফিরেছেন বাংলাদেশের স্কোয়াডে।

তার ভুল ভাঙেন শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক, ‘আমি যতটুকু জানতে পেরেছি, সাকিব আবার দলে ফিরে এসেছে।’

গতকাল চট্টগ্রামে পৌঁছে শুক্রবার সকালে অনুশীলন করেছে। তারা যখন অনুশীলনে তখনই কোভিড আক্রান্ত সাকিবের নেগেটিভ ফল ভাইরাল হয়। উড়তে থাকা খবর পৌঁছে যায় শ্রীলঙ্কার ড্রেসিংরুমেও।

তবে সাকিব কি কোভিড নেগেটিভ হয়েই পাঁচদিনের টেস্ট খেলতে নেমে যাবেন? কোচ রাসেল ডমিঙ্গো সাফ জানিয়েছেন, শনিবার সাকিবের ফিটনেস পরীক্ষা হবে। এক সেশন অনুশীলন করেই সাকিবকে পাঁচদিনের ম্যাচে নামানোর পক্ষপাতি নন। ৬০-৭০ ভাগ ফিট সাকিবকে মাঠে নামিয়ে ঝুঁকি নিতে নারাজ তিনি। একই সুর বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসানের কণ্ঠে। তিনি অবশ্য, খেলা না খেলার সিদ্ধান্তটা সাকিবের কোর্টেই ঠেলে দিয়েছেন।

শুক্রবার সন্ধ্যায় দলের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার। শনিবার অনুশীলনে নামবেন। ম্যাচে খেলবেন কিনা তা নিয়ে রয়েছে দোলাচল। তবে বাংলাদেশের প্রাণভোমরাকে নিয়ে পরিকল্পনা করে রাখছে শ্রীলঙ্কা।

করুণারত্নে বলেছেন, ‘আমাদের সাকিবকে নিয়ে পরিকল্পনা করতে হচ্ছে। বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার সে। আমরা তাকে সামলাতে প্রস্তুত। দেখা যাক কি হয়। আমরা আমাদের সেরা পরিকল্পনা করেই মাঠে নামবো।’

সাকিব থাকুক আর নাই থাকুক বাংলাদেশের বোলিং আক্রমণকে খাটো করছেন না লঙ্কান অধিনায়ক, ‘আমি মনে করি মিরাজ ও তাসকিনের অনুপস্থিতিতেও বাংলাদেশের বোলিং আক্রমণ বেশ ভালো। কোনোভাবেই এ আক্রমণকে খাটো করা ঠিক হবে না। এটা আমাদের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ। কন্ডিশন অনেকটা এক হলেও আমাদেরকে তাদের মাটিতে খেলেই জিততে হবে। জয়ের জন্য সম্ভাব্য সকল প্রস্তুতি আমাদের নিতে হবে।’

২০১৮ সালে দুই দল যেবার সবশেষ জহুর আহমেদে খেলেছিল রান বন্যায় ভেসেছিল ম্যাচ। নিষ্প্রণ ড্র হওয়া টেস্টে রান হয়েছিল ১৫৩৩টি। মুমিনুলের জোড়া সেঞ্চুরির জবাবে শ্রীলঙ্কার হয়ে সেঞ্চুরি করেছিলেন কুশল মেন্ডিস, ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা ও রোশন সিলভা।

চট্টগ্রামে এবারও ব্যাটিংবান্ধব উইকেট মিলবে বলে ধারণা করছেন করুনারত্নে, ‘আমি মনে করি চট্টগ্রামের উইকেট অনেকটাই ব্যাটিংবান্ধব। এখানে তিনটি টেস্ট খেলেছি। সবশেষ টেস্টে ১১০০+ রান হয়েছে। ম্যাচগুলো প্রতিটি হাই স্কোরিং হয়েছে এবং শেষমেশ ড্র হয়েছে। এবার আমরাও চেষ্টা করবো ম্যাচে ফল বের করার।’

ইয়াসিন/আমিনুল

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়