ঢাকা     সোমবার   ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ ||  আশ্বিন ১১ ১৪২৯ ||  ২৯ সফর ১৪৪৪

দুবাইয়ে স্বর্ণ ব্যবসা প্রসারে ব্যস্ত বাংলাদেশিরা

মুহাম্মদ শাহ জাহান, ইউএই থেকে  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১০:৫৫, ৮ সেপ্টেম্বর ২০২২   আপডেট: ১১:১১, ৮ সেপ্টেম্বর ২০২২
দুবাইয়ে স্বর্ণ ব্যবসা প্রসারে ব্যস্ত বাংলাদেশিরা

দীর্ঘদিন ধরে দুবাই গোল্ড মার্কেট বিশ্ববাজারে এক অভিজাত নাম। গোল্ড নিয়ে বিশ্বের সবচেয়ে বড় বাজার হলো এটি। প্রতিদিন মিলিয়ন থেকে বিলিয়ন ডলার এই মার্কেটে আদান-প্রদান হয়ে থাকে গোল্ডকে ঘিরে। এক সময় বাংলাদেশিরা এই মার্কেটের ছোটখাটো ক্রেতা হলেও বর্তমানে তারা নিজেদের বিক্রেতায় পরিণত করছে ধীরে ধীরে।

গত এক বছরে এখানে হিসাব করলে দেখা যায়, অনেক বাংলাদেশি বিশাল অঙ্কের  বিনিয়োগের মাধ্যমে গোল্ডের শোরুম প্রতিষ্ঠা করেছে এই বাজারে। পাশাপাশি ছোট ছোট বাংলাদেশি বিনিয়োগের সংখ্যাও কম নয়।  শুধু তাই নয় গোল্ড নিয়ে পুঁজিবাজারেও অসংখ্য বাংলাদেশি এখন ব্যবসা করে যাচ্ছে। 

দুবাই গোল্ড মার্কেটের অন্যতম বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠানের নাম এনআরআই জুয়েলারি। গত এক বছরে এ প্রতিষ্ঠানে কর্মসংস্থান হয়েছে প্রায় ৫০ জন বাংলাদেশির। আগামী এক বছরে আরও ১০০ জন দক্ষ বাংলাদেশি স্বর্ণকার এ প্রতিষ্ঠানে নিয়োগ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন এ প্রতিষ্ঠানের কর্তারা। বর্তমানে তিনটি অভিজাত শোরুম নিয়ে এনআরআই জুয়েলারি গোল্ড মার্কেটে বাংলাদেশি পতাকা বহন করলেও অচিরে রিফাইনারি খুলে বাংলাদেশি কারোকারদের দক্ষতা বিশ্ব বাজারে ছড়িয়ে দিতে চায় প্রতিষ্ঠানটি। 

প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার নজরুল ইসলাম বলেন, দীর্ঘদিন ধরে ভারত ও তুর্কীর ডিজাইনের প্রতি গ্রাহকদের আকর্ষণ থাকলেও আশা করছি সেখানে এখন বাংলাদেশি ডিজাইনের প্রতি ক্রেতাদের আগ্রহ বাড়বে। আমরা আগামীতে বাংলাদেশি দক্ষ কারিগর নিয়োগ দিয়ে বাংলাদেশি ডিজাইনকে উপস্থাপন করতে চাই আন্তর্জাতিক বাজারে। 

এন আর আই জুয়েলারি পরিদর্শনে গিয়ে বাংলাদেশের তারকা ক্রিকেটার মোহাম্মদ আশরাফুল বলেন, দুবাইয়ে আমরা আগামীতে একটি ইতিবাচক দিক দেখতে পাচ্ছি। এখানে  বাংলাদেশিরা ধীরে ধীরে যেভাবে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করছে তা তা আমাদের দেশের জন্য এক স্বর্ণালী অধ্যায়ের সূচনা করতে পারে।

আশরাফুল বলেন, স্বর্ণ বাজারে বাংলাদেশিদের বিনিয়োগ একটি সাহসী উদ্যোগ। এই উদ্যোগকে আমাদের অনুপ্রেরণা দিয়ে এগিয়ে নিতে হবে। 

বাংলাদেশের সাবেক ক্রিকেটার আমিনুল ইসলাম বুলবুল এন আর আই জুয়েলারি পরিদর্শনে গিয়ে বলেন, প্রবাসী বাংলাদেশিরা শুধুমাত্র শ্রমিক হিসেবে আমিরাতে আসে না। তারা এখানে বিনিয়োগ করে নিজেদের অবস্থানকে গৌরব উজ্জ্বল করে তুলেছেন। তিনি বাংলাদেশি বিনিয়োগকারীদের যথাযথ সম্মান দেওয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান। 

বাংলাদেশ কনস্যুলেটের কনসাল জেনারেল বি এম জামাল হোসেন বলেন, তিন বন্ধুর পরিশ্রমের সফলতার ফসল এনআরআই জুয়েলারি প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য এক অনুপ্রেরণার উৎস হয়ে থাকবে। সাধনা করলে যে সফলতা পাওয়া যায় তারই উদাহরণ এন আর আই জুয়েলারি। তিনি রেমিট্যান্স যুদ্ধাদের এইভাবে বিনিয়োগের মাধ্যমে বাংলাদেশে রেমিট্যান্স সম্বৃদ্ধিতে অবদান রাখার আহ্বান জানান।

এন আর আই জুয়েলারির বর্তমানে তিনটি শো-রুম রয়েছে দুবাই গোল্ড মার্কেটে। 

সম্প্রতি দুবাই আন্তর্জাতিক স্বর্ণ মার্কেটে এন আর আই জুয়েলার্সের তৃতীয় শাখা উদ্বোধন অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কনস্যুলেট দুবাই ও উত্তর আমিরাতের কনসাল জেনারেল বিএম জামাল হোসেন, বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের তারকা আশরাফুল ও আমিনুল ইসলাম বুলবুলসহ কমিউনিটি নেতারা।

/হাসান/সাইফ/

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়