ঢাকা     বুধবার   ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||  মাঘ ২৫ ১৪২৯

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তিউনিসিয়ার প্রেরণা ইতিবাচক শুরু

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১০:৩১, ২৬ নভেম্বর ২০২২  
অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তিউনিসিয়ার প্রেরণা ইতিবাচক শুরু

বিশ্বকাপ ইতিহাসে ষষ্ঠবার প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে তিউনিসিয়া। কাতারে তারা প্রথমবার নকআউট পর্বে খেলার স্বপ্নও দেখতে শুরু করেছে। প্রথম ম্যাচে শক্তিশালী ডেনমার্ককে রুখে দেওয়া থেকে প্রেরণা পাচ্ছে তারা। ইতিবাচক শুরুতে অনুপ্রাণিত তিউনিসিয়া ‘ডি’ গ্রুপের দ্বিতীয় ম্যাচ খেলবে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে।

শনিবার বাংলাদেশ সময় বিকেল ৪টায় মুখোমুখি হচ্ছে তিউনিসিয়া ও অস্ট্রেলিয়া। প্রথম ম্যাচে ডেনিশদের সঙ্গে পয়েন্ট ভাগাভাগি করলেও অস্ট্রেলিয়ার শুরুটা হয়েছে হার দিয়ে। ফ্রান্সের কাছে ৪-১ গোলে হেরে যায় তারা। খাদের কিনারায় দাঁড়িয়ে থেকে আল জানোব স্টেডিয়ামে নামবে সকারুরা।

১৯৯৮, ২০০২ ও ২০০৬ সালের বিশ্বকাপে গ্রুপ ম্যাচে কোনও জয় না পাওয়া তিউনিসিয়া রাশিয়ায় গত আসরে বিশ্বকাপ ইতিহাসে দ্বিতীয়বার জিতেছিল। তারাই এবার শুরু করেছে ডেনমার্কের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করে। আগামী বুধবার তিউনিসিয়ার শেষ গ্রুপ ম্যাচ ফ্রান্সের বিপক্ষে। এই কঠিন ম্যাচের আগে তাদের নকআউট ভাগ্য নির্ভর করছে অস্ট্রেলিয়া ম্যাচের ফলের ওপর। 

সাম্প্রতিক ফল কিন্তু তিউনিসিয়ার পক্ষে। জানুয়ারি থেকে কোনও প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচ হারেনি তারা। তাছাড়া অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষেও সবশেষ ফল তাদের জন্য উৎসাহব্যঞ্জক। এনিয়ে তৃতীয়বার দুই দলের দেখা হচ্ছে। সবশেষ ২০০৫ সালের জুনে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক ম্যাচটি জিতেছিল আফ্রিকানরা। কনফেডারেশন্স কাপে তিউনিসিয়া ২-০ গোলে হারিয়েছিল সকারুদের।

অস্ট্রেলিয়া আছে চরম চাপের মধ্যে। ‘ডি’গ্রুপে কঠিন অবস্থানে তারা। আগের ম্যাচে তারা ক্রেইগ গডউইনের গোলে এগিয়ে গেলেও পরে চারটি গোল হজম করে হার মানে। ২০০৬ সালের বিশ্বকাপে চমক দেখিয়ে শেষ ষোলোতে খেলার পর থেকে সকারুরা গ্রুপের বৃত্তেই আটকে আছে। এবারও আগেভাগে বিদায়ের শঙ্কায় তারা। অবশ্য ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যয় নিয়ে টিকে থাকার শেষ চেষ্টা তারা করতেই পারে।

ঢাকা/ফাহিম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়