ঢাকা     শুক্রবার   ১৯ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ৬ ১৪৩১

ভূঞাপুরে স্বতন্ত্র প্রার্থীর মিটিংয়ে ও গাড়ি বহরে হামলা

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৯:৫২, ১৯ ডিসেম্বর ২০২৩   আপডেট: ২০:২৩, ১৯ ডিসেম্বর ২০২৩
ভূঞাপুরে স্বতন্ত্র প্রার্থীর মিটিংয়ে ও গাড়ি বহরে হামলা

টাঙ্গাইলে ভূঞাপুরে আওয়ামী লীগ নেতা ও স্বতন্ত্র প্রার্থী ইউনুস ইসলাম তালুকদার ঠান্ডুর নির্বাচনিসভায় হামলা ও ভাঙচুর করা হয়েছে। পরে ঠান্ডুর গাড়িযোগে নির্বাচনি প্রচারণায় সময় আবারও হামলা করা হয়। এতে পরিস্থিতি উত্তপ্ত রয়েছে। নির্বাচনিসভায় হামলার ঘটনা জড়িতদের বিরুদ্ধে থানায় ও নির্বাচন কমিশন বরাবর অভিযোগ দিয়েছেন ঠান্ডু।

মঙ্গলবার (১৯ ডিসেম্বর) দুপুরে ভুঞাপুর কাচা বাজারস্থ ডেল্টা লাইভ ইন্স্যুরেন্স কার্যালয়ে নির্বাচনিসভা চলাকালে হামলা চালানো হয়। এরপর বিকেলে ওই স্বতন্ত্র প্রার্থী নির্বাচনি প্রচারণার জন্য উপজেলার গোবিন্দাসীতে যাওয়ার সময় ভূঞাপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় তার গাড়ি পথরোধ করে গাড়ি ভাঙচুর করা হয়।

এ সময় সভায় উপস্থিত ছিলেন, ঈগল প্রতীকের প্রার্থী ইউনুস ইসলাম তালুকদার ঠান্ডু, ভুঞাপুর পৌরসভার মেয়র মাসুদুল হক মাসুদ, গোপালপুর পৌরসভার মেয়র রকিবুল হক ছানা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুর রাজ্জাক, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান সাহিনুল ইসলাম তরফদার বাদল, জেলা পরিষদ সদস্য খায়রুল ইসলাম বাবলুসহ দুই উপজেলার আওয়ামী লীগের নেতারা।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুর রাজ্জাক বলেন, এমপি প্রার্থী ইউনুস ইসলাম তালুকদার ঠান্ডু নেতাকর্মীদের নিয়ে ইন্স্যুরেন্স কার্যালয়ে নির্বাচনিসভা শুরু করেন। এ সময় আতর্কিতভবে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর অনুসারীরা হামলা করে ভাঙচুর করে।

এমপি প্রার্থী ইউনুস ইসলাম তালুকদার ঠান্ডু বলেন, ‘নির্বাচনিসভা চলাকালীন সময়ে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ছোট মনিরের ক্যাডাররা হামলা করেছে। এ সময় অফিসে ভাঙচুর করা হয় এবং হুমকি দেওয়া হয়। এছাড়া আমাদের টার্গেট করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে হামলাকারীরা। পরে পুলিশকে অবহিত করা হলে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এই ঘটনায় হামলাকারীদের নাম উল্লেখ করে থানাসহ নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘প্রার্থীর উপর যদি হামলা হয়, তাহলে ভোটার ও সমর্থকরা অংশগ্রহণ করবে না। তারা তো জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ভোট দিতে আসবে না। ভোটাররা যদি ভোটকেন্দ্রে না আসতে পারে, আমরাই যদি প্রচারণার ক্ষেত্রে বাধাগ্রস্ত হই, তাহলে ভোটাররা ভোট দিতে আসবে কীভাবে?’

ভুঞাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আহসান উল্ল্যাহ জানান, ঘটনার পরই সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জাহিদুর রহমান বলেন, ‘হামলার ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ 
 

কাওছার/বকুল 

ঘটনাপ্রবাহ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়