ঢাকা     সোমবার   ১৭ জুন ২০২৪ ||  আষাঢ় ৩ ১৪৩১

সোনারগাঁও উপজেলা নির্বাচন

হামলায় আহত ৩, এজেন্ট বের করে দেওয়ার অভিযোগ

নারায়ণগঞ্জ সংবাদদাতা || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:২৬, ২১ মে ২০২৪  
হামলায় আহত ৩, এজেন্ট বের করে দেওয়ার অভিযোগ

একটি ভোটকেন্দ্র লাইনে দাঁড়িয়ে ভোট দেওয়ার অপেক্ষায় নারীরা

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে এক প্রার্থীর সমর্থকদের ওপর হামলার অভিযোগ উঠেছে। এসময় আহত হয়েছেন তিন জন। এছাড়া, কেন্দ্র থেকে এজেন্ট বের করে দেওয়ার অভিযোগ করেছেন এক চেয়ারম্যান প্রার্থী।  

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার (২১ মে) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার ভবনাথপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের ভেতর ‘ঘোড়া’ প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী মাহফুজুর রহমান কালামের সমর্থক জাহাঙ্গীরের ওপর হামলা করে ‘আনারস’ প্রতীকের প্রার্থী বাবুল হোসেন বাবুর সমর্থক মোশারফ মেম্বারের ভাগ্নে জসিম ও তার লোকজন। 

জাহাঙ্গীর জানান, হামলাকারীরা তাকেসহ সাইদুর রহমান রাজ ও ইয়াসমিন আক্তার নামের আরো দুই জনকে আহত করে। আনারস প্রার্থীর লোকজন ইচ্ছাকৃতভাবে ভোটারদের ছত্রভঙ্গ করতে ঘটনাটি ঘটায় বলে অভিযোগ করেন তিনি। 

কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার সুমন মোল্লা জানান, পুলিশ ও আনসার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। 

‘ঘোড়া’ প্রতীকের প্রার্থী মাহফুজুর রহমান কালাম জানান, উপজেলার শম্ভুপুরা ইউনিয়নের চর কিশোরগঞ্জ, চর হোগলা ও কাঁচপুরের একটি কেন্দ্র ঘেরাও করে দখলে নেয় আনারস প্রতীকের প্রার্থী বাবুল হোসেনের সমর্থকরা। তারা ঘোড়া প্রতীকের কোনো এজেন্ট ও ভোটারদের কেন্দ্রে ঢুকতে দেয়নি। এবিষয়ে মৌখিকভাবে রিটার্নিং কর্মকর্তাকে জানানো হয়েছে।  

অভিযোগের ব্যাপারে জানতে চেয়ারম্যান প্রার্থী বাবুল হোসেন বাবুর মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল করলেও তিনি ফোন ধরেননি। ক্ষুদে বার্তা পাঠালেও উত্তর দেননি। 

সোনারগাঁ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন চারজন। তারা হলেন- উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান কালাম (ঘোড়া), উপজেলার সদ্য সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান বাবুল হোসেন বাবু (আনারস), উপজেলা যুবলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম (মোটরসাইকেল) ও উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলী হায়দার (দোয়াত-কলম)।

নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সাকিব আল রাব্বি বলেন, সোনারগাঁয়ে তিনটি কেন্দ্রে এজেন্ট ঢুকতে না দেওয়ার অভিযোগ এসেছে। একটি কেন্দ্রে কিছুটা উত্তেজনা ছিলো। আমরা তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নিয়েছি।

অনিক/মাসুদ

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়