ঢাকা     বুধবার   ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||  ফাল্গুন ১৫ ১৪৩০

আলোকস্বল্পতায় বন্ধ থেকে দিনের খেলা শেষ

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৯:৩৬, ৮ ডিসেম্বর ২০২৩   আপডেট: ১৬:২৫, ৮ ডিসেম্বর ২০২৩
আলোকস্বল্পতায় বন্ধ থেকে দিনের খেলা শেষ

|| সংক্ষিপ্ত স্কোর ||
::প্রথম ইনিংস::
বাংলাদেশ: ১৭২/১০ ও নিউ জিল্যান্ড: ১৮০/১০।

::দ্বিতীয় ইনিংস::
বাংলাদেশ: ৩৮/২ (৮ ওভার)
লিড: ৩০ রানে।

দুপুর ২টা ৪৭ মিনিটে আলোকস্বল্পতায় খেলা বন্ধ হয়ে যায়। এরপর আর পরিস্থিতির উন্নতি হয়নি। শেষ পর্যন্ত বিকেল ৪টা ১৩ মিনিটে দিনের খেলার সমাপ্তি টানেন ম্যাচ অফিসিয়ালরা। জাকির হাসান ১৬ ও মুমিনুল হক শূন্যরানে ক্রিজে আছেন। তারা দুজন আগামীকাল শনিবার চতুর্থ দিনে ব্যাট করতে নামবেন।

আলোকস্বল্পতায় খেলা বন্ধ
দিনের শুরুতেই আকাশ মেঘলা ছিল তবে যথেষ্ট আলোও ছিল। সময়ের সঙ্গ আকাশ মেঘলা হতেই আলোকস্বল্পতার কারণে আবার বন্ধ খেলা।মাঠে জ্বলছে ফ্লাডলাইট জ্বললেও সেটা খেলা চালানোর মতো যথেষ্ট নয় বলে জানিয়েছেন দুই আম্পায়ার।

খেলা বন্ধ হওয়ার আগে ৮ ওভারে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২ উইকেটে ৩৮ রান। তাদের লিড এখন ৩০ রানের। জাকির হাসান ১৬ রানে অপরাজিত। রানের খাতা খোলেননি মুমিনুল হক।

উইকেট বিলিয়ে দিলেন শান্ত
টিম সাউদির অফ স্টাম্পের বাইরের বল ড্রাইভের মতো খেললেন শান্ত। কিন্তু ঠিকঠাক ব্যাটে-বলে করতে পারলেন না। মিড-অফে সহজ ক্যাচ নিলেন কেন উইলিয়ামসন।তাতে শেষ হয় বাংলাদেশ অধিনায়কের ২ চারে ১৫ রানের ইনিংস। চার নম্বরে নেমেছেন মুমিনুল হক।

৮ ওভারে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২ উইকেটে ৩৮ রান। লিড ৩০ রানের।

বাংলাদেশের লিড
জয়ের উইকেট হারিয়েও লিড নিয়েছে বাংলাদেশ। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে মিচেল স্যান্টনারকে সুইপ করে ইনিংসের প্রথম বাউন্ডারি মেরেছেন জাকির হাসান। ওই ওভারেই সফরকারীদের ৮ রানের লিড টপকে গেছে বাংলাদেশ।

শুরুতেই ফিরলেন জয়
প্রথম ইনিংসের মতো দ্বিতীয় ইনিংসেও শুরুতেই ফিরে গেছেন মাহমুদুল হাসান জয়। এজাজ প্যাটেলের অফ স্টাম্পের বাইরে পিচ করে নিখুঁত টার্নে বেরিয়ে যাওয়া ডেলিভারি এগিয়ে খেলেন জয়। ব্যাট চুমো খেয়ে বল চলে যায় প্রথম স্লিপে। দুইবারের চেষ্টায় দারুণ ক্যাচ নেন ড্যারিল মিচেল।

১৮০ রানে থামলো নিউ জিল্যান্ডের প্রথম ইনিংস
গ্লেন ফিলিপসের ঝড়ো ব্যাটিং দেখে মনে হয়েছিল, বেশ বড় লিড নিতে যাচ্ছে নিউ জিল্যান্ড। কেননা এই কিউই ব্যাটসম্যান যে একাই দলের রানের চাকা টেনে নিচ্ছিলেন। তবে বেশিক্ষণ টিকতে পারলেন না। হাফ সেঞ্চুরি পেরিয়ে ঝড় শুরু করতেই তাকে ড্রেসিংরুমের পথ দেখান পেসার শরিফুল ইসলাম।

ফিলিপসের আউটের পরই দ্রুত গুটিয়ে যায় নিউ জিল্যান্ড। আর তাতেই ৮ রানের লিড নিয়ে ১৮০ রানে শেষ হয় তাদের প্রথম ইনিংস। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৮৭ রান করেন ফিলিপস। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২০ রান করেন কাইল জেমিসন।

বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩টি করে উইকেট নেন মেহেদী হাসান মিরাজ ও তাইজুল ইসলাম। ২টি করে উইকেট ঝুলিতে পুরেন নাঈম হাসান ও শরিফুল ইসলাম।

ফিলিপস ঝড় থামালেন শরিফুল
কাইল জেমিসনের পর গ্লেন ফিলিপসকে আউট করলেন শরিফুল।অফ স্টাম্পের বাইরে পিচ করে লাইন ধরে রাখা ডেলিভারিতে অন সাইডে বড় শটের চেষ্টা করেন ফিলিপস। ব্যাটের বাইরের কানায় লেগে বল জমা পড়ে নুরুল হাসান সোহানের গ্লাভসে। নিউ জিল্যান্ডকে লিড এনে দেওয়া ইনিংসে ৯ চার ও ৪ ছক্কায় ৭২ বলে ৮৭ রান করেছেন ফিলিপস।

আগ্রাসী ব্যাটিংয়ে দলকে লিড এনে দিলেন ফিলিপস
শুরু থেকেই আগ্রাসী ব্যাটিং করে যাচ্ছিলেন ফিলিপস। তার ব্যাটিংয়ে ভর করে লিড নিলো নিউ জিল্যান্ড। ৩৫তম ওভারে বাংলাদেশের ১৭২ রান টপকে গেল সফরকারীরা। ৩৫ ওভারে নিউ জিল্যান্ডের সংগ্রহ ৮ উইকেটে ১৭৩ রান। ফিলিপস ৬৭ বলে ৮২, টিম সাউদি ৯ বলে ১২ রানে খেলছেন।

জেমিসনকে ফেরালেন শরিফুল, একপ্রান্তে আগ্রাসী ফিলিপস
ইনিংসের প্রথম ওভার করার পর ৩৩তম ওভারে আবারও আক্রমণে আসলেন শরিফুল ইসলাম। আর এসেই ফেরালেন কাইল জেমিসনকে। অফ স্টাম্পের বাইরের বলে খোঁচা মেরে শাহাদাত হোসেনের তালুবন্দি হন ২০ রান করা জেমিসন। দশ নম্বরে নেমেছেন টিম সাউদি। গ্লেন ফিলিপস খেলছেন ৭৪ রানে। 

৩৩ ওভারে নিউ জিল্যান্ডের সংগ্রহ ৮ উইকেটে ১৫৬ রান। বাংলাদেশের চেয়ে আর ১৬ রানে পিছিয়ে তারা। 

স্যান্টনারকে ফেরালেন নাঈম
প্রথমে ড্যারিল মিচেল আর এবার মিচেল স্যান্টেনার। আক্রমণে এসেই সাফল্যে পেলেন নাঈম হাসান। একশর আগে ৭ উইকেট হারাল নিউ জিল্যান্ড।স্টাম্পে পিচ করে টার্ন ও বাউন্সের সঙ্গে বেরিয়ে যাওয়া ডেলিভারি ডিফেন্স করছিলেন মিচেল। বল তার ব্যাটের কানা চুমো খেয়ে জমা হয় প্রথম স্লিপে দাঁড়ানো নাজমুল হোসেন শান্তর হাতে।

১ রান করে ফিরেছেন স্যান্টনার। নতুন ব্যাটসম্যান কাইল জেমিসন। ৪০ রানে খেলছেন গ্লেন ফিলিপস। ২৩.৩ ওভারে নিউ জিল্যান্ডের সংগ্রহ ৭ উইকেটে ৯৭ রান। এখনও ৭৫ রানে পিছিয়ে তারা।

মিরাজের দুর্দান্ত ক্যাচে ভাঙল জুটি
বল দীর্ঘক্ষণ হওয়ায় ভেসে ছিল। মিরাজ ফিল্ডিংয়ে ছিলেন ডিপ লং অনে। বলের থেকে তার দূরত্ব ছিল বেশ। কিন্তু দুর্দান্ত মিরাজ লম্বা রানিংয়ে সেই দূরত্ব ঘুচিয়ে দেন চোখের নিমিষে। বলের ওপর চোখ রেখে মিরাজ দৌড়াতে থাকেন। এক মুহূর্তের জন্য তার চোখ সরেনি। মনোযোগ নড়েনি। ঠিকঠাক বলের নিচে যাওয়ার পর হাত বাড়িয়ে ক্যাচ নেন। এরপর শরীর ফেলে ভারসাম্য নেন। বিদায়ঘণ্টা বাজে ১৮ রান করা মিচেলের।

তার বিদায়ে ভাঙল গ্লেন ফিলিপসের সঙ্গে ষষ্ঠ উইকেটে গড়া ৪৯ রানের জুটি। আগ্রাসী ব্যাটিংয়ে এই জুটির সিংহভাগ রান ফিলিপসেরই। স্রেফ ৩১ বলে ৩৯ রানে অপরাজিত তিনি। নতুন ব্যাটসম্যান মিচেল স্যান্টনার।

২২ ওভারে নিউ জিল্যান্ডের সংগ্রহ ৬ উইকেটে ৯৫ রান। এখনও ৭৭ রানে পিছিয়ে তারা।

২টা ১০ মিনিটে চা বিরতি, খেলা চলবে ৫টা ১৫ পর্যন্ত
সকালের কালো মেঘ সরে গিয়ে মিরপুরের আকাশে দেখা দিয়েছে সূর্যের হাসি। একদিন পণ্ড হবার আবারো পর শুরু হতে যাচ্ছে লড়াই। খেলা শুরুর জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত মাঠ। ওয়ার্ম আপ ও টুকটাক অনুশীলন করছেন দুই দলের ক্রিকেটাররা।

বৃষ্টির প্রভাবে প্রথম সেশন পুরোটা ভেসে যাওয়ার কারণে শেষ সেশনে ৪৫ মিনিট বেশি খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ম্যাচ অফিসিয়ালরা। চার বিরতি দেওয়া হবে ২টা ১০ মিনিটে। ২০ মিনিটের বিরতির পর  আলো থাকা সাপেক্ষে বিকেল ৫টা ১৫ মিনিট পর্যন্ত চলবে তৃতীয় দিনের খেলা।

খেলা শুরু ১২টায়
প্রথম দফায় মাঠ পরিদর্শন করে ফের ১১টার দিকে মাঠ পরিদর্শনে আসেন দুই আম্পায়ার। এরপর দ্বিতীয় দফায় মাঠ পর্যবেক্ষণের পর খেলা শুরুর সময় নির্ধারণ করলেন ম্যাচ অফিসিয়ালরা। দুপুর ১২টায় মাঠে গড়াবে তৃতীয় দিনের প্রথম বল। ম্যাচের সময় বিলম্বিত হওয়ায় এগিয়ে আনা হয়েছে মধ্যাহ্ন বিরতি। অন্যান্য দিনের মতো ১১টা ৩০ মিনিটের বদলে শুক্রবার নির্ধারিত সময়ের দশ মিনিট আগেই নেওয়া হয়েছে মধ্যাহ্ন বিরতি।

চলছে মাঠ প্রস্তুতের কাজ, হুমকিতে প্রথম সেশন
ধীরে ধীরে ফর্সা হতে শুরু করেছে মিরপুরেরর আকাশ। তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে চলছে মাঠ প্রস্তুতের কাজ। তবে তৃতীয় দিনের প্রথম সেশনের খেলা নিয়ে প্রায় হুমকিতে।এক দফা মাঠ দেখে গেছেন দুই আম্পায়ার পল রাইফেল ও রড টাকার। ১১টায় ফের পর্যবেক্ষণ করবেন তারা। সব ঠিক থাকলে শুরু হবে খেলা। অবশ্য ততোক্ষণে আরও একটি সেশনের খেলা নষ্ট হওয়া প্রায় নিশ্চিত।

কভার সরানোর কাজ শুরু
আকাশ মেঘলা থাকলেও থেমেছে বৃষ্টি। উইকেটের ওপর থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে কভারও। এখন উইকেটের ওপর থাকা চট সরানোর কাজ শুরু করেছেন মাঠকর্মীরা।আবহাওয়ার পূর্বাভাস বলছে, আপাতত আর বৃষ্টির শঙ্কা নেই। তাই খেলা শুরু হতে এখন সময়ের অপেক্ষা।

বৃষ্টি বাগড়ায় তৃতীয় দিনের খেলা শুরু হতে দেরি
দ্বিতীয় দিনের পুরোটাই ভেসে গিয়েছিল বৃষ্টিতে। তৃতীয় দিনের সকালে আকাশ মেঘলা থাকলেও বৃষ্টির অতো তোড়জোড় নেই। শুক্রবার সকালে শুরু হয়েছে কাভার সরানোর কাজ। মাঠ ভেজা থাকায় দেরি হচ্ছে তৃতীয় দিনের খেলা শুরু হতে।

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বুধবার প্রথম দিন আলোকস্বল্পতায় নির্ধারিত সময়ের ১৪ মিনিট আগে শেষ হয় খেলা। তাই পরদিন সকাল সাড়ে নয়টার জায়গায় সোয়া নয়টায় খেলা শুরু হওয়ার কথা ছিল। সেদিন বৃষ্টি হওয়ায় আজ তৃতীয় দিনও খেলা শুরু হওয়ার কথা ছিল একই সময়ে। কিন্তু মাঠে খেলার উপযোগী না থাকায় দেরি হচ্ছে এদিনও।

বাংলাদেশের সামনে লিডের হাতছানি
আজ বাংলাদেশের সামনে হাতছানি দিচ্ছে লিড। প্রথম দিনে ১৭২ রানের পুঁজি নিয়েও ৫৫ রান নিউ জিল্যান্ডের ৫ উইকেট ফীল দেওয়ার পর আজ লিডের আশায় মাঠে নামবে বাংলাদেশ।

মিরপুর টেস্টের প্রথম দিন টস জিতে ব্যাটিংয়ে নামা বাংলাদেশ অলআউট হয়েছে ১৭২ রানে। জবাবে স্রেফ ১২.৪ ওভারে ৫৫ রান করতে ৫ উইকেট হারিয়েছে নিউ জিল্যান্ড। স্বাগতিকদের চেয়ে এখনও ১১৭ রানে পিছিয়ে রয়েছে তারা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (দ্বিতীয় দিন শেষে):
বাংলাদেশ ১ম ইনিংস: ৬৬.২ ওভারে ১৭২ (জয় ১৪, জাকির ৮, শান্ত ৯, মুমিনুল ৫, মুশফিক ৩৫, শাহাদাত ৩১, মিরাজ ২০, সোহান ৭, নাঈম ১৩*, তাইজুল ৬, শরিফুল ১০; সাউদি ৫.২-৫-০-১, জেমিসন ৪-২-৮-০, এজাজ ১৭-৬-৫৪-২, স্যান্টনার ২৮-৭-৬৫-৩, ফিলিপস ১২-১-৩১-৩)

নিউ জিল্যান্ড ১ম ইনিংস: ১২.৪ ওভারে ৫৫/৫ (ল্যাথাম ৪, কনওয়ে ১১, উইলিয়ামসন ১৩, নিকোলস ১, মিচেল ১২*, ব্লান্ডেল ০, ফিলিপস ৫*; শরিফুল ১-১-০-০, মিরাজ ৬-১-১৭-৩, তাইজুল ৫.৪-০-২৯-২)

ঢাকা/বিজয়

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়