ঢাকা     সোমবার   ১৭ জুন ২০২৪ ||  আষাঢ় ৩ ১৪৩১

শিশুর শ্লীলতহানি, অভিযোগ তুলে নিতে বাবা-মাকে হুমকি

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১০:১৩, ২৪ মার্চ ২০২৩   আপডেট: ১০:১৭, ২৪ মার্চ ২০২৩
শিশুর শ্লীলতহানি, অভিযোগ তুলে নিতে বাবা-মাকে হুমকি

টাঙ্গাইলে নয় বছরের এক শিশুর শ্লীলতাহানির অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনার পর বিচার চেয়ে শিশুটির পরিবার টাঙ্গাইল সদর থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। কিন্তু অভিযোগ দায়েরের পর থেকে আসামিরা শিশুটির বাবা-মাকে প্রাণনাশের হুমকি দিতে শুরু করেছে।

অভিযুক্তরা হলেন-টাঙ্গাইল সদর উপজেলার বেলটিয়াবাড়ী গ্রামের মৃত মন্টু মিয়ার ছেলে মো. লিটন (৫৮), লিটনের ছেলে মো. শিমুল (২০), মৃত শামছুল হুদার ছেলে মো. শাহিনশাহ (৫০) ও মো. বায়েজিত (৪২)।

থানায় দায়ের করা অভিযোগ থেকে জানা যায়, শিশুটি তার বাবা-মায়ের সঙ্গে একটি ভাড়া বাসায় থাকেন। গত ১৫ মার্চ বাবা-মা কাজে গেলে শিশুটি বাড়ির পাশের মুদি দোকানে সদাই আনতে যায়। সেসময় শিশুকে লিটন ডেকে নিয়ে কুপ্রস্তাব দেয়। রাজি না হলে শিশুটির শ্লীলতাহানীর চেষ্টা করেন লিটন। এমনকি তিনি ম্যাচ লাইট দিয়ে ভুক্তভোগীর গাল পুড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেন। পরে শিশুটি দৌঁড়ে গিয়ে তার মাকে বিস্তারিত বলে।  শিশুর মা স্থানীয় মাতব্বরদের বিষয়টি অবগত করেন। মাতব্বররা সামাজিকভাবে বিষয়টি সমাধানের আশ্বাস দিলেও তা হয়নি। পরে ১৮ মার্চ শিশুটির বাবা বাদী হয়ে টাঙ্গাইল সদর থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। অভিযোগ দায়েরের পর থেকেই আসামিরা প্রাণনাশের হুমকি দিতে শুরু করে।

ভুক্তভোগী শিশুর মা বলেন, গ্রামের মাতব্বররা বিষয়টি সমাধানের আশ্বাস দিলেও আসামিরা প্রভাবশালী হওয়ায় সমাধান করেননি। সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে মাতব্বরসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর লোকদের কাছে প্রতিদিনই যাচ্ছি। কিন্তু কোনো সমাধান পাচ্ছি না।

শিশুর বাবা বলেন, মামলাটি তুলে নিতে আমাদের প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে আসামিরা। আমার মেয়ের যারা ক্ষতি করার চেষ্টা করছে তাদের শাস্তি দাবি করছি।

অভিযুক্ত মো. লিটনের কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে বলেন, আপনি যা পারেন লেখেন।

অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মো. মজিদ বলেন, আমরা সরেজমিন গিয়ে চড় থাপ্পরের কথা জানতে পেরেছি। 

শিশুর শ্লীলতাহানির বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ বিষয়ে  কোনো কথা থাকলে আপনি ওসি স্যারের সঙ্গে কথা বলুন।

টাঙ্গাইল সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আবু ছালাম মিয়া বলেন, বিষয়টি খোঁজ নিয়ে বিস্তারিত জানাতে পারবো।

কাওছার/ মাসুদ

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়