ঢাকা, রবিবার, ১৪ চৈত্র ১৪২৬, ২৯ মার্চ ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

ময়নাতদন্তে আটকে আছে প্রতিবেদন

মাকসুদুর রহমান : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০২-২০ ২:০৮:৫৪ এএম     ||     আপডেট: ২০২০-০২-২০ ৯:৩৬:১৭ এএম

পুরান ঢাকার চকবাজারের চুড়িহাট্টা। এক বছর আগে এই দিনে ভয়াবহ আগুনে মানুষ পুড়ে অঙ্গার হওয়ার সাথে সাথে পুরো এলাকা ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়।

পরে এ ঘটনায় মামলা করা হলেও এখনও তার তদন্ত শেষ হয়নি। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনের জন্য প্রতিবেদন আটকে ছিল বলে আছে পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

বুধবার রাতে চকবাজার থানার মামলার তদন্ত অগ্রগতি নিয়ে কথা হয় ডিএমপির গণমাধ্যম শাখার প্রধান মাসুদুর রহমানের সঙ্গে।

তিনি রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘মামলার তদন্তে অনেক দূর এগিয়েছে পুলিশ। সেখানে কোন ধরনের দাহ্যপদার্থ বা কেমিক্যাল ছিল তা তদন্তে বেরিয়ে এসেছে। ভবনের মালিক থেকে অন্য কারো গাফিলতি ছিল কিনা তারও তদন্ত হয়েছে। তবে সব কিছু আটকে ছিল নিহতদের ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনের জন্য। শুনেছি গতকাল বুধবার ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগ থেকে এ প্রতিবেদন পুলিশের কাছে দেওয়া হয়েছে। প্রতিবেদন পেলে সেক্ষেত্রে আদালতেও প্রতিবেদন বা চার্জশিট দেওয়া হবে।’

চকবাজার থানা পুলিশ জানায়, অগ্নিকান্ডের মামলার তদন্তে অনেক কিছু উদঘাটন হয়েছে। এজাহার নামীয় আসামি ছাড়া নতুন করে আরও তিন-চারজনের নাম এসেছে। গত এক বছরে মামলাটির অনেককিছু বেরিয়ে এসেছে।

অন্যদিকে চুরিহাট্টায় ৭১ জনের মৃত্যুর অভিযোগে মামলা হলেও ৬৭টি মরদেহের ময়নাতদন্ত হয়। ৪৫টি মরদেহ প্রাথমিকভাবেই শনাক্ত করেন স্বজনেরা। ২২টি মরদেহের মধ্যে ডিএনএ নমুনার মাধ্যমে ১৯টি শনাক্ত করা হয়।

প্রসঙ্গ, গতবছরের ২০ ফেব্রুয়ারি রাতে আগুনের সূত্রপাত হয় চকবাজারের চুড়িহাট্টার ওয়াহেদ ম্যানশনে। ওই ভবনে কেমিক্যাল গোডাউন থাকায় মুহূর্তের মধ্যে আগুন ভয়াবহ রূপ নেয়।

** ‘বাবাকে ছাড়া চলা যে কি কষ্টের তা টের পাচ্ছি’

** সানি জানে না, তার মা আর ফিরবে না

** ভেতরে সব পুইড়া মরল, শুধু দাঁড়াইয়া দাঁড়াইয়া দেখলাম’

** চুড়িহাট্টা ট্র্যাজেডির এক বছর




ঢাকা/মাকসুদ/নাসিম