ঢাকা     মঙ্গলবার   ২৩ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ১০ ১৪৩১

হঠাৎ বাইকের ট্যাংক ফুটো হয়ে তেল পড়লে যা করবেন

ইকবাল আব্দুল্লাহ রাজ || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:৪৯, ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪   আপডেট: ১৬:২০, ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
হঠাৎ বাইকের ট্যাংক ফুটো হয়ে তেল পড়লে যা করবেন

বাইকের ফুয়েল ট্যাংক মেটালের তৈরি এবং মেটালে রাস্ট বা মরিচা পড়া অস্বাভাবিক কোনো ঘটনা নয়। যারা দীর্ঘদিন ধরে একটি বাইক ব্যাবহার করছেন তারা হয়তো বাইকে মরিচা পড়ার সাথে পরিচিত।  

বিভিন্ন কারণে বাইকের বিভিন্ন অংশে মরিচা পড়তে পারে, যেমন- বাইক ধোয়ার পর অথবা বৃষ্টিতে ভেজার পর ভালোভাবে বাইক এয়ার প্রেশার দিয়ে না শুকালে মেটাল পার্টগুলোতে মরিচা ধরার সম্ভাবনা থাকে। এছাড়া যারা সমুদ্রের পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে নিয়মিত বাইক চালান, লবণাক্ত আবহাওয়ার কারণেও তাদের বাইকে মরিচা পড়ার প্রবনতা দেখা যায়।

তেলে ভেজাল বা জলীয় মিশ্রনের কারণেও ফুয়েল ট্যাংকের ভিতরে মরিচা পড়তে পারে। লম্বা সময় মরিচা পরিষ্কার করা না হলে সেটা বাড়তে বাড়তে আস্তে আস্তে এক সময় মেটালের ফুয়েল ট্যাংকে  ছিদ্র বা লিকেজ সৃষ্টি করতে পারে। 

চলন্ত বাইকের ফুয়েল ট্যাংক ছিদ্র হয়ে যদি তেল গরম ইঞ্জিনের ওপর পড়ে তাহলে বাইকে আগুন ধরার মত ঝুঁকি থাকে। তাই বাইকে মরিচা ধরার বিষয়টাকে হেলাফেলা করার কোনো সুযোগ নেই। 

তাহলে এমন অনাকাঙ্ক্ষিত বিপদ এড়াতে করনীয় কী?

✅ কয়েক মাস পরপর অথবা যখন বাইক সার্ভিস করানো হয়, তখন বাইকের বডির যন্ত্রাংশগুলো খোলা হয়। ওই সময় খুব ভাল করে ফুয়েল ট্যাংক ঘুরিয়ে ফিরিয়ে পরীক্ষা করে নেবেন তাতে কোনো মরিচা আছে কিনা। সেই সাথে ভেতর ও বাহির পরিষ্কার করিয়ে নেবেন।

✅ বাইক ওয়াশ করার পর ভালোভাবে এয়ার প্রেশার দিয়ে বাইকের সব অংশ শুকিয়ে নেবেন, প্রয়োজনে মরিচারোধী WD40 স্প্রে ব্যাবহার করতে পারেন। 

✅ মরিচা পড়া অংশ চোখে পড়লে সেই স্থান  ভালোভাবে পরিষ্কার করে পেইন্ট করিয়ে নিতে হবে।

✅ বৃষ্টিতে ভেজার পরেও এয়ার প্রেশার বা ব্লোয়ার দিয়ে বাইক শুকিয়ে নেয়ার চেস্টা করবেন। 

✅ বাইক গ্যারেজ থেকে বের করার আগে বাইক রাখার স্থানটিতে একবার চোখ বুলিয়ে নেবেন। বাইকের ফুয়েল সিস্টেমে কোনো লিকেজ থাকলে ওই  সময় তা সহজেই ধরতে পারবেন। 

✅ চলন্ত অবস্থায় যদি তেলের গন্ধ পান তাহলে বাইক থামিয়ে চেক করবেন কোনো লিকেজ আছে কিনা।

✅ লিকেজের কারণে যদি চলন্ত অবস্থায় তেল পড়তে থাকে তাহলে তৎক্ষনাৎ বাইক থামিয়ে লিকেজ খুঁজে বের করার চেষ্টা করবেন। লিকেজ থাকলে সেটা অস্থায়ীভাবে বন্ধ করার জন্য সাবান ব্যবহার করতে পারেন। এক্ষেত্রে যত দ্রুত সম্ভব সার্ভিস সেন্টারে গিয়ে ট্যাংক খুলে লিকেজ রিপেয়ার করিয়ে নিতে হবে। 

✅ অতিরিক্ত মরিচার কারণে ট্যাংক রিপেয়ারের অযোগ্য মনে হলে ফুয়েল ট্যাংক পরিবর্তন করাই উত্তম সমাধান। 

ভালো থাকুক আপনার বাইক। হ্যাপি বাইকিং। 

লেখক: অ্যাডমিন, Bike Doctor BD
 

ঢাকা/শাহেদ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়