Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ২৪ জুলাই ২০২১ ||  শ্রাবণ ৯ ১৪২৮ ||  ১২ জিলহজ ১৪৪২

‘মা-বাবা-বোনকে হত‌্যার পর পুলিশকে ফোন করেন মেহজাবিন’

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:০৯, ১৯ জুন ২০২১   আপডেট: ১৯:২১, ১৯ জুন ২০২১
‘মা-বাবা-বোনকে হত‌্যার পর পুলিশকে ফোন করেন মেহজাবিন’

মেহজাবিন (সংগৃহীত ছবি)

রাজধানীর কদমতলী থানাধীন মুরাদপুরে মা-বাবা ও বোনকে হত‌্যার পর মেহজাবিন নিজেই পুলিশকে ফোন করেন।

শনিবার (১৯ জুন) বিকেলে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ওয়ারী জোনের উপ-কমিশনার (ডিসি) ইফতেখারুল ইসলাম এ তথ‌্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, বাবা, মা ও বোনকে খুনের পর মেহজাবিন নিজেই জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ ফোন করে দ্রুত ঘটনাস্থলে যেতে বলেন। পুলিশ না গেলে স্বামী-সন্তানকেও হত‌্যার ভয় দেখান তিনি। খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সেখানে পৌঁছায় পুলিশ।

আরও পড়ুন: কদমতলী হত্যাকাণ্ড: রাতে সবাই একসঙ্গে খেয়েছেন, জানান আটক মেহজাবিন

ইফতেখারুল ইসলাম রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘হত‌্যাকাণ্ডের অনেক কারণ পেয়েছি। মেহজাবিনের দেওয়া তথ‌্যে তা বেরিয়ে এসেছে। তাকে মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে রিমান্ডে নেওয়া হবে।’

এদিকে, মেহজাবিন আটক হওয়ার পর তার বিষয়ে চাঞ্চল‌্যকর তথ‌্য বেরিয়ে আসছে।

আরও পড়ুন: ৩ জনকেই অচেতন ও শ্বাসরোধে খুন, বড় মেয়ে আটক

নিহতদের স্বজন ও স্থানীয়রা জানিয়েছেনে, মেহজাবিনের প্রথম বিয়ে হয় দক্ষিণ কেরানীগঞ্জে। প্রথম স্বামীকে খুনের মামলায় পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হয়েছিলেন মেহজাবিন। ওই মামলায় তিনি ৫ বছর জেলও খাটেন। ওই মামলায় মেহজাবিনের মা-বাবাকেও কারাগারে যেতে হয়। পরে শফিকুল ইসলাম অরণ‌্যকে বিয়ে করেন মেহজাবিন।

মেহজাবিনের চাচাতো বোন শিলা গণমাধ্যমকে জানান, শুক্রবার (১৮ জুন) রাতে স্বামী-সন্তানকে নিয়ে বাবার বাড়িতে আসেন মেহজাবিন। নিহত ছোট বোন জান্নাতুলের সঙ্গে স্বামী শফিকুল ইসলামের অবৈধ সম্পর্ক আছে বলে অভিযোগ করেন মেহজাবিন। এ নিয়ে বাবা-মার সঙ্গে তার কথা কাটাকাটি হয়। এছাড়া, মেহজাবিন জমি লিখে দিতে বাবা-মাকে বিভিন্ন সময় চাপ দিতেন।

আরও পড়ুন: কদমতলীতে ট্রিপল মার্ডার: পারিবারিক কলহকে কারণ বলছেন স্বজনরা

পুলিশ জানতে পেরেছে, মেহজাবিন বাবার বাড়িতে বেড়াতে আসার সময় ঘুমের ওষুধ নিয়ে আসেন। পরে চায়ের সঙ্গে মিশিয়ে তা সবাইকে খাওয়ান। এ হত‌্যাকাণ্ডের সঙ্গে মেহজাবিনের স্বামীও জড়িত থাকতে পারেন বলে সন্দেহ করছে পুলিশ।

মেহজাবিনের উচ্ছৃঙ্খল জীবনের তথ‌্য তুলে ধরে তার স্বামী শফিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘তাকে কোনোভাবেই বাগে আনতে পারছিলাম না। ছোট বোনের সঙ্গে পরকিয়ার কথা বলে বিভিন্ন সময় ঝগড়া-বিবাদ করত। কিছু হলেই রাগ করে বাসা থেকে বেরিয়ে যেত।’

আরও পড়ুন: কদমতলীতে ট্রিপল মার্ডার: আটক মেহজাবিনের স্বামী-মেয়ে হাসপাতালে

উল্লেখ‌্য, শনিবার (১৯ জুন) সকালে নিজ বাসা থেকে মেহজাবিনের বাবা মাসুদ রানা, মা মৌসুমী ইসলাম ও ছোট বোন জান্নাতুলের হাত-পা বাঁধা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

ঢাকা/মাকসুদ/রফিক

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়