ঢাকা     বুধবার   ১৭ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ৪ ১৪৩১

‘রাজকুমার দিয়ে বাংলা সিনেমার নতুন ইতিহাস লেখা হবে’

বিনোদন ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:৪০, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪   আপডেট: ২১:৪১, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
‘রাজকুমার দিয়ে বাংলা সিনেমার নতুন ইতিহাস লেখা হবে’

ঢালিউড কিং শাকিব খানের পরবর্তী সিনেমা ‘রাজকুমার’। এতে তার সঙ্গে জুটি বেঁধে অভিনয় করছেন মার্কিন মডেল-অভিনেত্রী কোর্টনি কফি। হিমেল আশরাফ পরিচালিত এ সিনেমার শুটিং চলার পাশাপাশি সম্পাদনার কাজও চলছে। এ নির্মাতা দাবি করেছেন—‘রাজকুমার’ বাংলা সিনেমার নতুন ইতিহাস গড়বে।

শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) হিমেল আশরাফ ফেসবুকে দীর্ঘ একটি পোস্ট দেন। লেখার শুরুতে এ নির্মাতা বলেন, ‘ঢাকা, পাবনা, কুষ্টিয়া, মানিকগঞ্জ, টাঙ্গাইল, গাজীপুর, বান্দরবান, ভারত ও আমেরিকায় শুটিং শেষ করে, রাজকুমার শুটিংয়ের পাশাপাশি এখন কাটাকাটির টেবিলে আছে। এমন এমন লোকেশনে, এমন এমন আয়োজনে রাজকুমারের শুটিং হয়েছে, যা কিছুদিন আগেও বাংলা সিনেমার জন্য স্বপ্ন ছিল। শুধু নিউইয়র্কেই টানা ১৮ দিন শুটিং হয়েছে, যেখানে প্রতিদিন অনেক আমেরিকান প্রফেশনাল ক্রু কাজ করেছেন, সাথে বাংলাদেশের টিম তো ছিলই। বাংলাদেশের স্বনামধন্য চিত্রগ্রাহক শেখ রাজিবুল ইসলামের ক্যামেরায় হোম এলোন, জন উইক ২, স্পাইডার ম্যানের মতো সিনেমার লোকেশন দেখতে পাবেন রাজকুমার সিনেমায়।’

মুম্বাইয়ের বিখ্যাত কোরিওগ্রাফার আদিল শেখ ‘রাজকুমার’ সিনেমায় কাজ করেছেন। তা জানিয়ে হিমেল আশরাফ বলেন, ‘একটা গানের সুন্দর চিত্রায়নের জন্য মুম্বাইয়ের আদিল শেখের মতো বিখ্যাত কোরিওগ্রাফারকে আমরা নিউ ইয়র্ক নিয়ে আসি, আবার তামিলের অশোক রাজার মতো বিখ্যাত কোরিওগ্রাফারকে ঢাকায় নিয়ে আসা হয়েছিল। অ্যাকশনের জন্য আমরা চলে গিয়েছিলাম চেন্নাই, তখন আমেরিকা থেকে ভারতে আনা হয়েছিল কোর্টনি কফি, খল নায়ক ও ফাইটারদের।’

‘রাজকুমার’ সিনেমার একাধিক গান তরুণদের মন কাড়বে, আবেগে ভাসাবে। তা জানিয়ে এই নির্মাতা বলেন, ‘প্রিন্স মাহমুদ, আকাশ, আর্জিন, সাজিদের সাথে এবারে গান আছে এই সময়ের ইমন চৌধুরীর। ও প্রিয়তমা গানের টিমের এইবারো একটি প্রেমের গান আছে যা নিশ্চিতভাবে প্রিয়তমা গানকে ছাড়িয়ে যাবে। ইমন চৌধুরীর গান পাগল করবে সাধারণ তরুণদের। আর প্রিন্স মাহমুদের গান আবেগে ভাসাবে, ডোবাবে, ভাবাবে।’

শাকিব খানের এ সিনেমায় চমক রয়েছে। তা উল্লেখ করে হিমেল আশরাফ বলেন, ‘গান, লোকেশন, অভিনেতা-অভিনেত্রীসহ এমন কিছু চমক আছে, যা সিনেমা হলে আসলেই চমকে দিবে সবাইকে। এমন কেউ এখানে অভিনয় করছেন, যা অবাক করবে দর্শকদের। শাকিব খান তার সেরাটা দিয়েছেন এই সিনেমায়। আরশাদ আদনান সর্বোচ্চ বাজেট দিয়েছেন রাজকুমারের জন্য। ধন্যবাদ আরশাদ আদনান, শাকিব খান ও রাজকুমার টিমের সকলকে, যাদের ইচ্ছায়, চেষ্টায়, পরিশ্রমে আমরা এমন একটা সিনেমা বানাতে পারছি, যেটা বিশ্ব সিনেমার বাজারে আমাদের সিনেমাকে একধাপ এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবে।’

‘রাজকুমার’ বাংলা সিনেমার নতুন ইতিহাস গড়বে বলে মনে করেন হিমেল আশরাফ। তার ভাষায়— ‘প্রিয়তমা সিনেমার ঘোষণা দিতে গিয়ে লিখেছিলাম, প্রিয়তমা আসছে, ইতিহাস বদলে দিতে। প্রিয়তমা বাংলা সিনেমার অনেক ইতিহাস নতুন করে লিখিয়েছে। আজ বলে যাই, রাজকুমার প্রিয়তমাকে ছাড়িয়ে যাবে, ছাড়িয়েও অনেক দূর যাবে। বাংলা সিনেমার নতুন ইতিহাস আবার নতুন করে লেখা হবে রাজকুমার দিয়ে।’

ঢাকা/শান্ত

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়