Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     রোববার   ০৯ মে ২০২১ ||  বৈশাখ ২৬ ১৪২৮ ||  ২৬ রমজান ১৪৪২

‘সাকিবের অনুপস্থিতি ভোগাবে খুলনাকে’

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:৪৯, ১৫ ডিসেম্বর ২০২০  
‘সাকিবের অনুপস্থিতি ভোগাবে খুলনাকে’

জেমকন খুলনাকে ফাইনালে তুলতে গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামের বিপক্ষে ব্যাটে-বলে ফর্মে ফিরেছিলেন সাকিব আল হাসান। যদিও লিগ পর্বে ছিলেন না স্বাচ্ছন্দ্যে। কিন্তু যখন ছন্দে ফিরলেন, তখন পারিবারিক কারণে দল ছাড়লেন বাঁহাতি অলরাউন্ডার। ১৮ ডিসেম্বর ‘বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপ স্পন্সরড বাই ওয়ালটন’ এ খেলা হচ্ছে না তার। 

অসুস্থ শ্বশুরের পাশে থাকতে মঙ্গলবার রাতে যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশ্যে রওনা হচ্ছেন সাকিব। শিরোপার লড়াইয়ের মঞ্চে তার অনুপস্থিতি প্রভাব ফেলবে মনে করছেন খুলনার কোচ মিজানুর রহমান বাবুল। প্রতিপক্ষের জন্য এটা সুবিধাজনক হবে বললেন তিনি, ‘সাকিবের অনুপস্থিতি অবশ্যই দলে প্রভাব ফেলবে। সাকিব তো সাকিব-ই। দলে সে থাকা মানে প্রতিপক্ষ দলের ওপর চাপ আসে। অবশ্যই আমাদের দলে একটা ঘাটতি থাকবে। একজন বাঁহাতি স্পিনার, একজন ব্যাটসম্যান এবং একজন অভিজ্ঞ খেলোয়াড় চলে যাচ্ছে।’

এক বছরের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে সাকিব টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট দিয়ে ফিরেছিলেন ২২ গজে। তবে ব্যাট-বলে পারফরম্যান্সে খুব একটা প্রভাব রাখতে পারেননি। ৯ ম্যাচে করেছেন ১১০ রান। বল হাতে পেয়েছেন ৬ উইকেট। তার চেনা ফর্মে না থাকার কারণ হিসেবে পর্যাপ্ত অনুশীলনের অভাবের কথা বললেন খুলনার কোচ। 

মিজানুর বলেছেন, ‘সাকিব অনেকদিন পর খেলতে এসেছে। শাস্তির জন্য অনেক দিন ক্রিকেটের বাইরে ছিল। ম্যাচ খেলা ও অনুশীলন আলাদা। তাও ওভাবে সে অনুশীলন করেনি। শ্রীলঙ্কা সিরিজের জন্য বিকেএসপিতে অনুশীলন করেছিল। সেরকম প্রস্তুতি হয়ত সাকিবের ছিল না এবং ম্যাচ প্রস্তুতি আলাদা একটা ব্যাপার। সাকিব ওই ছন্দে না থাকার কারণে হয়তো সে তার স্বাভাবিক ফর্মে ফিরে আসতে পারেনি।’ 

ফেরার মঞ্চ হিসেবে ওয়ানডে ম্যাচ ও চারদিনের ম্যাচ খেলতে চেয়েছিলেন সাকিব। টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট হওয়ায় নিজেকে গুছিয়ে নিতে পারেননি বলে মন্তব্য করেছেন মিজানুর, ‘‘সাকিব হয়তো একটু সময় নেবে (ফর্মে ফিরতে)। তারপরও সে বলছিল ‘যদি আমি একটি চারদিনের বা ওয়ানডে ম্যাচ খেলতে পারতাম, তাহলে আমি আমার ছন্দে আবার ফিরে আসতে পারতাম।’এসেই (নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফিরে) টি-টোয়েন্টি ম্যাচ, তাই কিছুটা সময় লাগছিল তার ছন্দে ফিরে আসতে।’’ 

দল ফাইনালে উঠলেও সামগ্রিক পারফরম্যান্সে সন্তুষ্ট নন কোচ। গ্রুপ পর্বে ৮ ম্যাচে ৪টি জিতে তারা উঠেছিল প্রথম কোয়ালিফায়ারে। ডু অর ডাই ম্যাচে অবশ্য তাদের দাপটে স্রেফ উড়ে যায় চট্টগ্রাম। কোচ বলেন, ‘সামগ্রিক পারফরম্যান্স নিয়ে যদি মূল্যায়ন করি, খুব একটা সন্তুষ্ট না। ফাইনাল আমরা খেলছি। সেমিফাইনালে (কোয়ালিফায়ার) এসে খেলোয়াড়দের যে কাজ করার কথা, সেটা করেছে। কথায় আছে না- বড় খেলোয়াড়েরা বড় জায়গায় খেলে। সেটা আসলে প্রমাণ করেছে ছেলেরা।’

ঢাকা/ইয়াসিন/ফাহিম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়