ঢাকা     শনিবার   ২৫ মে ২০২৪ ||  জ্যৈষ্ঠ ১১ ১৪৩১

মায়ের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন অভিনেতা রুমি

বরগুনা প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:৫৯, ২২ এপ্রিল ২০২৪   আপডেট: ২৩:০৫, ২২ এপ্রিল ২০২৪
মায়ের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন অভিনেতা রুমি

ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা অলিউল হক রুমিকে তার মায়ের কবরের পাশে শায়িত করা হয়েছে। সোমবার (২২ এপ্রিল) সন্ধ্যা পৌনে ৬টায় বরগুনার শহীদ আবুল হোসেন ঈদগাহ মাঠে দ্বিতীয় জানাজা শেষে পৌর গণকবরে তাকে দাফন করা হয়। এসময় রুমির জন্য দোয়া চান জনপ্রিয় তারকা শিল্পী ও স্থানীয় রাজনৈতিক দলের নেতারা।

এর আগে, সোমবার ভোর ৩টা ৫৮ মিনিটে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে মারা যান রুমি। তিনি কোলন ক্যানসারে আক্রান্ত ছিলেন। 

সোমবার সকাল ৯টায় রাজধানীর শহীদবাগ জামে মসজিদে রুমির প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। পরে তার মরদেহ বরগুনা পৌর শহরের পিটিআই সড়কে ছোট ভাই জিয়াউল হক জুয়েলের বাড়িতে আনেন স্বজনরা। শেষ বারের মতো রুমিকে এক নজর দেখতে জিয়াউল হকের বাড়িতে ভিড় জমান স্বজন ও শহরের বাসিন্দারা। রুমির আত্মার শান্তির জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চান তারা। 

বরগুনার ওয়ালটন শো-রুমের মালিক জিয়াউল হক জুয়েল রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘আমার ভাই রুমি অত্যন্ত ভালো মানুষ ছিলেন। তিনি বছরে অন্তত দুই বার বরগুনায় আসতেন। এলাকার অসহায় দরিদ্র মানুষকে আর্থিক সহায়তা করতেন তিনি। আমার ভাই যদি কারো মনে কষ্ট দিয়ে থাকেন তাহলে আপনারা তাকে ক্ষমা করবেন।’ 

রুমির জানাযায় অংশ নিতে এসে জনপ্রিয় অভিনেতা রাশেদ সীমান্ত বলেন, ‘রুমি ভাই খুব ভালো মানুষ ছিল। তার কাছ থেকে আমি অনেক কিছু শিখেছি।’ 

ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা শফিক খান নিলু বলেন, বরিশালের মজার সব ভাষা ছোট পর্দায় তুলে ধরে দেশের মানুষকে আনন্দ দিতেন রুমি। ছোট পর্দায় রুমির ঘাটতি আর পূরণ হবার নয়।

বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান মেয়র কামরুল আহসান মহারাজ বলেন, অভিনেতা রুমি চলচ্চিত্র জগতে বরগুনার মুখ উজ্জ্বল করেছেন। এত কম বয়সে আমরা তাকে হারিয়ে ফেলবো বুঝতে পারিনি। তিনি প্রায় বরগুনায় এসে আমাদের সঙ্গে এখানকার উন্নয়নের বিভিন্ন পরিকল্পনা শেয়ার করতেন।

বরগুনা জেলার বামনা উপজেলায় জন্ম রুমির। তার বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা আজিজুল হক ও মা হামিদা হক। তিনি মৃত্যুর আগে স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়ে রেখে গেছেন। রুমির অভিনয়ের শুরু থিয়েটার দিয়ে। বেইলি রোডের ‘এখনো ক্রীতদাস’ নাটকের মধ্য দিয়ে তিনি অভিনয়ে আসেন ১৯৮৮ সালে। একই বছর ‘কোন কাননের ফুল’ নাটকের মাধ্যমে ছোট পর্দায় অভিষেক হয় তার। টেলিভিশনের পাশাপাশি অভিনয় করেছেন সিনেমাতেও।

ইমরান/মাসুদ

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়