ঢাকা     শুক্রবার   ১৯ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ৬ ১৪৩১

রংপুর-৬: উন্নয়নের বার্তা দিয়ে ভোট চায়ছেন শিরীন শারমিন

রংপুর প্রতিনিধি  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:১৭, ৩১ ডিসেম্বর ২০২৩  
রংপুর-৬: উন্নয়নের বার্তা দিয়ে ভোট চায়ছেন শিরীন শারমিন

রংপুর-৬ (পীরগঞ্জ) সংসদীয় আসন। এটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শশুরবাড়ি। আসনে নৌকার প্রার্থী স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। ভোটের মাঠে সর্বাধিক গুরুত্ব পাচ্ছেন তিনি।

পীরগঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর শশুরবাড়ি হওয়ায় বরাবর সবার দৃষ্টি রংপুর-৬ আসনের দিকে। ২০০৮ সালের নির্বাচনে এই আসন থেকে জয় লাভ করেন দলের সভানেত্রী শেখ হাসিনা। এরপর দশম ও একাদশ সংসদ নির্বাচনে আসনটি থেকে জয় পান প্রধানমন্ত্রীর আশীর্বাদপ্রাপ্ত প্রার্থী স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। এবারও তিনি নৌকার প্রার্থী হয়ে ভোটের মাঠে দিনরাত ছুটছেন। গণসংযোগ আর পথসভায় পৌঁছে দিচ্ছেন উন্নয়নের বার্তা।

রোববার (৩১ ডিসেম্বর) সকালে পীরগঞ্জ উপজেলার পার্বতীপুর মধ্যপাড়া ঈদগাহ মাঠ ও বড় আমবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে নির্বাচনি পথসভা করেন নৌকার প্রার্থী ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। এ সময় তিনি গত তিন মেয়াদের দৃশ্যমান উন্নয়নের কথা তুলে ধরেন। উন্নয়নের ধারা বজায় রাখতে আবারও নৌকায় ভোট চান তিনি। 

গত ২৬ ডিসেম্বর আসনে প্রধানমন্ত্রীর নির্বাচনি জনসভার পর সাধারণ মানুষের মাঝে নৌকার গণজোয়ার উঠেছে বলেও মনে করেন তিনি। আগামী ৭ জানুয়ারি উন্নয়নের নৌকা মার্কায় ভোট বিপ্লব হওয়ার আশা তার। 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, পীরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র তাজিমুল ইসলাম শামীম, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান সিদ্দিকী রনি, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তানিম আহসান চপলসহ অন্যান্য নেতারা। 

আসনে এবার সাতজন প্রার্থী থাকলেও তার শক্তিশালী প্রতিদ্বন্দ্বী হয়েছেন লাঙ্গলের নুর আমল যাদু। থেমে নেই আওয়ামী লীগের স্বতন্ত্র প্রার্থী সিরাজুল ইসলামও। জয় ছিনিয়ে নিতে তিন প্রার্থীই দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন ভোটের মাঠ। শেষ সময়ে দিনরাত একাকার করে চালাচ্ছেন প্রচারণা।

প্রচারনায় থেমে নেই জাতীয় পার্টির প্রার্থী নুর আলম জাদু। ভোটারদের কেন্দ্রমুখী আর নিজের বিজয় সুনিশ্চিত করতে চালাচ্ছেন জমজমাট প্রচারণা।  

নূর আলম জাদু বলেন, ‘কয়েকটি দৃশ্যমান উন্নয়ন হলেও এখনও গ্রাম অঞ্চলে আছে নানামুখী সমস্যা। রাস্তাঘাট ব্রিজ কালভার্টের অবস্থা নাজুক। উপজেলার কিছু জায়গায় উন্নয়নের ছোঁয়া লাগলেও অধিকাংশ গ্রামগুলো রয়েছে পূর্বের যুগের মতো অবহেলিত। আর এই আসনের এমপি স্থানীয় না হওয়ায় এখানকার জনগণ তার সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ করতে পারে না। তাই আমি স্থানীয় প্রার্থী হিসেবে সুখে-দুঃখে তাদের পাশে থেকে কাজ করে যাবো।’

উন্নয়ন বঞ্চনার এসব সুর তুলে লাঙ্গল প্রতীকের জাদু ছুটছেন ভোটারদের দুয়ারে দুয়ারে। স্থানীয় প্রার্থী হিসেবে লাঙ্গলের বিজয়ে আওয়ামী লীগ প্রার্থী কোনো ফ্যাক্টর নয় বলেও দাবি তার।

রংপুর-৬ (পীরগঞ্জ) আসনে নৌকা, লাঙ্গল ছাড়াও ন্যাশনাল পিপলস পার্টির হুমায়ুন ইজাজ ‘আম’, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির জাকারিয়া হোসেন ‘হাতঘড়ি’, বাংলাদেশ কংগ্রেসের মাহবুল আলম ‘ডাব’, আওয়ামী লীগের মনোনয়নবঞ্চিত স্বতন্ত্র প্রার্থী সিরাজুল ইসলাম ‘ট্রাক’ এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী তাকিয়া জাহান চৌধুরী ‘কাঁচি’ প্রতীকে ভোটযুদ্ধে লড়ছেন।

এ আসনে মোট ভোটার ৩ লাখ ২৯ হাজার ৭৫৪ জন। এর মধ্যে নারী ভোটার ১ লাখ ৬৫ হাজার ৪৯৮ জন, পুরুষ ১ লাখ ৬৪ হাজার ২৫২ এবং তৃতীয় লিঙ্গের ভোটার ৪ জন। এ আসনের ১১১টি ভোটকেন্দ্রের ৭১২টি ভোটকক্ষে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। নৌকা বিজয়ের দৌড়ে এগিয়ে থাকলে প্রতিদ্বন্দ্বিতা লাঙ্গলও আছে আলোচনায়।
 

আমিরুল/বকুল

ঘটনাপ্রবাহ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়